| বাংলার জন্য ক্লিক করুন
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
   * রেমিট্যান্স পাঠানোয় ঘোপলা প্রবাসীদের ব্যাংকে   * ফরিদপুরে পৃথক তিনটি সড়ক দূর্ঘটনায় নিহত ১০, আহত ২৫   * রাজবাড়ী থেকে মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার   * রাজবাড়ীতে নতুন ৮ জন ডেঙ্গু রোগী ভর্তি   * গোয়ালন্দে মাইক্রোবাসের ধাক্কায় বাস চালকের মৃত্যু   * ফরিদপুর জেলার নগরকান্দায় আদালতের আদেশ অমান্য করে নির্মান হচ্ছে গ্রামীনফোন টাওয়ার   * ভারত থেকে মানহীন বাস-ট্রাক আমদানি করছে বিআরটিসি   * ‘জয় শ্রী রাম’ বলেও জীবন বাঁচাতে পারল না মুসলিম ছেলেটা   * ভালোবাসা হৃদয় না বিজ্ঞানের খেলা!   * ব্যাংক বুথে ডিজিটাল জালিয়াতি: ৬ বিদেশি রিমান্ডে  

   সাক্ষাৎকার
  এশিয়ায় সবচেয়ে কম মজুরি পায় বাংলাদেশের গার্মেন্টস শ্রমিক
  7, January, 2018, 3:38:0:PM

গার্মেন্টস শ্রমিকদের মজুরি যখন পাকিস্তানে ৯৯ ডলার, কম্বোডিয়ায় ১২৮ ডলার, ভারতে ১৩৬ ডলার, ভিয়েতনামে ১০০ ডলার এবং চীনে ২৯১ ডলার তখন তা বাংলাদেশে মাত্র ৭১ ডলার। এর অন্যতম কারণ হচ্ছে আন্তর্জাতিক ক্রেতাদের সাথে বাংলাদেশের উদ্যোক্তাদের দরকষাকষিতে দুর্বলতা। বিবিসি বাংলাকে সেন্টার ফর পলিসি ডায়লগ, সিপিডির গবেষক ড. খন্দকার গোলাম মোয়াজ্জেম এ তথ্য জানিয়ে বিবিসি বাংলাকে বলেন, এশিয়ার অন্যান্য দেশের চেয়ে বাংলাদেশ সবচেয়ে ন্যূনতম মজুরি দিচ্ছে। সামগ্রিকভাবে গড়পড়তাভাবে যদি সকল গ্রেডের মজুরি বিবেচনায় নেয়া হয়, মাসিক হিসেবে বাংলাদেশের মজুরি অন্যদেশ থেকে কিছুটা ওপরে। কিন্তু শুরুর গ্রেডে যারা ঢুকছেন গ্রেড-৭ যাদেরকে বলা হয় তারা কিন্তু এখনো অন্যান্য দেশের শ্রমিকদের তুলনায় কম বেতন পাচ্ছে।

পোশাক রফতানিতে বাংলাদেশের অবস্থান বিশ্বের দ্বিতীয় শীর্ষে। এশিয়ার মধ্যে ন্যূনতম মজুরি দেয়া হয় এ দেশে। শ্রমিকদের বড় কোন বিক্ষোভ ছাড়া বেতন বাড়ানোর লক্ষ্যে মালিক পক্ষ মজুরি বোর্ড গঠনে সম্মত হয়েছে।

বাংলাদেশের মালিকরা কেন কম বেতন দেন? অন্যদেশগুলোর সাথে এখানকার শ্রমিকদের বেতনের তফাৎটা কেমন?

এ প্রসঙ্গে ড. খন্দকার গোলাম মোয়াজ্জেম বাংলাকে বলেন, প্রথমত দেখার বিষয় – সামগ্রিক উন্নয়নের সঙ্গে শ্রমিকদের আয়ের সম্পর্ক থাকে এবং এর সঙ্গে বাজারে শ্রমিকের সরবরাহ ও উৎপাদনশীলতা, মজুরি নির্ধারণের ক্ষেত্রে এগুলোর সাথে সম্পর্ক থাকে। কোন একটি দেশে বাংলাদেশের মতো একটি ম্যানুফ্যাকচারিং খাতে অত্যধিক নির্ভরশীলতা তৈরি হয় তখন স্বাভাবিকভাবে শ্রমিক সরবরাহ বেড়ে যাবে। মজুরির ওপরে তার একটা নেগেটিভ স্কিম পড়বে সেটি একটি দিক। কিন্তু সরকারের একটা দায়িত্ব রয়েছে আইনী কাঠামোর মাধ্যমে ন্যূনতম মজুরিটা নিশ্চিত করা। বাংলাদেশের ক্ষেত্রে যেটি হয়, বাজার কাঠামো ও সরকারের আইনী কাঠামো কোনটি আসলেই উপযুক্তভাবে কাজ করে না। এ প্রতিক্রিয়া হিসেবে শ্রমিকরা বরাবরই বঞ্চিত হয়েছে। তবে তার ভিতরে কিছুটা ইতিবাচক গত ৭ থেকে ৮ বছরের ভিতরে তিনবারের মতো এটি রিভিশনভাবে কিছুটা উন্নতি হয়েছে।

কী কারণে বাংলাদেশের মালিকরা বেতন বাড়িয়ে দিতে রাজি হন না?

জবাবে ড. মোয়াজ্জেম বলেন, সরকারের আইনী কাঠামোকে উপযুক্তভাবে কাজ করত তাহলে মালিকরা সেটা মানতে গিয়ে শ্রমিকদের মজুরি বাড়াতে পারতেন। আমাদের এখানে ন্যূনতম মজুরি কয়েক বছর পর পর পুনঃনির্ধারণ হয়। তখন ১২ টি সূচকের ভিত্তিতে পুনঃমজুরি নির্ধারণ হওয়ার কথা তা মাত্র দুটা সূচকের তথ্য-উপাত্ত জাতীয়ভাবে পাওয়া যায়। তথ্য-উপাত্তগুলোর জাতীয় পর্যায়ে তথ্য না থাকার কারণে এগুলো কার্যকর করার ক্ষেত্রে এক ধরণের দ্বিধা কাজ করে এবং মালিকপক্ষের একটা চাপ কাজ করে এবং শ্রমিকরা সেখানে তথ্য-উপাত্তের অভাবে তা বাস্তবায়নের উদ্যোগ নিতে পারে না। সে জায়গায় তাদের একটা দুর্বলতা কাজ করে। আবার অন্যদিকে মালিকদের ক্ষেত্রে যে বিষয়টা বলা হয় তারা তা বাস্তবায়নের পূর্বশর্ত হিসেবে আন্তর্জাতিক ক্রেতাদের কাছ থেকে অন্যান্য দেশের মত দর নির্ধারণে দরকষাকষি করতে পারেন না। কিন্তু তারপরেও আমরা দেখতে পেয়েছি একটা ডেনিম জিন্স বানাতে চীনের একজন উদ্যোক্তা পান ৭ দশমিক ৬৯ ডলার, বাংলাদেশে পায় ৭ দশমিক ৫২ ডলার, ভিয়েতনামে পায় ৭ দশমিক ৬২ ডলার। অর্থাৎ আমাদের দেশে তারা কমমূল্যে অফার করছে।

বিদেশি ক্রেতাদের সঙ্গে বাংলাদেশিরা দেনদরবার কতটা করছে?

ড. মোয়াজ্জেম বলেন, কম মূল্য বাংলাদেশে দেয়ার বড় কারণ হচ্ছে শ্রমিকদের মজুরি কম দিতে হয়। কাঠামো হিসেবে, সামগ্রিক হিসেবে মজুরির প্রভাব সামগ্রিক মূল্যর মধ্যে পড়ে। এক্ষেত্রে যদি আমাদের উদ্যোক্তারা ভালোভাবে নির্ঘোষিত করতে পারত এবং সরকারের দিক থেকে আইন কাঠামো আরো একটু শক্তিশালী থাকত তাহলে কিন্তু মজুরি সহজভাবে বাড়তে পারত। এটি শুধু উদ্যোক্তার ওপর পড়তো না বায়ার কিন্তু এটি দিতে বাধ্য থাকতেন। তাদের কমপ্লাইন্সের গাইডলাইন সে অনুযায়ী সংশ্লিষ্ট দেশের আইন কাঠামো মানার বাধ্যবাধকতা থাকে। তাহলে আমাদের এখানে ন্যূনতম মজুরির মানদন্ড আরো সঠিক করা যেত। তার সুযোগটা কিন্তু সরাসরি একজন শ্রমিককে দেয়া যেত। সেটি আমরা এখানে প্রত্যাশা করি।



       
   শেয়ার করুন
Share Button
   আপনার মতামত দিন
     সাক্ষাৎকার
বাঙালির প্রাণের উৎসব বৈশাখ
.............................................................................................
‘পাচার হওয়া টাকা দিয়ে ১১টি পদ্মা সেতু বানানো যেত’
.............................................................................................
বাংলাদেশের মানুষ টাকা পাচার করছে কেন তা নিয়ে চিন্তা করা উচিত : অধ্যাপক আবু আহমেদ
.............................................................................................
তার দেখানো পথই বাংলাদেশকে উন্নত করে তুলেছে
.............................................................................................
একাত্তরেই বাংলাদেশ দখল করা উচিত ছিল: বিজেপি নেতা
.............................................................................................
শিক্ষা দিতে হবে জ্ঞানভিত্তিক, পরীক্ষাভিত্তিক নয়
.............................................................................................
নির্বাচনী ব্লুপ্রিন্ট বাস্তবায়ন করছে সরকার : অামীর খসরু মাহমুদ
.............................................................................................
দেশে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর তৎপরতার অভাব
.............................................................................................
জয়তু একুশ, জয়তু মাতৃভাষা
.............................................................................................
একটি ঘটে যাওয়া ঘটনা এবং তার ভিন্নতর প্রকাশ….
.............................................................................................
সাগর-রুনি হত্যারও বিচার হবে
.............................................................................................
বিরোধী দলের মতপ্রকাশ ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচনের অধিকার খর্ব করছে সরকার
.............................................................................................
বই পড়ি, স্বদেশ গড়ি
.............................................................................................
সৌদি আরবে ১৪৭ বছর বয়সে সবচেয়ে বয়স্ক মানুষের মৃত্যু
.............................................................................................
এশিয়ায় সবচেয়ে কম মজুরি পায় বাংলাদেশের গার্মেন্টস শ্রমিক
.............................................................................................
চুপ থাকা নীতি লাভবান করবে বিএনপিকে
.............................................................................................
জনগণের সেবা করতে সুযোগ চাই ---- আব্দুল মালেক
.............................................................................................
রংপুর সিটি নির্বাচন : ভোটারদের বলবো ফৌজদারি মামলার আসামিদের ভোট দিবেন না : ড. তোফায়েল আহমেদ
.............................................................................................
সন্তানকে করে তুলুন আত্মবিশ্বাসী
.............................................................................................
মন ভালো করার কার্যকরী উপায়
.............................................................................................
যার হিসাব নেয়া হবে তার ধ্বংস অনিবার্য
.............................................................................................
বঙ্গবন্ধু অল্প সময়ে দেশকে সঠিক পথে নিয়ে এসেছিলেন
.............................................................................................
স্বাধীনতার ৪৬ বছর : প্রত্যাশা ও প্রাপ্তি
.............................................................................................
‘যুক্তফ্রন্ট’ কি রাজনীতিতে নতুন কিছু যুক্ত করতে পারবে!
.............................................................................................
মাদক থেকে মুক্তির উপায় পরিবারের কাছে ফিরে যাওয়া
.............................................................................................
সয়াবিন আমদানি করছে ইরান
.............................................................................................
বাংলাদেশে বিদেশি বিনিয়োগের ভালো অবস্থা বিরাজমান
.............................................................................................
শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে শিক্ষকদের আসতে হবে
.............................................................................................
একজন মানবিক মেয়র
.............................................................................................
দেশের মানুষ কতকাল মুখ বুজে থাকবে?
.............................................................................................
রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানের পথ দীর্ঘ করতেই সমঝোতার ফাঁদ পেতেছে মিয়ানমার : রুহিন হোসেন প্রিন্স
.............................................................................................
সব দলই শিক্ষার্থীদের রাজনৈতিক প্রোগ্রামে নেয়
.............................................................................................
একটি অংশগ্রহণমূলক নির্বাচনের সম্ভাবনা কতটুকু
.............................................................................................
সঙ্গীতের উজ্জ্বল নক্ষত্র বারী সিদ্দিকী
.............................................................................................
৭ মার্চের ভাষণ : বিশ্বের গণতন্ত্রকামী মানুষের আপন কথা
.............................................................................................
কবে আমাদের হুঁশের বয়স হবে?
.............................................................................................
ইতিবাচক ধারায় ফিরছে আমাদের রাজনীতি?
.............................................................................................
কেয়ামতে বর্ণনা যেভাবে এসেছে
.............................................................................................
শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে শিক্ষকদের আসতে হবে
.............................................................................................
রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে এ সম্মেলন চলমান প্রক্রিয়াকে আরও বেগবান করবে
.............................................................................................
বাংলাদেশ ব্যাংকের হাতে সম্পূর্ণ কর্তৃত্ব থাকতে হবে
.............................................................................................
সবাই একটি গ্রহণযোগ্য জাতীয় নির্বাচন চায়
.............................................................................................
মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করতে চাই, মনের দুঃখ-কষ্টের কথাগুলো বলতে চাই
.............................................................................................
কাতালোনিয়ানদের স্বাধীনতার দাবি বাস্তবে রূপ দেওয়া অনেক জটিল ও রক্তক্ষয়ী হতে পারে
.............................................................................................
নারী নির্যাতন বন্ধে আইনের কঠোর প্রয়োগ নিশ্চিত করতে হবে
.............................................................................................
খান আতাকে আপনি রাজাকার বললেন কোন হিসেবে?
.............................................................................................
ছাত্র সংগঠনগুলোর নেতৃত্ব নিয়মিত ছাত্রদের হাতে তোলে দেওয়ার ব্যাপারে সবাইকে ঐকমত্যে আসতে হবে
.............................................................................................
রোহিঙ্গা ইস্যুতে ভারতের সমর্থন আদায় সরকারের কূটনৈতিক সফলতা
.............................................................................................
স্কুল নিবন্ধন করতেই হবে
.............................................................................................
খান আতা কীভাবে রাজাকার!
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
সম্পাদক : জাকির এইচ. তালুকদার ।     [সম্পাদক মন্ডলী ]
সম্পাদক কর্তৃক ২ আরকে মিশন রোড থেকে প্রকাশিত।
ফোন: ০১৭১৩৫৯২৬৯৬ , ই-মেইল: dtvbanglahr@gmail.com
   All Right Reserved By www.dtvbangla.com Developed By: Dynamicsolution IT [01686797756]