| বাংলার জন্য ক্লিক করুন
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
   * সুযোগ আছে বিএসসি অ্যারোনটিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে   * উন্নয়নের জন্য প্রয়োজন ইতিবাচক দৃষ্টিভঙ্গী ....ড. এফ এইচ আনসারী   * সবার মতামত নিয়েই গণতন্ত্রের ধারাবাহিকতা রক্ষায় ব্যবস্থা :প্রধানমন্ত্রী   * ডুবোচরে আটকে আছে ১৫টি মালবাহী জাহাজ   * নিম্নকক্ষে নিয়ন্ত্রণ হারালেন ট্রাম্প   * শেখ হাসিনার অধীনে সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব ---ব্যারিষ্টার নাজমুল হুদা   * আমার সংসার টিকে আছে এইতো বেশি   * গোপালগঞ্জে মোবাইলে প্রেমের ফাঁদ চক্রের ৫ সদস্য গ্রেফতার   * সাটুরিয়ায় দলিল হাতে ঘুরছে ভূমিহীন ২০ পরিবার   * এ্যরোনটিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং পেশায় আসতে চাইলে  

   নগর-মহানগর -
                                                                                                                                                                                                                                                                                                                                 
চট্টগ্রামে জমি দখলে মরিয়া

ঘনবসতিপূর্ণ চট্টগ্রামে দ্রুত সম্প্রসারিত হচ্ছে নগরায়ণ, এখানে গড়ে উঠছে গার্মেন্টসহ অসংখ্য শিল্পপ্রতিষ্ঠান। স্বাভাবিকভাবেই এখানে জমির দাম বাড়ছে। একইসঙ্গে আবাসন ও দোকান স্থাপনের জন্য বাড়ছে জমির চাহিদাও। এ কারণে জমি দখলের হিড়িক পড়েছে চট্টগ্রামে। প্রশাসন ও প্রভাবশালীদের যোগসাজশে গড়ে উঠেছে ভূমি দখলের শক্তিশালী সিন্ডিকেট। বন্দর নগরে ভূমি দখলের সংস্কৃতি কতটা ব্যাপক আকার ধারণ করেছে তা সাম্প্রতিক সময়ে কয়েকটি শিল্প গ্রুপের জমি দখলের অভিযোগের ঘটনায় পরিষ্কার হয়ে ওঠে।

অনুসন্ধানে জানা গেছে, চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ড, আকবর শাহ ও বায়েজিদ থানা এলাকায় চলছে শিল্প গ্রুপগুলোর দখল উৎসব। এজন্য নির্বিচারে কাটা হচ্ছে পাহাড়ও। তাদের আগ্রাসন থেকে বাদ যাচ্ছে না ব্যক্তি মালিকানাধীন জমি থেকে সরকারি পাহাড়। হাজার হাজার একর পাহাড় দখলের পর তা কেটে পরিণত করা হয়েছে সমতল ভূমিতে। সেখানে তৈরি হচ্ছে শিল্পকারখানা। এমনকি প্লট তৈরি করে বিক্রির ঘটনাও ঘটছে। দখলের প্রতিযোগিতায় সবার আগে রয়েছে শিল্পপ্রতিষ্ঠানগুলো।

সম্প্রতি নগরের আকবর শাহ থানাধীন ইস্পাহানী ১নং গেট এলাকায় পাহাড়িকা সিএনজি পাম্পের পূর্বপাশে তিন একর জমি দখলের অভিযোগ ওঠে রতনপুর গ্রুপের প্রতিষ্ঠান রতনপুর রিয়েল এস্টেট লিমিটেডের বিরুদ্ধে। এতে আকবর শাহ থানা পুলিশ ও স্থানীয় কাউন্সিলর জহুরুল আলম জসীম সহযোগিতা করে বলেও অভিযোগ। এ ঘটনায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও পুলিশের আইজিপির কাছে লিখিত অভিযোগ করেছেন জমির মালিক নুর উদ্দিন, নুর বাহার, হাজী শহীদুল্লাহ, হুমায়ন কবির, রুস্তম আলী ও আলী তাহের হাওলাদার। এতে উল্লেখ করা হয়, নিজ মৌরশি সম্পত্তিতে অনেক বছর ধরে বসবাস করে আসছিলাম। গত ২-৩ বছর আগে এসব সম্পত্তির ওপর কু-নজর পড়ে স্থানীয় কাউন্সিলর জহুরুল আলম জসীমের। তিনি এসব সম্পত্তি বিক্রি করার জন্য চাপ প্রয়োগ করে। কিন্তু মালিকপক্ষ জমি বিক্রি করতে রাজি না হওয়ায় এলাকাবাসীকে দেখে নেয়ার হুমকি দেন কাউন্সিলর জসীম।

অভিযোগ করে তারা জানান, পরে গত ফেব্রুয়ারি মাসের মাঝামাঝি সময়ে এসব জায়গা দখলের ষড়যন্ত্র হিসেবে রতনপুর রিয়েল এস্টেট, কাউন্সিলর জহুরুল আলম জসীম ও আকবর শাহ থানার ওসি মো. আলমগীর একটি জোট করেন। রতনপুর রিয়েল এস্টেটকে জায়গাগুলো দখল করে দেবে এমন শর্তে তাদের মধ্যে আর্থিক লেনদেন হয়। গত ১২ মার্চ রাতে পুলিশ ও সন্ত্রাসীরা আমাদের মৌরশি সম্পদের ওপর রতনপুর রিয়েল এস্টেটের সাইনবোর্ড লাগিয়ে দেয়। এ সময় আমরা প্রতিবাদ করতে গেলে পুলিশ ও সন্ত্রাসীরা আমাদের হত্যার হুমকি দেয় এবং বেঁধে রাখে। পরে ভোরে কাজ শেষ করে তারা ওই এলাকা ত্যাগ করে এবং সেখানে কিছু নিরাপত্তা কর্মী রেখে যায়। পরে ১৩ ও ১৪ মার্চ একই কায়দায় পর্যায়ক্রমে জায়গাগুলো দখল করতে থাকে। এ সময়ে কি মূলে জায়গাগুলো দখল করা হচ্ছে—এমন প্রশ্ন জিজ্ঞেস করলে তারা কোনো কাগজপত্র দেখাতে পারেনি।

অভিযোগে তারা উল্লেখ করেন, জমি দখলের ঘটনার পর আমরা আকবর শাহ থানার ওসি মো. আলমগীরের সঙ্গে দেখা করতে গেলে তিনি আমাদের মিথ্যা মামলা দেয়ার হুমকি দেন এবং এ বিষয়ে বাড়াবাড়ি না করতে বলেন। ওসি আরো বলেন, জায়গা দখলের ঘটনা সিটি মেয়রের নলেজে আছে। পরে আমরা সিটি মেয়রের সঙ্গে সাক্ষাৎ করে বিষয়টি অবহিত করলে মেয়র ঘটনা জানেন না বলে জানান এবং তারা বার বার একটি অভিযোগ দিতে বলেন। আমরা ১৫ মার্চ অভিযোগ দিয়েছি। কিন্তু গত ২৫ মার্চ রাত থেকে তারা দখল কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে। বাধা দিতে গেলে আকবর শাহ থানার এসআই শফিউল আলম মুন্সী আমাদের মা-বোনদের শ্লীলতাহানির চেষ্টা ও মারধর করেছে।

অভিযোগকারী নুর উদ্দিন বলেন, নগরীর আকবর শাহ থানা পুলিশ ও কাউন্সিলর জহুরুল আলম জসীমের সহযোগিতায় রতনপুর রিয়েল এস্টেট জোরপূর্বক আমাদের জমি দখল করছে। বুধবার চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের সামনে আমরা আমরণ অনশন কর্মসূচি পালন করব।

এদিকে অভিযোগের বিষয়ে আরএসআরএমের সহ-মহাব্যবস্থাপক (মানবসম্পদ ও প্রশাসন) মো. মোস্তফা কামাল বলেন, ২০১১ সালের ১৮ অক্টোবর ও ২০১৪ সালের ২০ মার্চ রেজিস্ট্রিকৃত সাফকবলা দলিল মূলে কেনার ফলে আরএসআরএম ওই জমির মালিক। জমিটি কেনার পর সেখানে কেয়ারটেকার নিয়োগ করে রক্ষণাবেক্ষণ ও তত্ত্বাবধান করে আসছি আমরা। কিছু কিছু পরিবার সেখানে ভাড়াটিয়া হিসেবে অবস্থান করে আসছে। তাদের ঘর ছেড়ে দিতে বললে তারা উল্টো নিজেদের দখলদার হিসেবে দাবি করছে এবং আমাদের কাছ থেকে মোটা অঙ্কের চাঁদা দাবি করছে।

এদিকে চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে রেলওয়ের কাছ থেকে ইজারা নেওয়া ২ একর জায়গা নিয়ে বিরোধে জড়িয়ে পড়েছে দেশের শীর্ষস্থানীয় দুটি শিল্প গ্রুপ পিএইচপি ও কেএসআরএম। ইজারা সূত্রে দুইপক্ষই জায়গাটি নিজেদের বলে দাবি করছে। চলছে দখল-পাল্টাদখল। গত বৃহস্পতিবার এ ঘটনা ঘটার পর রোববার দখলের অভিযোগ এনে পিএইচপি গ্রুপ সীতাকুণ্ড থানায় সাধারণ ডায়েরি করেছে। অন্যদিকে কেএসআরএম গ্রুপ এক বিবৃতিতে বলেছে, বিরোধপূর্ণ ওই জায়গা নিয়ে দুই গ্রুপের মধ্যে সমঝোতা প্রক্রিয়া চলমান আছে।

জানা গেছে, চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ড উপজেলার বাড়বকুণ্ডে পিএইচপি ফ্লোট গ্লাস কারখানার পাশে ঢাকা-চট্টগ্রাম রেললাইন ঘেঁষে থাকা ১৬০ একর জায়গা লিজ নিয়ে বনায়ন করেছে পিএইচপি গ্রুপ। এর মধ্যে পাঁচ একর জায়গায় দেশের বিলুপ্তপ্রায় বনজসম্পদ রক্ষায় ব্যতিক্রমী একটি (আরবোরেটম) প্রকল্প রয়েছে। এখানে রয়েছে সেগুন, মেহগনি, গর্জন, গামারি, চাপালিশসহ বিভিন্ন প্রজাতির লক্ষাধিক গাছ। এই বনায়নের প্রবেশ পথে রেলওয়ের ১ দশমিক ৬৪ একর জমি আছে যেটা পার হয়ে সেই প্রকল্পে যাওয়া যায়। মূলত এই ১ দশমিক ৬৪ একর জমি নিয়েই বিরোধের সূত্রপাত।

পিএইচপি ফ্লোট গ্লাস ইন্ডাস্ট্রি লিমিটেডের প্রশাসনিক কর্মকর্তা মোহাম্মদ সুলতান মিয়া রোববার সীতাকণ্ড থানায় একটি করা জিডিতে উল্লেখ করেছেন, গত ২৯ মার্চ আনুমানিক সকাল ৯টায় পিএইচপি ফ্লোট গ্লাস ইন্ডাস্ট্রির পূর্বপাশে রেলওয়ের কাছ থেকে পিএইচপি ফ্লোট ইন্ডাস্ট্রির নামে লিজকৃত ভোগদখলীয় ভূমি কেএসআরএমের ৪০০ থেকে ৫০০ ভাড়াটে সন্ত্রাসী এসে জোরপূর্বক দখল করে নেয় এবং পিএইচপি ফ্লোট গ্লাস ইন্ডাস্ট্রির ৪ নম্বর গেটে হামলা চালিয়ে ব্যাপক ক্ষতি সাধন করে।

এই হামলার কারণে আমাদের নিজস্ব নিরাপত্তারক্ষী ও ফ্যাক্টরির নিরাপত্তার কাজে নিয়োজিত আনসার সদস্যসহ বেশকিছু কর্মরত শ্রমিক আহত হয়। তারা খুঁটি গেড়ে কাঁটাতারের বেড়া দিয়ে পিএইচপির ১৬০ একর জায়গায় গড়ে তোলা ভোগদখলীয় বনায়ন এলাকায় যাওয়ার পথ বন্ধ করে দিয়েছে।

সীতাকুণ্ড থানার ওসি মো. ইফতেখার হাসান বলেন, বিরোধপূর্ণ এ জায়গা কেএসআরএম গ্রুপ দখলে নিতে যায়। তখন পিএইচপি ও কেএসআরএম গ্রুপের লোকজনের মধ্যে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠালে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে। সেখানে যাতে ফের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি না হয় সেজন্য অতিরিক্ত পুলিশ টহল রাখা হয়েছে। নতুন করে আর কোনো সমস্যা হয়নি।

এদিকে জমি দখলের বিষয়ে রোববার সকালে চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে কেএসআরএম গ্রুপের সিইও মেহেরুল করিম বলেন, কেএসআরএম গ্রুপ প্রচলিত আইন-কানুন মেনে ব্যবসা পরিচালনা করছে। অদ্যবধি এই গ্রুপের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসী কার্যকলাপ বা জমি দখলের অভিযোগ কেউ উত্থাপন করতে পারেনি। পিএইচপি গ্রুপ যে জমি দখলের কথা বলছে, সেই জমির জন্য কেএসআরএম ও পিএইচপি উভয়পক্ষ আবেদন করলে রেলওয়ে নিজস্ব সার্ভেয়ার দিয়ে তদন্ত করে। পরে রেলওয়ের বিভাগীয় ভূসম্পত্তি কর্মকর্তা ত্রিপক্ষীয় শুনানির মাধ্যমে কেএসআরএমের পক্ষে পরিচালক সেলিম উদ্দিনের নামে লাইসেন্স দেয়। ২০১৭ সাল থেকে এ জমি কেএসআরএমের দখলে আছে।

এর আগে কেএসআরএম বিষয়টি সমাধানের জন্য চট্টগ্রাম চেম্বারের দ্বারস্থ হয়। চট্টগ্রাম চেম্বারের সাবেক সভাপতি ও সংসদ সদস্য এম এ লতিফ চেম্বার ভবনে দুইপক্ষকে নিয়ে মধ্যস্থতা বৈঠকে বসেন। ওই বৈঠকে উভয়পক্ষকে ইজারা নেওয়ার কাগজপত্র দাখিলের জন্য বলা হয়। চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হওয়ার আগ পর্যন্ত উভয়পক্ষকে ওই জায়গা নিয়ে আর কোনো বিরোধে না জড়াতে বলা হয়। কিন্তু ২৯ মার্চ আবারও কেএসআরএমের পক্ষ থেকে খুঁটি গেড়ে কাঁটাতারের বেড়া দিয়ে জায়গাটি দখলে নেওয়া হয়। তবে এ জমিসংক্রান্ত বিরোধের বিষয় নিয়ে উভয় গ্রুপের মালিক পক্ষের মধ্যে সমঝোতার প্রক্রিয়া চলমান আছে বলে জানা গেছে।

এ বিষয়ে পিএইচপি গ্রুপের মহাব্যবস্থাপক (এস্টেট) আমির হোসেন বলেন, কারো সঙ্গে শুধু শুধু বিরোধ সৃষ্টি করেছে, এমন রেকর্ড পিএইচপির নেই। রেলওয়ের কাছ থেকে বরাদ্দ (কৃষি লাইসেন্স) নিয়ে ওই জায়গায় বনায়ন করে পিএইচপি গ্রুপ। এখানে সমঝোতার কিছুই নেই। কেএসআরএম সমঝোতার কথা বলে মিথ্যাচার ও ঘটনা ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা করছে।

এর আগে গত বছর ১৭ মে চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডের কুমিরা ইউনিয়নের সুলতানা মন্দির দাশপাড়া এলাকায় পুলিশের সহযোগিতায় প্রায় ৫৪ শতক জমি দখল করার অভিযোগ উঠে জিপিএইচ ইস্পাত কারখানার বিরুদ্ধে। সেদিন জমি দখলে নেওয়া নিয়ে পুলিশের সঙ্গে ধাওয়া-পাল্টাধাওয়ার ঘটনাও ঘটেছিল। ২০১৬ সালের শুরুতে সীতাকুণ্ডের বড় কুমিরা এলাকায় পাহাড় কেটে ইস্পাত কারখানা নির্মাণের অভিযোগ উঠে স্থানীয় সাংসদ দিদারুল আলমের পারিবারিক ব্যবসা প্রতিষ্ঠান গোল্ডেন ইস্পাত লিমিটেড বিরুদ্ধে। পরে তদন্তে নেমে পাহাড় কাটার সত্যতা পায় পরিবেশ অধিদফতর।

চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক ইলিয়াস হোসেন বলেন, পাহাড় কেটে ও সরকারি জমি দখল করে ব্যবসায়িক স্থাপনা নির্মাণ বন্ধে আমরা তৎপর আছি। এসব কাজে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি আমরা। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ও পরিবেশ অধিদফতরকে সঙ্গে নিয়ে আমরা এসব কাজ করব।

চট্টগ্রামে জমি দখলে মরিয়া
                                  

ঘনবসতিপূর্ণ চট্টগ্রামে দ্রুত সম্প্রসারিত হচ্ছে নগরায়ণ, এখানে গড়ে উঠছে গার্মেন্টসহ অসংখ্য শিল্পপ্রতিষ্ঠান। স্বাভাবিকভাবেই এখানে জমির দাম বাড়ছে। একইসঙ্গে আবাসন ও দোকান স্থাপনের জন্য বাড়ছে জমির চাহিদাও। এ কারণে জমি দখলের হিড়িক পড়েছে চট্টগ্রামে। প্রশাসন ও প্রভাবশালীদের যোগসাজশে গড়ে উঠেছে ভূমি দখলের শক্তিশালী সিন্ডিকেট। বন্দর নগরে ভূমি দখলের সংস্কৃতি কতটা ব্যাপক আকার ধারণ করেছে তা সাম্প্রতিক সময়ে কয়েকটি শিল্প গ্রুপের জমি দখলের অভিযোগের ঘটনায় পরিষ্কার হয়ে ওঠে।

অনুসন্ধানে জানা গেছে, চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ড, আকবর শাহ ও বায়েজিদ থানা এলাকায় চলছে শিল্প গ্রুপগুলোর দখল উৎসব। এজন্য নির্বিচারে কাটা হচ্ছে পাহাড়ও। তাদের আগ্রাসন থেকে বাদ যাচ্ছে না ব্যক্তি মালিকানাধীন জমি থেকে সরকারি পাহাড়। হাজার হাজার একর পাহাড় দখলের পর তা কেটে পরিণত করা হয়েছে সমতল ভূমিতে। সেখানে তৈরি হচ্ছে শিল্পকারখানা। এমনকি প্লট তৈরি করে বিক্রির ঘটনাও ঘটছে। দখলের প্রতিযোগিতায় সবার আগে রয়েছে শিল্পপ্রতিষ্ঠানগুলো।

সম্প্রতি নগরের আকবর শাহ থানাধীন ইস্পাহানী ১নং গেট এলাকায় পাহাড়িকা সিএনজি পাম্পের পূর্বপাশে তিন একর জমি দখলের অভিযোগ ওঠে রতনপুর গ্রুপের প্রতিষ্ঠান রতনপুর রিয়েল এস্টেট লিমিটেডের বিরুদ্ধে। এতে আকবর শাহ থানা পুলিশ ও স্থানীয় কাউন্সিলর জহুরুল আলম জসীম সহযোগিতা করে বলেও অভিযোগ। এ ঘটনায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও পুলিশের আইজিপির কাছে লিখিত অভিযোগ করেছেন জমির মালিক নুর উদ্দিন, নুর বাহার, হাজী শহীদুল্লাহ, হুমায়ন কবির, রুস্তম আলী ও আলী তাহের হাওলাদার। এতে উল্লেখ করা হয়, নিজ মৌরশি সম্পত্তিতে অনেক বছর ধরে বসবাস করে আসছিলাম। গত ২-৩ বছর আগে এসব সম্পত্তির ওপর কু-নজর পড়ে স্থানীয় কাউন্সিলর জহুরুল আলম জসীমের। তিনি এসব সম্পত্তি বিক্রি করার জন্য চাপ প্রয়োগ করে। কিন্তু মালিকপক্ষ জমি বিক্রি করতে রাজি না হওয়ায় এলাকাবাসীকে দেখে নেয়ার হুমকি দেন কাউন্সিলর জসীম।

অভিযোগ করে তারা জানান, পরে গত ফেব্রুয়ারি মাসের মাঝামাঝি সময়ে এসব জায়গা দখলের ষড়যন্ত্র হিসেবে রতনপুর রিয়েল এস্টেট, কাউন্সিলর জহুরুল আলম জসীম ও আকবর শাহ থানার ওসি মো. আলমগীর একটি জোট করেন। রতনপুর রিয়েল এস্টেটকে জায়গাগুলো দখল করে দেবে এমন শর্তে তাদের মধ্যে আর্থিক লেনদেন হয়। গত ১২ মার্চ রাতে পুলিশ ও সন্ত্রাসীরা আমাদের মৌরশি সম্পদের ওপর রতনপুর রিয়েল এস্টেটের সাইনবোর্ড লাগিয়ে দেয়। এ সময় আমরা প্রতিবাদ করতে গেলে পুলিশ ও সন্ত্রাসীরা আমাদের হত্যার হুমকি দেয় এবং বেঁধে রাখে। পরে ভোরে কাজ শেষ করে তারা ওই এলাকা ত্যাগ করে এবং সেখানে কিছু নিরাপত্তা কর্মী রেখে যায়। পরে ১৩ ও ১৪ মার্চ একই কায়দায় পর্যায়ক্রমে জায়গাগুলো দখল করতে থাকে। এ সময়ে কি মূলে জায়গাগুলো দখল করা হচ্ছে—এমন প্রশ্ন জিজ্ঞেস করলে তারা কোনো কাগজপত্র দেখাতে পারেনি।

অভিযোগে তারা উল্লেখ করেন, জমি দখলের ঘটনার পর আমরা আকবর শাহ থানার ওসি মো. আলমগীরের সঙ্গে দেখা করতে গেলে তিনি আমাদের মিথ্যা মামলা দেয়ার হুমকি দেন এবং এ বিষয়ে বাড়াবাড়ি না করতে বলেন। ওসি আরো বলেন, জায়গা দখলের ঘটনা সিটি মেয়রের নলেজে আছে। পরে আমরা সিটি মেয়রের সঙ্গে সাক্ষাৎ করে বিষয়টি অবহিত করলে মেয়র ঘটনা জানেন না বলে জানান এবং তারা বার বার একটি অভিযোগ দিতে বলেন। আমরা ১৫ মার্চ অভিযোগ দিয়েছি। কিন্তু গত ২৫ মার্চ রাত থেকে তারা দখল কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে। বাধা দিতে গেলে আকবর শাহ থানার এসআই শফিউল আলম মুন্সী আমাদের মা-বোনদের শ্লীলতাহানির চেষ্টা ও মারধর করেছে।

অভিযোগকারী নুর উদ্দিন বলেন, নগরীর আকবর শাহ থানা পুলিশ ও কাউন্সিলর জহুরুল আলম জসীমের সহযোগিতায় রতনপুর রিয়েল এস্টেট জোরপূর্বক আমাদের জমি দখল করছে। বুধবার চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের সামনে আমরা আমরণ অনশন কর্মসূচি পালন করব।

এদিকে অভিযোগের বিষয়ে আরএসআরএমের সহ-মহাব্যবস্থাপক (মানবসম্পদ ও প্রশাসন) মো. মোস্তফা কামাল বলেন, ২০১১ সালের ১৮ অক্টোবর ও ২০১৪ সালের ২০ মার্চ রেজিস্ট্রিকৃত সাফকবলা দলিল মূলে কেনার ফলে আরএসআরএম ওই জমির মালিক। জমিটি কেনার পর সেখানে কেয়ারটেকার নিয়োগ করে রক্ষণাবেক্ষণ ও তত্ত্বাবধান করে আসছি আমরা। কিছু কিছু পরিবার সেখানে ভাড়াটিয়া হিসেবে অবস্থান করে আসছে। তাদের ঘর ছেড়ে দিতে বললে তারা উল্টো নিজেদের দখলদার হিসেবে দাবি করছে এবং আমাদের কাছ থেকে মোটা অঙ্কের চাঁদা দাবি করছে।

এদিকে চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে রেলওয়ের কাছ থেকে ইজারা নেওয়া ২ একর জায়গা নিয়ে বিরোধে জড়িয়ে পড়েছে দেশের শীর্ষস্থানীয় দুটি শিল্প গ্রুপ পিএইচপি ও কেএসআরএম। ইজারা সূত্রে দুইপক্ষই জায়গাটি নিজেদের বলে দাবি করছে। চলছে দখল-পাল্টাদখল। গত বৃহস্পতিবার এ ঘটনা ঘটার পর রোববার দখলের অভিযোগ এনে পিএইচপি গ্রুপ সীতাকুণ্ড থানায় সাধারণ ডায়েরি করেছে। অন্যদিকে কেএসআরএম গ্রুপ এক বিবৃতিতে বলেছে, বিরোধপূর্ণ ওই জায়গা নিয়ে দুই গ্রুপের মধ্যে সমঝোতা প্রক্রিয়া চলমান আছে।

জানা গেছে, চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ড উপজেলার বাড়বকুণ্ডে পিএইচপি ফ্লোট গ্লাস কারখানার পাশে ঢাকা-চট্টগ্রাম রেললাইন ঘেঁষে থাকা ১৬০ একর জায়গা লিজ নিয়ে বনায়ন করেছে পিএইচপি গ্রুপ। এর মধ্যে পাঁচ একর জায়গায় দেশের বিলুপ্তপ্রায় বনজসম্পদ রক্ষায় ব্যতিক্রমী একটি (আরবোরেটম) প্রকল্প রয়েছে। এখানে রয়েছে সেগুন, মেহগনি, গর্জন, গামারি, চাপালিশসহ বিভিন্ন প্রজাতির লক্ষাধিক গাছ। এই বনায়নের প্রবেশ পথে রেলওয়ের ১ দশমিক ৬৪ একর জমি আছে যেটা পার হয়ে সেই প্রকল্পে যাওয়া যায়। মূলত এই ১ দশমিক ৬৪ একর জমি নিয়েই বিরোধের সূত্রপাত।

পিএইচপি ফ্লোট গ্লাস ইন্ডাস্ট্রি লিমিটেডের প্রশাসনিক কর্মকর্তা মোহাম্মদ সুলতান মিয়া রোববার সীতাকণ্ড থানায় একটি করা জিডিতে উল্লেখ করেছেন, গত ২৯ মার্চ আনুমানিক সকাল ৯টায় পিএইচপি ফ্লোট গ্লাস ইন্ডাস্ট্রির পূর্বপাশে রেলওয়ের কাছ থেকে পিএইচপি ফ্লোট ইন্ডাস্ট্রির নামে লিজকৃত ভোগদখলীয় ভূমি কেএসআরএমের ৪০০ থেকে ৫০০ ভাড়াটে সন্ত্রাসী এসে জোরপূর্বক দখল করে নেয় এবং পিএইচপি ফ্লোট গ্লাস ইন্ডাস্ট্রির ৪ নম্বর গেটে হামলা চালিয়ে ব্যাপক ক্ষতি সাধন করে।

এই হামলার কারণে আমাদের নিজস্ব নিরাপত্তারক্ষী ও ফ্যাক্টরির নিরাপত্তার কাজে নিয়োজিত আনসার সদস্যসহ বেশকিছু কর্মরত শ্রমিক আহত হয়। তারা খুঁটি গেড়ে কাঁটাতারের বেড়া দিয়ে পিএইচপির ১৬০ একর জায়গায় গড়ে তোলা ভোগদখলীয় বনায়ন এলাকায় যাওয়ার পথ বন্ধ করে দিয়েছে।

সীতাকুণ্ড থানার ওসি মো. ইফতেখার হাসান বলেন, বিরোধপূর্ণ এ জায়গা কেএসআরএম গ্রুপ দখলে নিতে যায়। তখন পিএইচপি ও কেএসআরএম গ্রুপের লোকজনের মধ্যে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠালে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে। সেখানে যাতে ফের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি না হয় সেজন্য অতিরিক্ত পুলিশ টহল রাখা হয়েছে। নতুন করে আর কোনো সমস্যা হয়নি।

এদিকে জমি দখলের বিষয়ে রোববার সকালে চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে কেএসআরএম গ্রুপের সিইও মেহেরুল করিম বলেন, কেএসআরএম গ্রুপ প্রচলিত আইন-কানুন মেনে ব্যবসা পরিচালনা করছে। অদ্যবধি এই গ্রুপের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসী কার্যকলাপ বা জমি দখলের অভিযোগ কেউ উত্থাপন করতে পারেনি। পিএইচপি গ্রুপ যে জমি দখলের কথা বলছে, সেই জমির জন্য কেএসআরএম ও পিএইচপি উভয়পক্ষ আবেদন করলে রেলওয়ে নিজস্ব সার্ভেয়ার দিয়ে তদন্ত করে। পরে রেলওয়ের বিভাগীয় ভূসম্পত্তি কর্মকর্তা ত্রিপক্ষীয় শুনানির মাধ্যমে কেএসআরএমের পক্ষে পরিচালক সেলিম উদ্দিনের নামে লাইসেন্স দেয়। ২০১৭ সাল থেকে এ জমি কেএসআরএমের দখলে আছে।

এর আগে কেএসআরএম বিষয়টি সমাধানের জন্য চট্টগ্রাম চেম্বারের দ্বারস্থ হয়। চট্টগ্রাম চেম্বারের সাবেক সভাপতি ও সংসদ সদস্য এম এ লতিফ চেম্বার ভবনে দুইপক্ষকে নিয়ে মধ্যস্থতা বৈঠকে বসেন। ওই বৈঠকে উভয়পক্ষকে ইজারা নেওয়ার কাগজপত্র দাখিলের জন্য বলা হয়। চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হওয়ার আগ পর্যন্ত উভয়পক্ষকে ওই জায়গা নিয়ে আর কোনো বিরোধে না জড়াতে বলা হয়। কিন্তু ২৯ মার্চ আবারও কেএসআরএমের পক্ষ থেকে খুঁটি গেড়ে কাঁটাতারের বেড়া দিয়ে জায়গাটি দখলে নেওয়া হয়। তবে এ জমিসংক্রান্ত বিরোধের বিষয় নিয়ে উভয় গ্রুপের মালিক পক্ষের মধ্যে সমঝোতার প্রক্রিয়া চলমান আছে বলে জানা গেছে।

এ বিষয়ে পিএইচপি গ্রুপের মহাব্যবস্থাপক (এস্টেট) আমির হোসেন বলেন, কারো সঙ্গে শুধু শুধু বিরোধ সৃষ্টি করেছে, এমন রেকর্ড পিএইচপির নেই। রেলওয়ের কাছ থেকে বরাদ্দ (কৃষি লাইসেন্স) নিয়ে ওই জায়গায় বনায়ন করে পিএইচপি গ্রুপ। এখানে সমঝোতার কিছুই নেই। কেএসআরএম সমঝোতার কথা বলে মিথ্যাচার ও ঘটনা ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা করছে।

এর আগে গত বছর ১৭ মে চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডের কুমিরা ইউনিয়নের সুলতানা মন্দির দাশপাড়া এলাকায় পুলিশের সহযোগিতায় প্রায় ৫৪ শতক জমি দখল করার অভিযোগ উঠে জিপিএইচ ইস্পাত কারখানার বিরুদ্ধে। সেদিন জমি দখলে নেওয়া নিয়ে পুলিশের সঙ্গে ধাওয়া-পাল্টাধাওয়ার ঘটনাও ঘটেছিল। ২০১৬ সালের শুরুতে সীতাকুণ্ডের বড় কুমিরা এলাকায় পাহাড় কেটে ইস্পাত কারখানা নির্মাণের অভিযোগ উঠে স্থানীয় সাংসদ দিদারুল আলমের পারিবারিক ব্যবসা প্রতিষ্ঠান গোল্ডেন ইস্পাত লিমিটেড বিরুদ্ধে। পরে তদন্তে নেমে পাহাড় কাটার সত্যতা পায় পরিবেশ অধিদফতর।

চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক ইলিয়াস হোসেন বলেন, পাহাড় কেটে ও সরকারি জমি দখল করে ব্যবসায়িক স্থাপনা নির্মাণ বন্ধে আমরা তৎপর আছি। এসব কাজে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি আমরা। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ও পরিবেশ অধিদফতরকে সঙ্গে নিয়ে আমরা এসব কাজ করব।

রথীশ চন্দ্র হত্যার নেপথ্যে স্ত্রী ও তার প্রেমিক
                                  
রংপুরের অ্যাডভোকেট রথীশ চন্দ্র ভৌমিককে হত্যার নেপথ্যে রয়েছেন স্ত্রী দীপা ভৌমিক ও দীপার প্রেমিক কামরুল ইসলাম জাফরি। গত ছয়দিন নিখোঁজ থাকার পর কামরুল ইসলামের ভাইয়ের একটি নির্মাণাধীন ভবন থেকেই উদ্ধার করা হয়েছে রথীশ চন্দ্র ভৌমিক বাবু সোনার লাশ।
 
র‌্যাব জানিয়েছে, দীপা ভৌমিক ও সহকর্মী প্রেমিক কামরুল ইসলামের নেতৃত্বেই এই হত্যাকাণ্ড সংঘটিত হয়েছে। লাশ সনাক্তের সময় ওই ভবনে নেয়া হয় দীপা ভৌমিককেও।
 
গতকাল মঙ্গলবার রাত একটায় রংপুর শহরের তাজহাট মোল্লাপাড়ার একটি নির্মাণাধীন ভবনে স্তুপ করে রাখা বালির নিচ থেকে রথীশ চন্দ্রের লাশ উদ্ধার করা হয়।
 
অ্যাডভোকেট রথীশ চন্দ্র ভৌমিকের স্ত্রীর দেয়া তথ্যমতে, একটি মৃতদেহের অবস্থান শনাক্ত করে র‌্যাব। স্ত্রীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য র‌্যাব কার্যালয়ে নেয়া হয়েছে।
 
রংপুরের বিশেষ আদালতের পিপি, আওয়ামী লীগ নেতা ও বিভিন্ন সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতা রথীশ চন্দ্র ভৌমিক বাবু সোনা ছয়দিন ধরে নিখোঁজ ছিলেন। তার নিখোঁজের ঘটনাকে কেন্দ্র করে বিভাগীয় শহর রংপুরের সর্বত্র নানা আলোচনা চলছে। তার নিখোঁজ নিয়ে জনমনে নানা প্রশ্ন- কেউ বলছে বাবু সোনা আত্মগোপন করেছেন। কারো কারো মতে তার প্রতিপক্ষ ডেকে নিয়ে গেছে। কারো ধারণা তাকে জেএমবি তুলে নিয়ে হত্যা করেছে। নানা মুখে নানা কথা। 
 
এ দিকে পুলিশ র‌্যাবসহ আইন শৃংখলা বাহিনীর সকল ইউনিট সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে তাকে উদ্ধারের চেষ্টা অব্যাহত রেখেছিল। তাকে ফিরে পাওয়ার দাবিতে সোমবার ৫ম দিনের মতো নগরীর বিভিন্ন স্থানে একাধিক সংগঠন কর্মবিরতি, মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে। পুলিশ ৫ জামায়াত শিবিরের নেতাকর্মীসহ নয়জনকে গ্রেফতার করেছে। গতকাল মঙ্গলবার বিকাল চারটায় বাবু সোনার শহরের আলম নগর বাবু পাড়ার বাসার পেছনে রংপুর ডিবি পুলিশ ডোবার কাদা মাটি অপসারণ ও বাড়ির সেপটিক ট্যাংক খোঁড়াখুঁড়ি করে নিখোঁজ আইনজীবী সন্ধান চালিয়েছে।
 
মঙ্গলবার সকালে নগরীর প্রেসক্লাবের সামনে বাবু সোনার নিখোঁজের প্রতিবাদে অনশন ও বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে বাংলাদেশ জাতীয় হিন্দু মহাজোটসহ অন্যান্য সংগঠন। সমাবেশ থেকে বক্তারা বাবু সোনার সন্ধানের বিষয় প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করা হয়।
 
উল্লেখ্য, গত শুক্রবার সকাল থেকে আইনজীবী বাবু সোনা নিখোঁজ ছিলেন। তিনি জাপানি নাগরিক কুনিও হোশি ও মাজারের খাদেম হত্যা মামলার বিশেষ পিপি ছিলেন। বাবুসোনা জেলা আওয়ামী লীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক ছাড়াও হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের রংপুর বিভাগের ট্রাস্টি, পূজা উদযাপন পরিষদ ও সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের বিভিন্ন সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠনের সঙ্গেও তিনি জড়িত ছিলেন।
মিরপুরে বেতনের দাবিতে পোশাক শ্রমিকদের সড়ক অবরোধ
                                  

বকেয়া বেতন ও ওভার টাইমের টাকার দাবিতে রাজধানীর মিরপুরে সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করছেন পোশাক শ্রমিকরা।

মঙ্গলবার বেলা ১১টায় মিরপুর-২ এর প্রশিকা ভবনের সামনের সড়কে বিক্ষোভ শুরু করেন আনিকা অ্যাপারেলস নামের একটি পোশাক কারখানার অন্তত ১৪০০ শ্রমিক।

এক পর্যায়ে শ্রমিকরা সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ শুরু করেন। এর ফলে মিরপুর-২, শেরেবাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়াম ও রূপনগর এলাকা জুড়ে তীব্র যানজট সৃষ্টি হয়। সর্বশেষ দুপুর ২টায়ও শ্রমিকরা বিক্ষোভ করছিলেন।

ঘটনাস্থল থেকে আনিকা অ্যাপারেলসের শ্রমিক রাজিয়া সুলতানা যুগান্তরকে বলেন, প্রতি মাসেই আমাদের বেতন ও ওভার টাইমের টাকার জন্য কারখানার ভেতরে আন্দোলন করতে হয়। এ মাসেও আমরা আন্দোলন করছিলাম। কিন্তু এবার মাসের শেষেও মালিকপক্ষ বেতন-ভাতা দিচ্ছে না। তাই কারখানা থেকে বের হয়ে আমরা বিক্ষোভ করছি।

এদিকে অবরোধের কারণে চারপাশের সড়কে তীব্র যানজট সৃষ্টি হওয়ায় বিক্ষুব্ধ শ্রমিকদের সড়ক থেকে সরিয়ে দিতে বোঝানোর চেষ্টা করছে পুলিশ। ঘটনাস্থলে মিরপুর অঞ্চলের পুলিশের সহকারী কমিশনার জাকির হোসেনের নেতৃত্বে বিপুল সংখ্যক পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। এছাড়া সেখানে র‌্যাবের কয়েকটি গাড়িও টহল দিতে দেখা গেছে।

হলি অার্টিজান : অস্ত্র সরবরাহকারী জঙ্গি সাগর ও নিলয় গ্রেফতার
                                  
রাজধানীর গুলশানে হলি অার্টিজানে জঙ্গি হামলায় অস্ত্র সরবরাহকারী জেএমবির হাদিসুর রহমান সাগর ও অাকরাম হোসেন নিলয়কে বুধবার রাতে বগুড়ায় গ্রেফতার করেছে পুলিশ। রাতেই তাদেরকে ঢাকার কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্স ন্যাশনাল ক্রাইম (সিটিটিসি) ইউনিটের কাছে হস্তান্তর করেছে বলে জানিয়েছে ডিএমপির মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেশন শাখার উপ-কমিশনার মাসুদুর রহমান।
 
এর আগে বগুড়া ও চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলায় সাগরের অবস্থান রয়েছে- এমন তথ্য থেকে কয়েকটি অভিযান পরিচালনা করে তাকে ধরতে ব্যর্থ হয় সংস্থাটি। পরে যশোরের পাগলাদহ মালোপাড়ার একটি বাড়িতে অভিযান চালিয়ে সাগরের স্ত্রী খাদিজা আক্তারকে গ্রেফতার করা হয়। 
 
কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের একজন কর্মকর্তা জানান, হলি আর্টিজানে জঙ্গি হামলার পরিকল্পনাকারীদের মধ্যে সাগর অন্যতম। সাগর চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে অস্ত্র ও গ্রেনেড ঢাকায় এনে বসুন্ধরার আবাসিক এলাকার ৬ নম্বর সড়কের ই-ব্লকের টেনামেন্ট-৩-এর ফ্ল্যাট এ/৬ নম্বর ফ্ল্যাটে পৌঁছে দেন।
 
২০১৬ সালে ১ জুলাই রাতে গুলশানের হলি আর্টিজান রেস্তোরাঁয় জঙ্গি হামলা চালিয়ে বিদেশিসহ ২০ জনকে হত্যা করে জঙ্গিরা এবং দুই পুলিশ সদস্য মারা যান। এ সময় পাঁচ জঙ্গি অভিযানে নিহত হন। এ ঘটনায় পুলিশ সন্ত্রাস বিরোধী আইনে গুলশান থানায় একটি মামলা দায়ের করে।
পাট রফতানির নামে ঋণ নিয়ে উধাও খুলনার বেশ কয়েকটি প্রতিষ্ঠান
                                  

সোনালী আঁশ-পাটকে ঘিরে দিনভরই সরব থাকে দৌলতপুরের ভৈরবের পাড়। এলাকার অন্তত শ তিনেক প্রতিষ্ঠান জড়িত কাঁচাপাট রফতানির সাথে। তাই, ছোটখাটো ব্যস্ততা লেগে থাকে প্রায় সবসময়। পাট রফতানির নামে ব্যাংক ঋণ নিয়ে উধাও খুলনার বেশ কয়েকটি পাটকল। নাম সর্বস্ব সাইনবোর্ডে কোনোটির অস্তিত্ব মিললেও হদিস নেই অনেক প্রতিষ্ঠানেরই। অনৈতিক সুবিধা নেওয়া এমন ১শর বেশি গ্রাহকের কাছে রাষ্ট্রীয় সোনালী ব্যাংকের পাওনা প্রায় ১৪’শ কোটি টাকা। যার অর্ধেকও আদায় নিয়ে শঙ্কা স্বয়ং প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপনা পরিচালকের।

ঋণ নেওয়ার পর তা শোধ না করেই ব্যবসা বন্ধ করে লাপাত্তা হয়েছে বেশ কয়েকটি প্রতিষ্ঠান। দৌলতপুরের মহসীন মোড়ে অবস্থিত ঐ রকমের একটি প্রতিষ্ঠান আলমগীর জুট ট্রেডাস। সেখানে তালা ঝুলছে গেল কয়েক বছর ধরে। আর ঋণ দেওয়ার ক্ষেত্রেও মানা হয়নি ব্যাংকের নিয়মনীতি। ফলে, ক্ষতি হওয়ার আশঙ্কা প্রায় ১৫ কোটি টাকা।

আরেক প্রতিষ্ঠান এমআর এন্টারপ্রাইজকে তিনবার পুনঃতফসিলের সুযোগ দেওয়ার পরও আদায় করা যায়নি ১৩ কোটি টাকা। তাই, বর্তমানে সাইনবোর্ডসর্বস্ব এই প্রতিষ্ঠানটির মালিক লাপাত্তা বেশ কয়েক বছর ধরেই। ব্যবসার নামে প্রায় ২১ কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছে আরেক প্রতিষ্ঠান মেসার্স আবুল কাশেম। যার বর্তমান হদিস জানেন না স্থানীয় অন্য ব্যবসায়ীরাও।

এছাড়া, সাড়ে সাত কোটি টাকা নিয়ে উধাও পরশ ট্রেডার্স, সাড়ে তিন কোটি টাকা নিয়ে সমসের এন্টারপ্রাইজসহ আরো কয়েকটি প্রতিষ্ঠান। যাদের বেশিরভাগই ঋণ নিয়েছে সোনালী ব্যাংকের খুলনা করপোরেট শাখা থেকে। কিন্তু এ ব্যাপারে সেখানে গিয়ে মেলেনি সুস্পষ্ট জবাব।

তবে, আরো ভয়াবহ তথ্য দিলেন প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক। তার হিসাবে, গেলো চার-পাঁচ বছরে পাট রফতানির বিপরীতে ঋণ নিয়ে খেলাপি হয়ে পড়েছে ১১৩ প্রতিষ্ঠান। যাতে টাকার অঙ্ক ১ হাজার ৪শ কোটির বেশি। আর এই টাকার অর্ধেকও শেষ পর্যন্ত আদায় হবে কি না, তা নিয়ে শঙ্কিত তিনি। কেবল পাট নয়, হিমায়িত মাছ রফতানির নামেও মোটা অঙ্কের ঋণ নিয়ে ব্যবসা বন্ধ করে বসে আছে একাধিক প্রতিষ্ঠান।

কেবল পাট নয়, হিমায়িত মাছ রফতানির নামেও মোটা অঙ্কের ঋণ নিয়ে ব্যবসা বন্ধ করে বসে আছে একাধিক প্রতিষ্ঠান।

বরিশালে সাংবাদিককে হত্যাচেষ্টায় আটজনের বিরুদ্ধে মামলা
                                  

পেশাগত দায়িত্ব পালনে বাঁধা ও হত্যাচেষ্টার অভিযোগে হামলার ঘটনায় নগরীর কোতোয়ালী মডেল থানায় সন্ত্রাসী রিপনসহ তার সহযোগী আটজনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

রবিবার রাতে থানায় মামলাটি দায়ের করেছেন হামলার শিকার সাংবাদিক জুয়েল সরকার।

জানা গেছে, মামলায় প্রধান অভিযুক্ত রিপন বল্লভ নগরীর কলেজ রোড এলাকার মৃত জিতেন বল্লভের পুত্র। অন্যান্যদের মধ্যে রয়েছে নবগ্রাম রোডের গোলপুকুরপাড় এলাকার লিও শান্তি হাওলাদার ও আলেকান্দার আমবাগান ক্লাব রোডের বাসিন্দা জেমস প্রদীপ গোমেজ। মামলা সূত্রে জানা গেছে, বেসরকারী টেলিভিশন ইনডিপেনডেন্ট-এর বরিশালের ক্যামেরাপার্সন জুয়েল সরকার সন্ত্রাসী রিপন বল্লভসহ তার সহযোগীদের বিভিন্ন অপরাধমূলক কর্মকান্ডের চিত্র ধারন করে প্রতিবেদন তৈরির কাজ করছিলেন। বিষয়টি জানতে পেরে রিপনসহ তার সহযোগীরা সাংবাদিক জুয়েলকে ভয়ভীতি প্রদর্শন করে। একই সাথে তার ধারন করা ভিডিও ফুটেজ ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টা করেন। ১৮ মার্চ রিপন ও তার সহযোগীরা দেশীয় অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে চারটি মোটরসাইকেলযোগে জুয়েল সরকারকে হত্যার উদ্দেশ্যে তার বাসায় হামলা চালিয়ে ভাংচুর করে। একপর্যায়ে হামলাকারীরা সাংবাদিকের ব্যবহৃত ভিডিও ক্যামেরার মেমোরিকার্ডসহ ল্যাপটপ ছিনিয়ে নিয়ে যায়।

বজ্রপাত থেকে আগুন, সিলেটে পাঁচজনের প্রাণহানি
                                  
সিলেটের গোলাপগঞ্জে বজ্রপাতে গ্যাসলাইনে আগুন লেগে মা-ছেলেসহ পাঁচজনের মৃত্যু হয়েছে। রবিবার ভোর রাতে উপজেলার লক্ষণাবন্দ ক্লাববাজার এলাকায় লয়লু মিয়ার কলোনিতে এ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।
 
নিহতরা হলেন- গোলাপগঞ্জের ফনাইরচক এলাকার মসকন্দ আলীর স্ত্রী শেবু বেগম (২৫), দক্ষিণ সুরমার মোগলাবাজার খালেরমুখ এলাকার ফজলু মিয়ার স্ত্রী তাসলিমা বেগম (৩০), তার ছেলে তাহমিন (২) এবং নেহাইচক গ্রামের সেবুল মিয়া (১৭) ও ইয়াহিয়া উদ্দিন (১৮)।
 
দমকল বাহিনী ও পুলিশ জানায়, ভোর রাতে বৃষ্টিপাতের সময় বজ্রপাত হলে কলোনি বাসার সামনের গ্যাস রাইজারে আগুন ধরে যায়। মুহূর্তের মধ্যেই কলোনিতে আগুন ছড়িয়ে পড়লে ঘুমন্ত অবস্থায় মা-ছেলেসহ পাঁচজনের মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় আহত হন আরো দুইজন।
 
সিলেটের গোলাপগঞ্জ থানার ওসি একেএম ফজলুল হক শিবলী বলেন, নিহতদের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।
গ্যাস সরবরাহ কার্যকর হলে বরিশাল হবে জাতীয় অর্থনীতির অন্যতম কেন্দ্র
                                  

 বরিশাল বিভাগীয় শহর হওয়া সত্ত্বেও গ্যাস সরবরাহ না থাকায় পর্যাপ্ত পরিমাণে শিল্প কলকারখানা গড়ে উঠতে পারছে না। তবে সম্প্রতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভোলার গ্যাস পাইপ লাইন দিয়ে বরিশালে গ্যাস সরবরাহ করার ঘোষণা দ্রুত কার্যকর হলে, বরিশাল হবে জাতীয় অর্থনীতির অন্যতম কেন্দ্র বলে মন্তব্য করেছেন অর্থনীতিবিদরা।

প্রতি বছর বরিশালের জনসংখ্যার বড় একটি অংশ জীবিকার তাগিদে বিভিন্ন জায়গায় চলে যায়। কেননা বরিশালে এখনও পর্যাপ্ত শিল্প-কলকারখানা গড়ে উঠছে না। ফলে কর্মসংস্থানও হচ্ছে না। এর পেছনে গ্যাস সরবরাহ না থাকাকে দায়ী করছেন স্থানীয় শিল্প উদ্যোক্তারা।

বরিশাল অমৃত ফুড এন্ড অয়েল প্রোডাক্ট লিমিটেডের পরিচালক রাহুল দে বলেন, আগামীতে পদ্মা সেতু হচ্ছে এবং পাশাপাশি পায়রা বন্দর, এজন্য এখন আমাদের গ্যাসটা খুবই দরকার। কারণ গ্যাস থাকলে আমাদের উৎপাদন ব্যয়টা অনেক কমে যেতো।

কিছুদিন আগে বরিশালের জনসভায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভোলার গ্যাস বরিশালে সরবরাহের ঘোষণা দেন। প্রধানমন্ত্রীর এমন ঘোষণায় নতুন করে আশায় বুক বেঁধেছে বরিশালবাসী।

বরিশাল চেম্বার অব কর্মাসের প্রেসিডেন্ট সাইদুর রহমান  রিন্টু বলেন, আমরা চাই এই ঘোষণাটা  শীঘ্রই বাস্তবায়ন হোক। আর আমরা যেন অতি শীঘ্রই শিল্পকলকারখানা গড়তে পারি।

অর্থনীতিবিদরা বলছেন, গ্যাস পেলে পদ্মাসেতু, পায়রা সমুদ্র বন্দর, কুয়াকাটা সি বিচ উন্নয়ন প্রকল্প ও পটুয়াখালীর তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের সুবিধা কাজে লাগিয়ে বরিশাল আগামীতে জাতীয় অর্থনীতির নেতৃত্ব দিতে সক্ষম হবে।

রিক্সার গ্যারেজে অস্ত্র কারখানা, সরঞ্জামসহ গ্রেপ্তার ২
                                  

নিজস্ব প্রতিবেদক:

চট্টগ্রামের কক্সবাজার জেলার পেকুয়ায় অস্ত্র তৈরীর কারখানার সন্ধান ও সেখানে অভিযান চালিয়েছে র‌্যাব। রিক্সার গ্যারেজের আদলে গড়ে উঠা ওই কারখানা থেকে বিপুল অস্ত্র, অস্ত্র তৈরীর সরঞ্জাম ও গুলিসহ দুইজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- পেকুয়ার নাপিতখালীর মো. আ. কাদের (৩৪) ও পশ্চিম টৈটংয়ের মো. সৈয়দ নুর (৩২)।

র‌্যাব-৭ কক্সবাজার ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার মেজর রুহুল আমিন সোমবার দিবাগত রাত ৯টায় এক প্রেস ব্রিফিংয়ে জানান, একটি চক্র অস্ত্র তৈরি করে বিক্রি করার গোপন সংবাদ ছিল। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাবের একটি টিম পেকুয়ার কাদেরের রিক্সার গ্যারেজে অভিযান চালায়। অভিযানে রিক্সার গ্যারেজের ভেতরে অস্ত্রের কারখানার সন্ধান পাওয়া যায়। কারখানা থেকে ১১টি অস্ত্র, অস্ত্র তৈরির সরঞ্জাম ও ২২টি গুলি উদ্ধার করা হয়। এসময় দুইজন অস্ত্র তৈরির কারিগরকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃতদের বিরুদ্ধে অস্ত্র আইনে মামলা দায়ের করে পেকুয়া থানার সোপর্দ করা হবে।

গাজীপুরে আগুনে ধসে পড়লো সুতার মিল
                                  

নিজস্ব প্রতিবেদক

গাজীপুরে কোনাবাড়ি এলাকায় একটি সুতার কারখানায় আগুন লাগার ঘটনা ঘটেছে। আগুনে ওই কারখানার টিনশেড ভবনটি ধসে পড়েছে। আগুনে বিপুল সুতা, তুলা ও মেশিনারিজ পুড়ে গেলেও কোনো হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি।

গাজীপুর ফায়ার সার্ভিসের উপসহকারী পরিচালক আক্তারুজ্জামান লিটন জানান, রাত দুইটার দিকে কাদের সিনথেটিক ফাইবার্স কারখানার কমপ্যাক্ট স্পিনিং সেকশনের দ্বিতীয় তলা ভবনের নিচতলায় আগুন লাগে। মুহূর্তের মধ্যে আগুন চারদিকে ছড়িয়ে পড়ে।  

খবর পেয়ে জয়দেবপুর, টঙ্গী, কালিয়াকৈর, উত্তরা ও বিসিক শিল্প এলাকার ফায়ার সার্ভিসের ৯টি ইউনিটের কর্মীরা ঘটনাস্থলে যায়। প্রায় ছয় ঘণ্টা চেষ্টা চালানোর পর সোমবার সকাল আটটার দিকে আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। আগুনে ওই কারখানর টিনশেড ভবনটি ধসে পড়েছে। তবে তাৎক্ষণিকভাবে আগুন লাগার কারণ ও ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ জানা যায়নি বলে জানান ফায়ার সার্ভিসের ওই কর্মকর্তা।

বিএনপি কখনো ক্ষমতায় আসতে পারবে না : নিশ্চিত করে দিলেন শামীম ওসমান
                                  

নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের এমপি শামীম ওসমান বলেছেন, বিএনপি কখনো ক্ষমতায় আসতে পারবে না। এটা ১০০% নিশ্চিত করে বলে দিলাম।

সোমবার বিকেলে ফতুল্লার সাহারা সিটি কমিউনিটি সেন্টারে ফতুল্লা থানা আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ-সংগঠনের উদ্যোগে যৌথ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।

এই সময় তিনি বলেন, সামনে অনেক খেলা হবে, কঠিন খেলা হবে। বহু খেলোয়াড় মাঠে নেমেছে। যেকোনো সময় তারা ছোবল দিতে পারে। তাই সবাইকে সজাগ থাকতে হবে। আমি এমপি না হলেও দেশের কিছু হবে না। কিন্তু শেখ হাসিনা ক্ষমতায় না থাকলে দেশ আফগানিস্তান হয়ে যাবে।

 

শামীম ওসমান বলেন, আওয়ামী লীগ শক্তি ও গায়ের জোরে ক্ষমতায় আসতে চায় না। জনগণের ভোটে ক্ষমতায় আসতে চায় আওয়ামী লীগ। সামনে অনেক খেলা হবে। সবাই দেখতে পারবেন। স্পষ্ট ভাষায় বলতে চাই, শেখ হাসিনা আবার ক্ষমতায় আসবে।

 

শামীম ওসমান আরও বলেন, মানুষ উন্নয়ন ও কাজে ভোট দেয় না। ব্যবহার ও ভালোবাসায় মানুষ ভোট দেয়। তাই জনগণের কাছ থেকে ভোট আদায় করতে হলে ভালোবাসা দিয়ে ভোট আদায় করতে হবে। মাস্তান ও লাঠিওয়ালা লোক আমার দরকার নাই। আমার সঠিক কর্মী দরকার। সাবেক এমপি কবরীর আমলের কর্মী আমার দরকার নাই।

 

তিনি বলেন, কবরী সেন্টুকে আওয়ামী লীগের লোকেরা নেতা মানতো। এখন কোথায় সেই কবরী আর কোথায় সেই সেন্টু। তারা এসেছে হাঁসের মতো। খাবার খেয়ে আবার চলে গেছে।

বিএনপি কার্যালয়ে রয়েছেন মির্জা ফখরুলসহ শীর্ষ নেতারা
                                  

বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সকাল এগারোটার দিকে প্রবেশ করেছেন দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য ড.খন্দকার মোশাররফ হোসেন, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী।

এছাড়া আগে থেকেই সেখানে রয়েছেন সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রহুল কবির রিজভী। যুগ্ম মহাসচিব সাবেক ছাত্রনেতা খায়রুল কবির খোকন, ফজলুল হক মিলন, শহীদউদ্দিন চৌধুরী এ্যানি পার্টি অফিসে প্রবেশ করেছেন।

এদিকে নয়াপল্টন কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনের সড়কগুলোর একই অবস্থা। পুলিশের কড়া নজরদারি রয়েছে। কাউকে কার্যালয়ে প্রবেশ করতে দেওয়া হচ্ছে না। কার্যালয়ের ভিতরে রয়েছেন দলের সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। রাতে সেখানে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়।

গাজীপুরে পোশাক কারখানায় আগুন
                                  

 জেলা প্রতিনিধি

গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের কোনাবাড়ি এলাকায় গ্রীনল্যান্ড লিমিটেড নামের একটি পোশাক কারখানায় বুধবার দুপুরে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ করছে ফায়ার সার্ভিসের ছয়টি ইউনিটের কর্মীরা।

গাজীপুর ফায়ার সার্ভিসের উপ-সহকারী পরিচালক মো. আক্তারুজ্জামান জানান, বুধবার দুপুর দেড়টার দিকে ওই কারখানায় অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত হয়। খবর পেয়ে গাজীপুরের জয়দেবপুর, কাশিমপুরের ডিবিএল ও কালিয়াকৈর ফায়ার সার্ভিসের ছয়টি ইউনিয়ট আগুন নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করছে।

চট্টগ্রামে জামায়াতের ২২ নেতাকর্মী আটক
                                  

চট্টগ্রামের রিয়াজউদ্দিন বাজারে গোপন বৈঠক করার সময় জামায়াত-শিবিরের ২২ নেতাকর্মীকে আটক করেছে পুলিশ।

সোমবার দিবাগত রাতে রিয়াজউদ্দিন বাজারের পাখিগলিতে অভিযান চালিয়ে একটি ভবন থেকে তাদের আটক করা হয়েছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে কোতোয়ালি থানার ওসি জসীম উদ্দিন বলেন, রাতে জামায়াত-শিবিরের কর্মীরা নাশকতার পরিকল্পনায় গোপন বৈঠকে বসেছিল। এ সংবাদ পেয়ে তাদের আটক করা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, সবার পদবি যাচাইয়ের পাশাপাশি আগের কোনও মামলা আছে কিনা তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রক্রিয়া চলছে।

সিলেটে বাস-ট্রাক সংঘর্ষে নিহত ৪
                                  
সিলেটের দক্ষিণ সুরমায় বাস-ট্রাক সংঘর্ষে চারজন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন কমপক্ষে ১০ জন। সোমবার সকাল সাড়ে সাতটার দিকে উপজেলার রশিদপুর সাতমাইলে এ দুর্ঘটনা ঘটে।
 
দক্ষিণ সুরমা থানার ওসি খায়রুল ফজল এ খবর নিশ্চিত করেছেন। নিহতরা হলেন— সুনামগঞ্জের আবু বক্কর (৫০), আকবর আলী (৫০) ও আব্দুল জফুর (৪৫)।
 
জানা গেছে, গাজীপুরের টঙ্গীর বিশ্ব ইজতেমা থেকে একটি বাসে সুনামগঞ্জে ফেরত যাচ্ছিলেন ৩০ মুসল্লি। সকালে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের সাতমাইলে পৌঁছালে বিপরীত দিক থেকে আসা ট্রাকের সঙ্গে বাসের সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলেই ওই চারজনের মৃত্যু হয়।
 
পরে পুলিশ স্থানীয়দের সহায়তায় আহতদের ওসমানী মেডিকেলে নিয়ে যায় বলে জানান তিনি।
ডিএনসিসি উপ-নির্বাচন: মনোনয়ন প্রত্যাশীদের ফরম সংগ্রহের আহ্বান আওয়ামী লীগের
                                  
ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন উপ-নির্বাচনে মেয়র পদে মনোনয়ন প্রত্যাশীদের দলীয় মনোনয়নের আবেদনপত্র সংগ্রহ করার জন্য আগ্রহী প্রার্থীদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে আওয়ামী লীগ।
 
আজ বুধবার আওয়ামী লীগের এক সংবাদ এ কথা জানানো হয়।
 
বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, আগামী ১৩, ১৪ ও ১৫ জানুয়ারি বেলা ১১টা থেকে বিকাল পাঁচটা পর্যন্ত রাজধানীর ধানমন্ডিস্থ আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা রাজনৈতিক কার্যালয় থেকে দলীয় মনোনয়নের আবেদনপত্র সংগ্রহ করতে হবে এবং আগামী ১৫ জানুয়ারি সন্ধ্যা সাতটার মধ্যে মনোনয়নের আবেদনপত্র জমা দিতে হবে।
 
এতে আরো জানানো হয়, নির্ধারিত সময়ের মধ্যে ফি বাবদ নগদ ২৫ হাজার টাকা জমা দিয়ে মনোনয়নের আবেদনপত্র সংগ্রহ ও জমা দিতে হবে। খবর বাসসের।

   Page 1 of 10
     নগর-মহানগর
চট্টগ্রামে জমি দখলে মরিয়া
.............................................................................................
রথীশ চন্দ্র হত্যার নেপথ্যে স্ত্রী ও তার প্রেমিক
.............................................................................................
মিরপুরে বেতনের দাবিতে পোশাক শ্রমিকদের সড়ক অবরোধ
.............................................................................................
হলি অার্টিজান : অস্ত্র সরবরাহকারী জঙ্গি সাগর ও নিলয় গ্রেফতার
.............................................................................................
পাট রফতানির নামে ঋণ নিয়ে উধাও খুলনার বেশ কয়েকটি প্রতিষ্ঠান
.............................................................................................
বরিশালে সাংবাদিককে হত্যাচেষ্টায় আটজনের বিরুদ্ধে মামলা
.............................................................................................
বজ্রপাত থেকে আগুন, সিলেটে পাঁচজনের প্রাণহানি
.............................................................................................
গ্যাস সরবরাহ কার্যকর হলে বরিশাল হবে জাতীয় অর্থনীতির অন্যতম কেন্দ্র
.............................................................................................
রিক্সার গ্যারেজে অস্ত্র কারখানা, সরঞ্জামসহ গ্রেপ্তার ২
.............................................................................................
গাজীপুরে আগুনে ধসে পড়লো সুতার মিল
.............................................................................................
বিএনপি কখনো ক্ষমতায় আসতে পারবে না : নিশ্চিত করে দিলেন শামীম ওসমান
.............................................................................................
বিএনপি কার্যালয়ে রয়েছেন মির্জা ফখরুলসহ শীর্ষ নেতারা
.............................................................................................
গাজীপুরে পোশাক কারখানায় আগুন
.............................................................................................
চট্টগ্রামে জামায়াতের ২২ নেতাকর্মী আটক
.............................................................................................
সিলেটে বাস-ট্রাক সংঘর্ষে নিহত ৪
.............................................................................................
ডিএনসিসি উপ-নির্বাচন: মনোনয়ন প্রত্যাশীদের ফরম সংগ্রহের আহ্বান আওয়ামী লীগের
.............................................................................................
হাতিরঝিলে গুলশানগামী সড়ক বন্ধ থাকায় ভোগান্তি তেজগাঁও লিংক সড়ক খানাখন্দে ভরা ঘণ্টার পর ঘণ্টা লেগে থাকে যানজট
.............................................................................................
সাপাহার প্রেস ক্লাবে জাহাঙ্গীর সভাপতি গোলাপ খন্দকার সম্পাদক নির্বাচিত
.............................................................................................
ইসির নির্বাচনী বাজেট ১২০০ কোটি টাকা!
.............................................................................................
চট্টগ্রামের কারখানায় তৈরি হতো বিষাক্ত ইয়াবা
.............................................................................................
রংপুরে চলছে ভোটগ্রহণ
.............................................................................................
রাজশাহীতে বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষ, নিহত ২
.............................................................................................
না.গঞ্জে ব্যাংকে আগুন, নিরাপত্তাকর্মী নিহত
.............................................................................................
বঙ্গোপসাগরে নিম্নচাপ : ৩ নম্বর সতর্ক সংকেত
.............................................................................................
চট্টগ্রামে অনির্দিষ্টকালের পরিবহন ধর্মঘট চলছে
.............................................................................................
রূপপুরে ভিত্তি পেল পারমাণবিক চুল্লি
.............................................................................................
কবুতর নিয়ে ঝগড়ায় কলেজছাত্র খুন
.............................................................................................
রংপুরে হাতে পায়ে পেরেক ঢুকিয়ে যুবককে নির্যাতন
.............................................................................................
গোদাগাড়িতে ১৪৪ ধারা
.............................................................................................
রংপুর ও রাজশাহীতে শীত বাড়ছে
.............................................................................................
সাভার-মানিকগঞ্জে পানির খনিতে ৪০ বছরের সুপেয় পানি মজুদ আছে
.............................................................................................
রাজশাহী-চট্টগ্রামে আরো ২টি চামড়া শিল্পনগরী: প্রধানমন্ত্রী
.............................................................................................
শ্যামলী পরিবহনের বাস থেকে ইয়াবা উদ্ধার, আটক ২
.............................................................................................
রংপুর ঘটনায় পুলিশের মামলা, আটক ৩৬
.............................................................................................
চট্টগ্রামে শিশুর শ্লীলতাহানির দায়ে আসামির ৪০ বছরের কারাদণ্ড
.............................................................................................
শীতের জন্য অর্ধশতাধিক মডেলের হোম অ্যাপ্লায়েন্সেস নিয়ে এসেছে ওয়ালটন
.............................................................................................
খুলনায় বিএনপির দুই উপজেলা সভাপতিসহ আটক ১০
.............................................................................................
কৃষি বিপ্লব ঘটিয়ে রেকর্ড সৃষ্টি করেছে কৃষকরা : সংস্কৃতিমন্ত্রী
.............................................................................................
স্কুলছাত্রীকে পুড়িয়ে হত্যা: প্রধান আসামি চাচি গ্রেপ্তার
.............................................................................................
ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে আজও যানজট
.............................................................................................
রাজধানীর ৫৮ খাল দখলমুক্ত করার নির্দেশ
.............................................................................................
অসহনীয় বিদ্যুৎ বিভ্রাটে অতিষ্ঠ রাজশাহীবাসী
.............................................................................................
স্ত্রীর হাত-পা বেঁধে অকটেন ঢেলে পুড়িয়ে মারার অভিযোগ
.............................................................................................
খুলনায় আত্মহত্যা প্ররোচনা মামলায় আসামি ৩ দিনের রিমান্ডে
.............................................................................................
ঢাকনা ছাড়া বর্জ্য পরিবহন বন্ধের নির্দেশ
.............................................................................................
ইউনিলিভারের হাত ধোয়ার অনুষ্ঠানে অসুস্থ ৫০ শিক্ষার্থী
.............................................................................................
ভাগ্যবান’ হবু পুলিশ সার্জেন্ট
.............................................................................................
রাজশাহীতে রাসায়নিক পদার্থ খেয়ে ২ জনের মৃত্যু
.............................................................................................
সিলেটে প্রবীণ নিবাস ও হাসপাতাল নির্মাণ করবে সরকার
.............................................................................................
চট্টগ্রামে ভারতীয় ত্রাণের জাহাজ
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
সম্পাদক : জাকির এইচ. তালুকদার ,
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : এস এইচ শিবলী ,
    [সম্পাদক মন্ডলী ]
সম্পাদক কর্তৃক ২ আরকে মিশন রোড থেকে প্রকাশিত।
ফোন: ০১৫৫৮০১১২৭৫, ই-মেইল:dailybortomandin@gmail.com
   All Right Reserved By www.dtvbangla.com Developed By: Dynamicsolution IT [01686797756]