| বাংলার জন্য ক্লিক করুন
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
   * ব্রেইন স্ট্রোকে জবি শিক্ষার্থীর মৃত্যু   * জীবপ্রযুক্তিবিদ সম্মেলনে ১ম পুরস্কারে ভূুষিত হলেন চৌদ্দগ্রামের ড. মো. আমিরুল ইসলাম   * ঠিকাদার শামীম জেলে ॥ থমকে রয়েছে শতশত কোটি টাকার উন্নয়ন কর্ম   * সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার পরামর্শ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার   * মিশরে মসজিদ, গির্জা বন্ধ   * ভারতে জনতা কারফিউ শুরু   * পার্বতীপুরে টিসিবির পণ্য বিক্রি শুরু   * ঢাকা থেকে ৪২ মিনিটে পৌছানো যাবে ভাঙ্গায়   * বাঙালির জাতীয় জীবনে গৌরবময় ও ঐতিহ্যপূর্ণ দিন ২১ ফেব্রুয়ারি   * খোলা আকাশের নিচে রফিক মুন্সীর পরিবার  

   কৃষি সংবাদ
  গরু মোটাতাজাকরণ ও কোরবানির বাজার
  27, August, 2017, 5:56:37:PM

স্বাধীনতার পর থেকে মানুষ স্বাবলম্বী হওয়ার নানা উপায় বা পথ খুঁজেছে এবং সে অনুযায়ী সফল হয়েছে। ঘুরে দাঁড়িয়েছে বাংলার মানুষ যার পেছনে আজ পর্যন্ত গ্রামীণ মানুষের অবদান সবচেয়ে বেশি।

কৃষি বাংলাদেশের অর্থনীতির মেরুদণ্ড। আর কৃষি খাতের অবদানে বাংলাদেশ আজ বিশ্ব মানচিত্রে একটি শক্তিশালী অবস্থানে দাঁড়িয়েছে। খাদ্য নিরাপত্তায় বাংলাদেশের সাফল্য অন্য যে কোনো দেশের জন্য ঈর্ষণীয়। দেশ স্বাধীন হওয়ার পর ধান, পাট চাষের পাশাপাশি রকমারি ফল-ফসল, হাঁস-মুরগি লালন-পালন করে আর মাছ চাষ করে ঘুরে দাঁড়িয়েছে মানুষ। নতুন প্রজন্ম, তরুণ কৃষক ছড়িয়ে পড়েছে গোটা দেশে। সেখান থেকেই বহু কৃষক আজ লাখপতি, কোটিপতি। আধুনিক হাইটেক কৃষির বাতাসও এখন বাংলাদেশের গায়ে লেগেছে। যার দ্রুত এবং কার্যকর ফলও আমরা পাব। বলছি মধ্য আশির দশকের কথা। সে সময় গ্রামের সাধারণ কৃষক গরুকে সারা বছর প্রাকৃতিক খাবার খাইয়ে বড় করে তোলার চেষ্টা করত। এসব গরু ছিল তাদের সর্বস্ব; যা তারা বড় করত কোরবানির বাজার মাথায় রেখে। তবে ক্রমেই মাংসের চাহিদা বেড়ে যাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে কৃত্রিমভাবে গরু মোটাতাজাকরণের বিষয়টি আসে। সে সময় এসব বিষয় আমি তুলে ধরি বাংলাদেশ টেলিভিশনের ‘হৃদয়ে মাটি ও মানুষ’ অনুষ্ঠানে। বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণিসম্পদ বিভাগের প্রধান ড. সাদউল্লাহ তখন বন্যার সময় গরুর খাদ্যের কথা বলেন, ইউরিয়া মোলাসেস ব্লক; যা আকারে একটি ইটের মতো এবং গরু চেটে খেতে পারত আপদকালে। এরও চার-পাঁচ বছর পর আসে ইউরিয়া মোলাসেস স্ট্র। চিটাগুড়, পানি আর সামান্য ইউরিয়া খড়ের সঙ্গে মিশিয়ে গরুকে খাওয়ালে দ্রুতই মোটাতাজা হয়। এ প্রসঙ্গে একটি মজার ঘটনা বলছি। গরু মোটাতাজাকরণের এই নানা দিক যখন প্রচার করছিলাম মাটি ও মানুষ অনুষ্ঠানে, তখন একটি চিঠি আসে আমার কাছে। লিখেছিল একটি কম বয়সী ছেলে। চিঠিতে সে আক্ষেপের সঙ্গে লেখে, ‘স্যার আমি অনেক হ্যাংলা-পাতলা। আমি ইউরিয়া খেলে কি স্বাস্থ্যের কোনো উন্নতি হবে?’ চিঠি পেয়ে আমি কোনো উত্তর না দিয়ে সরাসরি ঢাকার মিরপুরে তার ঠিকানায় পৌঁছে যাই এবং তার অভিভাবককে জানাই তাদের সন্তানের প্রতি খেয়াল রাখতে যেন ভুলেও এ রকম কোনো কিছু সে না করে বসে। গল্পটি টানলাম শুধু আপনাদের জানাতে বাংলাদেশে গরু মোটাতাজাকরণের ইতিহাসের পেছনে কতই না ঘটনা আর গল্প ছিল।

প্রাণিসম্পদ অধিদফতরের হিসাবে সারা দেশে এবার গড়ে উঠেছে প্রায় সাড়ে ৫ লাখ খামার। সব মিলিয়ে এসব খামারে কোরবানির উপযোগী গরু রয়েছে ৪০ লাখ। আশার কথা হচ্ছে, ভোক্তা ও ক্রেতার মধ্যে গরুর মান সম্পর্কে ইতিবাচক সচেতনতা তৈরি হয়েছে। স্টেরয়েড বা ক্ষতিকর রাসায়নিক খাইয়ে গরু মোটাতাজাকরণের কুফল সম্পর্কে ইতিমধ্যে ধারণা পেয়ে গেছেন খামারি, ভোক্তা, ব্যবসায়ী সবাই। শুধু টাকার লোভে অসাধু পন্থা অবলম্বন করতে গিয়ে গত কয়েক বছরে বহু খামারি ও ব্যবসায়ী সর্বস্বান্ত হয়েছেন। কারণ, স্টেরয়েড খাওয়ানো গরুর স্বভাব দেখে অনেক ক্রেতা এখন চিনতে পারেন। ওই গরুর মধ্যে চাঞ্চল্য কম। কোনো গরুর মুখ দিয়ে অবিরাম লালা বের হতে থাকে। এ রকম অনেক বৈশিষ্ট্য বুঝে যাওয়ার কারণেই খামারিরা সতর্ক হয়ে উঠেছেন। গত তিন বছর দেখা গেছে, কোরবানির সময় রাসায়নিক প্রয়োগের সন্দেহে যেসব গরু বিক্রি হয়নি, সেগুলোর মধ্যে অনেক গরুই কিছু দিন পর মারা যায়। কারণ, রাসায়নিক প্রয়োগের কারণে গরুর শরীরে যে বাড়তি পানি জমে, তা একটি নির্দিষ্ট সময় পরে বিষক্রিয়া করে; যা গরুর বেঁচে থাকার জন্য ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়ে। বিষয়গুলো এখন সচেতন খামারিদের কাছে পরিষ্কার। যারা বেশি বিনিয়োগ করে খামার গড়ছেন তাদের কাছে বিষয়টি বেশি চ্যালেঞ্জিং। তারা যথাসাধ্য চেষ্টা করছেন বিশুদ্ধ খাদ্য দিয়ে গরু মোটাতাজাকরণ করতে। প্রিয় পাঠক! কোরবানি সামনে রেখে প্রতি বছরই গরুর খামারের সংখ্যা বাড়ছে। এর সুফল হিসেবে ঠিক কোরবানির এই মৌসুমে গরু বা ছাগলের যা চাহিদা তা আমাদের দেশে বড় করা গরু-ছাগল দিয়েই পূরণ করা সম্ভব বলে দাবি করছে প্রাণিসম্পদ অধিদফতর।

গাজীপুরের কোনাবাড়ীর সুবেদ আলী অ্যাগ্রো ফার্মে লালন-পালন করা হয়েছে ২০০ গরু। আছে ২০টি গাভী। এমনকি মহিষও রয়েছে। ১০ মাস আগে গরুগুলো যখন তিনি কিনেছিলেন তখন সেগুলো ছিল ছোট ও লিকলিকে চিকন, হাড় জিরজিরে। সম্পূর্ণ দেশীয় খাদ্য দেওয়া হচ্ছে গরুগুলোকে। খাদ্য প্রয়োগের নিয়ম, হজমের সুবিধা-অসুবিধাসহ সব দিক খেয়াল রাখার কারণে গরুগুলো অত্যন্ত সুস্থ এবং দর্শনদারি। এই খামারের উদ্যোক্তা হাজী মনছুর আলী পেশায় ব্যবসায়ী। রয়েছে গার্মেন্ট, কেমিক্যালের ব্যবসা। প্রতি ঈদুল আজহায় নিজেদের ও আত্মীয়স্বজনের কোরবানির জন্য প্রয়োজন পড়ে ২০-২৫টি গরুর। হাট থেকে ভালো গরু বাছাই করা কঠিন দেখে উদ্যোগ নিয়েছিলেন নিজেই গরু মোটাতাজা করবেন জৈবিক উপায়ে। এ ছাড়া সুস্থ ও সুন্দর কোরবানির গরু ক্রেতাদের হাতে তুলে দেওয়াও তার আরেকটি লক্ষ্য। সঙ্গে ছিল চ্যানেল আইয়ের ‘হৃদয়ে মাটি ও মানুষ’ অনুষ্ঠানের প্রেরণা। এসবের যোগফলই আজ তিনি একজন গরুর খামারি।

২ একর জায়গাজুড়ে মনছুর আলীর বিশালাকার গরুর খামার গড়ে উঠেছে। ভিতরের কার্যক্রম চলছে কয়েক স্তরে। একদিকের শেডে বড় বড় আকারের গরু, আরেকদিকে বেশ কয়েকটি গাভী। আরেকটি শেডে চলছে এসব গরুর প্রতিদিনের খাবারের আয়োজন। এর বাইরের অংশে সবুজ ঘাস উৎপাদন করা হচ্ছে। সবকিছু মিলিয়ে একটি পরিকল্পিত গরুর খামার। প্রায় বছরখানেক আগে কেনা গরু এখন একেকটি তরতাজা ষাঁড়ে পরিণত হয়েছে। প্রতিটি গরুর প্রতিই রয়েছে হাজী মনছুর আলীর যত্ন। তিনি বলেন, শুধু সুষম খাবার প্রদানই নয়, প্রতি সপ্তায় দুবার শ্যাম্পু দিয়ে গোসল করান গরুগুলোকে। এর প্রমাণও মেলে গরুগুলো দেখে। গরুগুলো দেখতেও বেশ উজ্জ্বল। ২ কোটি টাকার গরু কিনেছেন মনছুর আলী। প্রথম বছরে প্রত্যাশা কম। আশা করছেন সব বাদ দিয়ে হলেও কমপক্ষে ৪০ লাখ টাকা মুনাফা ঘরে তুলতে পারবেন। এ তো গেল টাকার হিসাবে মুনাফার কথা। কিন্তু তিনি জানালেন, টাকার চেয়েও বেশি মুনাফা হলো মনের আনন্দ। এ কাজের সঙ্গে যুক্ত থেকে মিলছে তার মানসিক প্রশান্তি। প্রতিটি গরুর প্রতি তার মমতা আর বন্ধন যেন অন্যরকম এক শ

       
   শেয়ার করুন
Share Button
   আপনার মতামত দিন
     কৃষি সংবাদ
স্বল্প সময়ে ধান উৎপাদনের পদ্ধতি আবিষ্কার
.............................................................................................
পাশের বাসায় অভাবী লোক রেখে আপনিও নিরাপদ থাকতে পারবেন না: কৃষি সচিব
.............................................................................................
রাজধানীতে ছড়িয়ে পড়েছে আফ্রিকার জায়ান্ট মিলিবাগ
.............................................................................................
চলনবিলে পানির স্তর নিচে নেমে যাওয়ায় কৃষকরা বিপাকে
.............................................................................................
রংপুরের আলুচাষীরা লোকসানের মুখে
.............................................................................................
অসময়ে পাথরঘাটার বাজারে ইলিশের ছড়াছড়ি!
.............................................................................................
জাতীয় পাট দিবস কৃষক জানেন না সোনালী আঁশ পাট হবিগঞ্জ থেকে হারিয়ে যাচ্ছে
.............................................................................................
খোকসায় মৎস চাষিদের চিংড়ি মাছ চাষের প্রশিক্ষণ প্রদান হুমায়ুন কবির:
.............................................................................................
চলনবিলে সরিষার বাম্পার ফলন
.............................................................................................
জীবনানন্দ ও ধানসিঁড়ি
.............................................................................................
নাটোরে আবাদি জমি ও ফলনের লক্ষ্যমাত্রা অতিক্রমের সম্ভাবনা
.............................................................................................
চলতি মাসে তিন দিবসকে কেন্দ্র করে ফুলচাষিদের প্রস্তুতি
.............................................................................................
হিমায়িত মাছ রপ্তানি খাতে দেওয়া হবে নগদ সহায়তা
.............................................................................................
বাড়ছে চাহিদা, কমছে ছোলার আবাদ
.............................................................................................
শাকসবজির দামের পাশাপাশি উৎপাদনও বেড়েছে
.............................................................................................
বৃষ্টিতে ক্ষতিগ্রস্ত আলুবীজ : হতাশ চাঁদপুরের কৃষকরা
.............................................................................................
ইরানে অনলাইনে মাছ বিক্রি
.............................................................................................
কৃষিমন্ত্রীর স্মৃতিময় কাউফলের সম্ভাবনা নেই বাংলাদেশে!
.............................................................................................
আলু নিয়ে হল্যান্ড-ইরান যৌথ সেমিনার
.............................................................................................
গাছের সাথে এ কেমন নিষ্ঠুরতা!
.............................................................................................
পেঁয়াজ এর দাম বেড়েছে কেজিতে ২০ থেকে ২৫ টাকা
.............................................................................................
এলজিআরডি মন্ত্রীর সঙ্গে ফরিদপুর কৃষক লীগের সাক্ষাৎ
.............................................................................................
ভোলাহাটে রেশমের বাম্পার ফলনে চাষীদের মুখে হাসি
.............................................................................................
কমে গেছে খাদ্য উৎপাদন
.............................................................................................
৪ লাখ টন ভুট্টা ও বার্লি কিনবে ইরান
.............................................................................................
দিনাজপুরে বন্যার ক্ষতি না কাটতেই নতুন আঘাত, আমন ক্ষেতে পোকার আক্রমণ
.............................................................................................
গাইবান্ধায় বিনা-১৭ আমন ধানের বাম্পার ফলন
.............................................................................................
দেশে বাড়ছে ড্রাগন ফলের উৎপাদন
.............................................................................................
৩ টি কাঁকড়া হ্যাচারি নির্মাণ করছে সরকার
.............................................................................................
বরিশালে বিনা মূল্যে ছাগল বিতরণ
.............................................................................................
ভালো নেই দশমিনার কৃষকরা
.............................................................................................
আর কটা দিন সবুর কর রসুন বুনেছি : কৃষিমন্ত্রী
.............................................................................................
হিলি স্থল বন্দরের পেঁয়াজের দাম বেড়েছে কেজিতে ১২ থেকে ১৪ টাকা
.............................................................................................
রাখাইনে রোহিঙ্গাদের ধান কেটে নিচ্ছে মিয়ানমার
.............................................................................................
১’শ কৃষকের একটাই আধার নম্বর, বিপাকে মহারাষ্ট্র সরকার
.............................................................................................
কৃষিতে খেলাপি ঋণ বেড়েছে ৫৮৩ কোটি টাকা
.............................................................................................
কীটনাশক ক্রয়-বিক্রয়ে লাগবে কৃষি কর্মকর্তার প্রেসক্রিপশন
.............................................................................................
বিশ্ব খাদ্য দিবস আজ
.............................................................................................
মনোহরগঞ্জে তালের বীজ রোপণ কর্মসূচি পালন
.............................................................................................
কাঁচামরিচের কেজি ২শ’
.............................................................................................
পার্বতীপুরে আগাম আমন ধান কাটার উৎসব
.............................................................................................
নড়াইলে ২ ঘণ্টায় ৬ লক্ষাধিক বৃক্ষ রোপণ
.............................................................................................
সবজি চাষে ব্যস্ত মাধবপুরের কৃষকরা
.............................................................................................
খোলাবাজারে চালের দাম দ্বিগুণ করলো সরকার
.............................................................................................
ফল চাষে অভূতপূর্ব সাফল্য
.............................................................................................
ঠাকুরগাঁওয়ে কৃষি জমিতে নতুন নতুন ইটভাটা, প্রশাসন নিরব
.............................................................................................
৫ লক্ষাধিক কৃষককে ৫৮ কোটি টাকার প্রণোদনা
.............................................................................................
রামবুটান চাষ করে ভাগ্য ফিরলো জামালের
.............................................................................................
জেলা প্রশাসক নিজেই খেতে নামলেন
.............................................................................................
গরু মোটাতাজাকরণ ও কোরবানির বাজার
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
চেয়ারম্যানঃ মনিরুজ্জামান অপূর্ব, সম্পাদকঃ জাকির এইচ. তালুকদার।
হেড অফিসঃ ২ আরকে মিশন রোড ঢাকা ১২০৩। সম্পাদকীয় কার্যালয়ঃ ১৯ নিউ ইস্কাটন রোড ঢাকা ১০০০; ফোনঃ ০১৭১৩৫৯২৬৯৬, ০১৬৭৫৯৬৬৬১৩,
ই-মেইলঃ dtvbanglahr@gmail.com
   All Right Reserved By www.dtvbangla.com Developed By: Dynamic Solution IT & Dynamic Scale BD