বাংলার জন্য ক্লিক করুন
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
   * থানচিতে সড়ক নির্মাণে ব্যবহৃত ট্রাকে সন্ত্রাসীদের গুলি   * ঢাকায় পথচারীদের মাঝে বিএনপির পানীয় বিতরণ   * রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশের পাশে আছে ভারত: ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী   * টেন্ডুলকারের ৫১তম জন্মদিন আজ   * এবার মার্কিন সিনেটে ইউক্রেন-ইসরায়েলের জন্য সহায়তা বিল পাস   * কাপ্তাই লেকে পানি কমে নৌ চলাচল ব্যাহত   * বাংলাদেশ-কাতারের বাণিজ্য জোরদারে জয়েন্ট বিজনেস কাউন্সিল গঠন   * ভোটার আকৃষ্ট করতে প্রচারপত্র বিলাবে আওয়ামী লীগ   * ৬ দিনের সফরে আজ ব্যাংকক যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী   * নয়াপল্টনে রিজভীর নেতৃত্বে বিক্ষোভ মিছিল  

   রাজনীতি -
                                                                                                                                                                                                                                                                                                                                 
ঢাকায় পথচারীদের মাঝে বিএনপির পানীয় বিতরণ

ডিটিভি অনলাইন ডেস্ক:

তাপপ্রবাহ থেকে জনসাধারণকে স্বস্তি দিতে সাধারণ মানুষের মাঝে বোতলজাত পানি, খাবার স্যালাইন ও শরবত বিতরণ করেছে বিএনপি।

বুধবার (২৪ এপ্রিল) দুপুরে রাজধানী ঢাকার কচুক্ষেত বাজার স্বাধীনতা চত্বর ও উত্তরার হাজী ক্যাম্প আশকোনা এলাকায় পথচারী, দিনমজুর, রিকশাচালক, খেটে খাওয়া মানুষ, বাসচালক থেকে শুরু করে সব শ্রমজীবী সাধারণ মানুষের মাঝে বোতলজাত পানি, খাবার স্যালাইন ও শরবত বিতরণ করা হয়।

বিএনপির আন্তর্জাতিক বিষয়ক ও জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিএনপির মনোনীত মেয়রপ্রার্থী তাবিথ আউয়াল এ কার্যক্রমে নেতৃত্ব দেন।

বিএনপির এ আয়োজনে প্রায় দুই হাজার মানুষের মাঝে পানি, খাবার স্যালাইন ও শরবত বিতরণ করা হয়।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিএনপির মনোনীত ১৬নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থী হাবিবুর রহমান রাব্বি, মহিলা দল নেত্রী জাকিয়া সুলতানা পান্না, ঢাকা মহানগর পশ্চিম ছাত্রদলের সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক মনজুরুল হাসান ইফাত, ১৬নং ওয়ার্ড যুবদলের সভাপতি মন্জিরুল ইসলাম মনিরুল, ১৬নং ওয়ার্ড স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি মো. সুজন, ক্যান্টেনমেন্ট বোর্ড ওয়ার্ড বিএনপির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকসহ বিএনপি ও সব অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

ঢাকায় পথচারীদের মাঝে বিএনপির পানীয় বিতরণ
                                  

ডিটিভি অনলাইন ডেস্ক:

তাপপ্রবাহ থেকে জনসাধারণকে স্বস্তি দিতে সাধারণ মানুষের মাঝে বোতলজাত পানি, খাবার স্যালাইন ও শরবত বিতরণ করেছে বিএনপি।

বুধবার (২৪ এপ্রিল) দুপুরে রাজধানী ঢাকার কচুক্ষেত বাজার স্বাধীনতা চত্বর ও উত্তরার হাজী ক্যাম্প আশকোনা এলাকায় পথচারী, দিনমজুর, রিকশাচালক, খেটে খাওয়া মানুষ, বাসচালক থেকে শুরু করে সব শ্রমজীবী সাধারণ মানুষের মাঝে বোতলজাত পানি, খাবার স্যালাইন ও শরবত বিতরণ করা হয়।

বিএনপির আন্তর্জাতিক বিষয়ক ও জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিএনপির মনোনীত মেয়রপ্রার্থী তাবিথ আউয়াল এ কার্যক্রমে নেতৃত্ব দেন।

বিএনপির এ আয়োজনে প্রায় দুই হাজার মানুষের মাঝে পানি, খাবার স্যালাইন ও শরবত বিতরণ করা হয়।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিএনপির মনোনীত ১৬নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থী হাবিবুর রহমান রাব্বি, মহিলা দল নেত্রী জাকিয়া সুলতানা পান্না, ঢাকা মহানগর পশ্চিম ছাত্রদলের সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক মনজুরুল হাসান ইফাত, ১৬নং ওয়ার্ড যুবদলের সভাপতি মন্জিরুল ইসলাম মনিরুল, ১৬নং ওয়ার্ড স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি মো. সুজন, ক্যান্টেনমেন্ট বোর্ড ওয়ার্ড বিএনপির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকসহ বিএনপি ও সব অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

ভোটার আকৃষ্ট করতে প্রচারপত্র বিলাবে আওয়ামী লীগ
                                  

ডিটিভি অনলাইন ডেস্ক:

টানা চার মেয়াদে ক্ষমতায় থাকা আওয়ামী লীগ সরকারের অধীনে নির্বাচনগুলোতে ভোটার উপস্থিতি কমেছে। বিষয়টি আমলে নিয়ে এবার ভোটার আকৃষ্ট করতে কর্মসূচি গ্রহণ করছে দলটি। এরই মধ্যে ‌কেনো ভোট দেবেন শিরোনামে প্রচারপত্র প্রকাশ করেছে আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা উপ-কমিটি। এটি ভোটারদের কাছে পৌঁছানোর উদ্যোগ নিয়েছে দলটি।

মঙ্গলবার বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউস্থ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে যৌথ সভা করে দলটি। পাশাপাশি প্রচার ও প্রকাশনা উপ-কমিটি প্রণীত প্রচারপত্র বিতরণ করে।

এতে প্রধান অতিথির ছিলেন দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। তিনি দলটির বিভিন্ন শাখা সংগঠন ও সহযোগী সংগঠনের নেতাদের হাতে এই প্রচারপত্র তুলে দেন। তারা এগুলো সাধারণ মানুষের হাতে পৌঁছে দেবেন।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের সভাপতি মলণ্ডলীর সদস্য মতিয়া চৌধুরী, কাজী জাফরউল্লাহ, ড. আব্দুর রাজ্জাক, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ, সাংগঠনিক সম্পাদক বিএম মোজাম্মেল হক, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. আবদুস সোবহান গোলাপ, উপ-প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক সৈয়দ আব্দুল আউয়াল শামীম প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, উপজেলা নির্বাচন সামনে রেখে ভোটের মাধ্যমে সাংবিধানিক অধিকার প্রয়োগের জন্য জনগণকে আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা আহ্বান জানিয়েছেন।

জনগণের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, ভোট দিয়ে আপনার নাগরিক অধিকার প্রতিষ্ঠা করুন। আওয়ামী লীগ বিশ্বাস করে জনগণ সব শক্তির উৎস। দেশবিরোধী অপশক্তি জাতির পিতার পরিবারকে হত্যা করে জনগণকে সামরিক স্বৈরশাসনের জাঁতাকলে দীর্ঘকাল পিষ্ঠ করেছে। শেখ হাসিনা ক্ষমতায় এসে হত্যার রাজনীতি বন্ধ করেছেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, স্থিতিশীল সরকার থাকায় গত ১৫ বছরে দেশের বিস্ময়কর উন্নয়ন হয়েছে । খুনের মাধ্যমে ক্ষমতা দখল বন্ধ হয়েছে। গণতন্ত্র স্থিতিশীলতা ছিল বলে এমন উন্নয়ন হয়েছে।

সেতুমন্ত্রী বলেন, দেশবিরোধী অপশক্তি লাগাতারভাবে ষড়যন্ত্র করে যাচ্ছে। জনগণের ভোটাধিকার বঞ্চিত করতে নির্বাচন বিরোধী কাজ করছে তারা। তাদের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে।

তিনি বলেন, গণতন্ত্র, শান্তি, উন্নয়ন নির্বাচন বিরোধী অপশক্তির বিরুদ্ধে আমাদের সবাইকে ঐক্যবদ্ধ প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে। আমাদের নেত্রী, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আহ্বান মুক্তিযুদ্ধের সপক্ষের ও প্রগতিশীল শক্তির কাছে, দেশের স্বাধীনতা, সার্বভৌমত্ব বিরোধী অপশক্তি আমাদের ভিত্তিমূলে আঘাত করতে যাচ্ছে। তাদের আমাদের প্রতিহত করতে হবে। সেজন্য আমাদের ঐক্যবদ্ধ হতে হবে।

তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে হত্যা করার মাধ্যমে গণতন্ত্র হত্যার সূচনা হয়। ষড়যন্ত্রের নেতৃত্ব দিয়েছিলেন মোস্তাক-জিয়া। বাংলাদেশ বিরোধী অপপ্রচার ও ষড়যন্ত্র দেশের পাশাপাশি বিদেশেও আছে। সরকার হটানোর ষড়যন্ত্র চলছে। নির্বাচন ও গণতন্ত্রের বিরুদ্ধে দেশি-বিদেশি অপশক্তি ষড়যন্ত্র করছে।

কাদের বলেন, আওয়ামী লীগ একমাত্র দল, যে দলটি স্বাধীন ও শক্তিশালী নির্বাচন কমিশন গঠন করেছে। তার আগে খালেদা জিয়ার অধিনে ছিল নির্বাচন কমিশন। গুন্ডা দিয়ে নির্বাচন করা হত। ভুয়া ভোটার দিয়ে ভুয়া নির্বাচন করেছেন তিনি। আওয়ামী লীগই দেশের একমাত্র দল, যেটি নির্বাচন ব্যবস্থাকে স্বাধীন ও কর্তৃত্বপূর্ণ করেছে।

নয়াপল্টনে রিজভীর নেতৃত্বে বিক্ষোভ মিছিল
                                  

ডিটিভি অনলাইন ডেস্ক:

দলের নেতাকর্মীদের মুক্তির দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল করেছেন বিএনপি নেতাকর্মীরা। মঙ্গলবার (২৩ এপ্রিল) দুপুরে নয়াপল্টনে দলটির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী মিছিলের নেতৃত্ব দেন।

বেলা ১২টার দিকে নাইটিংগেল মোড় থেকে বিজয়নগর মোড় পর্যন্ত এ বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়।

মিছিলে স্বেচ্ছাসেবক দলের সহ-সভাপতি নজরুল ইসলাম, যুবদলের নেতা মেহেবুব মাসুম শান্ত, ছাত্রদলের আউয়ালসহ নেতাকর্মীরা অংশ নেন।

আওয়ামী লীগের যৌথসভা আজ
                                  

ডিটিভি অনলাইন ডেস্ক:

আওয়ামী লীগ নেতাদের সঙ্গে ঢাকা মহানগর উত্তর-দক্ষিণ আওয়ামী লীগ এবং সব সহযোগী সংগঠনের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকদের যৌথসভা হবে আজ মঙ্গলবার (২৩ এপ্রিল)।

দলের দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে একথা বলা হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, মঙ্গলবার সকাল ১১টায় বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে দলটির নেতাদের সঙ্গে ঢাকা মহানগর উত্তর-দক্ষিণ আওয়ামী লীগ এবং সব সহযোগী সংগঠনের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকদের এক যৌথসভা অনুষ্ঠিত হবে।

সভায় সভাপতিত্ব করবেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

সংশ্লিষ্ট সবাইকে যথাসময়ে সভায় উপস্থিত থাকার জন্য অনুরোধ জানানো হয়েছে।

জিএম কাদের-চুন্নুকে বহিষ্কার করলেন রওশন এরশাদ
                                  

ডিটিভি অনলাইন ডেস্ক:

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জি এম কাদের ও মহাসচিব মুজিবুল হক চুন্নুকে অব্যাহতি দিয়ে নিজেকে চেয়ারম্যান হিসেবে ঘোষণা করেছেন দলের প্রধান পৃষ্ঠপোষক রওশন এরশাদ। পাশাপাশি কাজী মামুনুর রশীদকে পার্টি মহাসচিব হিসেবে ঘোষণা করেন।

রোববার (২৮ জানুয়ারি) দুপুরে গুলশানে রওশন এরশাদের বাসায় এক সভার আয়োজন করেন তিনি। এ সময় দলের বহিষ্কার, প্রত্যাহার হওয়া নেতাদের বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার করেন।

তিনি বলেন, দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অযোগ্য নেতৃত্ব ও ভুল সিদ্ধান্তের কারণে অভিভাবকহীন হয়ে পড়ে জাতীয় পার্টির তৃণমূল নেতাকর্মীরা। জাতীয় পার্টিতে এখন ক্রান্তিকাল বিরাজ করছে। দলের প্রধান পৃষ্ঠপোষক ও কো- চেয়ারম্যান হওয়ায় আমি বেগম রওশন এরশাদ কিছু গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছি।

বিএনপি নেতাদের সঙ্গে ইইউ ইলেকশন এক্সপার্টদের বৈঠক
                                  

ডিটিভি অনলাইন ডেস্ক:

বিএনপি নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করেছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ) ইলেকশন এক্সপার্ট টিম। বুধবার (১৭ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় ভার্চুয়ালি এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

বিএনপির মিডিয়া সেলের সদস্য শায়রুল কবির খান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

শায়রুল বলেন, বৈঠকে বিএনপি নেতাদের মধ্যে স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আব্দুল মঈন খান, উপদেষ্টা কাউন্সিল সদস্য ইসমাইল জবিউল্লাহ, সাংগঠনিক সম্পাদক শামা ওবায়েদ, বিএনপির আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক হুমায়ুন কবির, মানবাধিকার বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আসাদুজ্জামান আসাদ যুক্ত ছিলেন।

ইইউ ইলেকশন এক্সপার্ট টিমের প্রতিনিধিদের মধ্যে ডেভিড নোয়েল ওয়ার্ড, আলেকজান্ডার ম্যাটাস, সুইবেস শার্লট এবং রেবেকা কক্স বৈঠকে অংশ নেন।

আওয়ামী লীগের যৌথসভা আজ
                                  

ডিটিভি অনলাইন ডেস্ক:

আওয়ামী লীগের নেতাদের সঙ্গে ঢাকা মহানগর উত্তর-দক্ষিণ আওয়ামী লীগ এবং সব সহযোগী সংগঠনের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকদের এক যৌথসভা আগামীকাল অনুষ্ঠিত হবে।

আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছেন, বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আগামীকাল বিকেল সাড়ে ৩টায় এ যৌথসভা অনুষ্ঠিত হবে। সভাপতিত্ব করবেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

মনের শান্তির জন্য আবোল তাবোল কথা বলছে বিএনপি: কাদের
                                  

ডিটিভি অনলাইন ডেস্ক:

নিজেদের মনের শান্তির জন্য বিএনপি নেতারা আবোল তাবোল কথা বলছেন বলে মন্তব্য করেছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী এবং বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

মঙ্গলবার (১৬ জানুয়ারি) সকাল সাড়ে ১০টায় সেতু ভবনের সভাকক্ষে সেতু বিভাগের কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময় শেষে ব্রিফিংকালে তিনি এ কথা বলেন।

বিএনপি বলছে নির্বাচনের পর আওয়ামী লীগের তৃণমূলের নেতারা ভয়ে আছে। এ বিষয়ে তিনি বলেন, তারা ইলেকশন করতে দেবে না বলেছিন, তারপরও নির্বাচন হয়েছে। তারা ভয়ের কোনো কারণ না। তারা আতঙ্ক সৃষ্টি করে গুপ্তহত্যা, গুপ্ত আক্রমণ, অগ্নি সন্ত্রাস করছে। ট্রেনে আগুন দিয়ে কীভাবে তারা মা-সন্তানকে পুড়িয়ে মারলো। বাসে হেলপারদের মারলো, পুলিশ পিটিয়ে মারলো। এমন অপকর্ম যারা করে তারা কে কী বললো, সেটা আমরা কিছু মনে করি না।

কাদের বলেন, তারা বলেছিল ইলেকশন করতে দেবে না, আমরা স্বাচ্ছন্দ্যে ইলেকশন করেছি। কিছু ঘটনা, সহিংসতা হয়েছে। কিন্তু বিএনপি যেটা ভেবেছিল, সেরকম কিছু আসলে হয়নি। নির্বাচনে ভোটের হার ৪১.৮০। অথচ তাদের দাবি জনগণ সাড়া দিয়েছে। কিন্তু জনগণ তাদের কথায় কান দেয়নি। কেউই মাথা ঘামায়নি। সেজন্য তারা নিজেদের মনের শান্তির জন্য আবোল তাবোল কথা বলছে।

তিনি আরও বলেন, সংবিধানে কোথায় আছে যে এ সরকার অবৈধভাবে ক্ষমতায় এসেছে? নির্বাচন আগামও করা যায়। আমাদের সময় ছিল ২৯ জানুয়ারি পর্যন্ত। আমরা ৭ জানুয়ারি ভোট করেছি। ইলেশন করে কি আমরা বসে থাকবো শপথ নেওয়ার জন্য?

খালেদা জিয়ার মানবিক অধিকার কেড়ে নেওয়া হয়েছে: রিজভী
                                  

ডিটিভি অনলাইন ডেস্ক:

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, বেগম খালেদা জিয়া আজ জামিন পাচ্ছেন না। চিকিৎসা পাচ্ছেন না, চিকিৎসা নেওয়ার মানবিক অধিকার কেড়ে নেওয়া হয়েছে। শেখ হাসিনা এমন পাহাড় তার কাছে কোনো দাবি পৌঁছায় না, হিংসার পোশাক পরে তিনি রাজনীতি করেন ।

সোমবার (১৫ জানুয়ারি) দুপুরে রাজধানীতে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের নিচে জাতীয়তাবাদী মহিলা দল আয়োজিত খালেদা জিয়ার সুস্থতা কামনায় দোয়া ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

রিজভী বলেন, যে মিথ্যাবাদী হতে পারে ও মুনাফিক হতে পারে তারাই আওয়ামী লীগ করে। আওয়ামী লীগ তত্ত্বাবধায়ক সরকারের জন্য এক সময় আগুন সন্ত্রাস করে আন্দোলন করেছিল। বর্তমানে সেই আওয়ামী লীগ বিরোধী দলকে বিভিন্ন ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে দমন, পীড়নে ব্যস্ত থেকে দেশে একদলীয় শাসন কায়েম করছে। ডামি নির্বাচনের মাধ্যমে দেশের গণতন্ত্রকে ধ্বংস করেছে সরকার।

তিনি বলেন, আইনমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ দেশের বিচারব্যবস্থাকে ধ্বংস করে দিয়েছে। বিরোধী দলীয় হাজার হাজার নেতাকর্মীকে জেলে আবদ্ধ করে গোটা দেশকে কারাগারে পরিণত করেছে সরকার।

রিজভী বলেন, সরকারের মহা দুর্নীতিতে দেশের অর্থনীতি মহা সংকটে আজ। পৃথিবীর সব স্বৈরাচারের পতন হয়েছে, বাংলাদেশের স্বৈরাচার সরকারেরও পতন হবে। জনগণের আন্দোলনে এই স্বৈরাচার সরকার পদ্মা, মেঘনা, যমুনার পানিতে ভেসে যাবে।

মহিলা দলের সভাপতি আফরোজা আব্বাসের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আব্দুস সালাম আজাদ, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ মহিলা দলের আহ্বায়ক রুমা আক্তার, সদস্য সচিব নাসিমা আক্তার কেয়াসহ মহিলা দলের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

নতুন করে নির্বাচনের দাবি মামাবাড়ির আবদার: কাদের
                                  

ডিটিভি অনলাইন ডেস্ক:

বিএনপিসহ সমমনা দলগুলোর নতুন করে নির্বাচনের দাবিকে মামাবাড়ির আবদার বলে মন্তব্য করেছেন সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

রোববার (১৪ জানুয়ারি) সচিবালয়ে মন্ত্রীর কক্ষে সাংবাদিকদের সঙ্গে এক আলোচনা সভায় এসব কথা বলেন তিনি।

নতুন সরকারের সামনে কী চ্যালেঞ্জ রয়েছে- এমন প্রশ্নের উত্তরে ওবায়দুল কাদের বলেন, মানুষের জীবনে রাজনীতি বলুন, অর্থনীতি বলুন সর্বক্ষেত্রেই জীবন চ্যালেঞ্জিং। বর্তমান বৈশ্বিক পরিস্থিতিতে সেই চ্যালেঞ্জ আরও কঠিন। তবে আমি মনে করি কোনো চ্যালেঞ্জই মোকাবিলা করা অসম্ভব নয়।

‘আমরা যখন পদ্মাসেতু কাজ শুরু করেছিলাম তখন কেউ ভাবেনি এটা শেষ করা সম্ভব হবে। বিশ্বব্যাংকও পাশে ছিল না। কিন্তু আমরা পদ্মাসেতু করতে পেরেছি। মেট্রোরেল দিয়ে যে এ শহর সমৃদ্ধ হবে এ কথাও কেউ ভাবেনি। কিন্তু সেটাও শেখ হাসিনার সরকার উপহার দিয়েছে। আমাদের অনেক কাজ আছে সামনে, অনেক চ্যালেঞ্জ আছে। তবে এখনো আমরা সড়কে যানবাহনের শৃঙ্খলা আনতে পারিনি। বিশ্বব্যাংকের সঙ্গে একযোগে আমরা একটা প্রকল্প হাতে নিয়েছি। এটা করতে পারলে রোড সেফটি নিশ্চিত হবে। আজ অনেক রাস্তা হচ্ছে। রাস্তাগুলো স্মার্ট করতে হবে। এ বিষয়গুলোও আমরা দেখবো। অনেক সড়কের নির্মাণকাজ শেষ করতে হবে।

মন্ত্রিসভায় দেশি-বিদেশি চাপ আছে কি না- এমন প্রশ্নের উত্তরে মন্ত্রী বলেন, দেশি-বিদেশি চাপ প্রসঙ্গে আমাদের প্রধানমন্ত্রী বলেছেন- চাপ বিদেশ থেকে আছে। দেশে তো আছে। আমরা চাপ মোকাবিলার সক্ষমতা রাখি। আমাদের শক্তি এ দেশের জনগণ। দেশের জনগণ সঙ্গে থাকলে কোনো চাপই মোকাবিলা করা অসম্ভব নয়।

তিনি বলেন, অনেকেই ভেবেছে নির্বাচন করতে পারবে না। কিন্তু তাদের স্বপ্ন স্বপ্নই রয়ে গেছে। অর্থনৈতিক চাপও রয়েছে। এগুলোকে ভয় পেলে হবে না। আজকাল আমাদের গ্রামীণ বাজার পর্যন্ত ভরপুর খাদ্যসামগ্রী, ফলমূল সব আছে। সীমান্তেও একই অবস্থা। কিছু নিম্ন আয়ের মানুষের কষ্ট হচ্ছে। মানুষ যাতে সহজে দ্রব্যমূল্য কিনতে পারে সেক্ষেত্রে আমরা জোর দেবো।

বিরোধীদলের প্রতি বার্তা দিতে চান কি না- এমন প্রশ্নের উত্তরে কাদের বলেন, এ দেশটা সকলের। দেশ যে শুধু আওয়ামী লীগের সেটা তো বলতে পারি না। সত্যিকার অর্থে গণতান্ত্রিক রাজনৈতিক চর্চায় আসতে হবে। আমরা চিরজীবন ক্ষমতায় থাকবো না। একটা দল চিরজীবন ক্ষমতায় থাকেও না। এ দেশের সকল সম্পদ জনগণের। বিরোধীদলের যারা আছেন তারাও এ সম্পদের অংশীদার। কাজেই উন্নয়ের যে যাত্রা শুরু হয়েছে সেটা ২০৪১ সাল অবধি আমাদের ভিশনে নিয়ে যেতে হবে।

কলাবাগান মাঠে নির্বাচনী জনসভায় শেখ হাসিনা
                                  

ডিটিভি অনলাইন ডেস্ক:

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে রাজধানীর ধানমন্ডির কলাবাগান মাঠে আওয়ামী লীগের নির্বাচনী জনসভায় অংশ নিয়েছেন দলের সভাপতি শেখ হাসিনা।

সোমবার (১ জানুয়ারি) বিকেল সোয়া ৩টায় কলাবাগান মাঠে ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ আওয়ামী লীগ আয়োজিত এ সভায় পৌঁছান তিনি।

এসময় স্লোগান স্লোগানে শেখ হাসিনাকে স্বাগত জানান নেতাকর্মীরা। বাংলাদেশের পতাকা হাতে স্লোগানের জবাব দেন তিনি। পাশাপাশি দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের ও কলাবাগান ক্রীড়া চক্রের সাধারণ সম্পাদক আফজালুর রহমান পৃথকভাবে আওয়ামী লীগ সভাপতিকে ফুল দিয়ে স্বাগত জানান।

এরপর সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মধ্যদিয়ে জনসভার আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয়। এতে ঢাকার আসনগুলোর দলীয় সংসদ সদস্য প্রার্থীরা অংশ নেন। এছাড়া আওয়ামী লীগ ও এর অঙ্গ এবং সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

রংপুরের পথে শেখ হাসিনা
                                  

ডিটিভি অনলাইন ডেস্ক:

নির্বাচনী জনসভায় যোগ দিতে রংপুরের পীরগঞ্জে রওনা দিয়েছেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। মঙ্গলবার (২৬ ডিসেম্বর) সকাল সোয়া ১০টার দিকে গণভবন থেকে রওনা দেন তিনি।

এদিন বিকেল ৩টায় পীরগঞ্জ সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে নির্বাচনী জনসভায় ভাষণ দেবেন তিনি। এছাড়াও শেখ হাসিনা নিজ বাসভবন লালদীঘি ফতেহপুরে পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে মিলিত হয়ে স্বামীর কবর জিয়ারতসহ নিকট আত্মীয়দের সঙ্গে কুশল বিনিময় করবেন।

পীরগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও পৌর মেয়র তাজিমুল ইসলাম শামীম জানান, মঙ্গলবার সকালে বিমানযোগে সৈয়দপুর এসে তারাগঞ্জে দলীয় প্রার্থী আবুল কালাম মো. আহসানুল হক চৌধুরী ডিউকের জনসভায় যোগ দেবেন শেখ হাসিনা।

এ সভা শেষে গ্রামের বাড়ি পীরগঞ্জের লালদীঘি ফতেহপুরে আসবেন তিনি। সেখানে স্বামীর কবর জিয়ারতের পর নিকট আত্মীয়দের সঙ্গে কুশল বিনিময় করে সময় কাটাবেন শেখ হাসিনা। এরপর বিকেলে পীরগঞ্জ সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় মাঠের জনসভায় যোগ দেবেন।

এর আগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০১৮ সালের ২২ ডিসেম্বর পীরগঞ্জে একই মাঠে জনসভা করেছেন। তারও আগে ২০১৩ সালের ৩১ ডিসেম্বর তরফমৌজা উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে পথসভা ও লালদীঘির ফতেহপুরের জয়সদনে কর্মীসভা করেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রী ও পীরগঞ্জের পুত্রবধূর আগমনে গোটা উপজেলায় সাজ সাজ রব, চলছে পোস্টারিং ও মাইকিংসহ ব্যাপক প্রচারণা।

অবরোধ সমর্থনে চট্টগ্রামে ঝটিকা মিছিল
                                  

ডিটিভি অনলাইন ডেস্ক:

বিএনপি ও সমমনা দলগুলোর ডাকা সকাল-সন্ধ্যা অবরোধে চট্টগ্রামে জনজীবন স্বাভাবিক রয়েছে। এখন পর্যন্ত কোথাও কোনো বিশৃঙ্খলার ঘটনা ঘটেনি। নগরীর সড়কগুলোতে স্বাভাবিক রয়েছে যানবাহন চলাচল। অফিস-আদালতও চলছে অন্যদিনের মতোই। তবে সকাল থেকেই দূরপাল্লার বাস তেমন একটা ছেড়ে যায়নি।

তবে রোববার (২৪ ডিসেম্বর) সকাল থেকে চট্টগ্রাম মহানগরীসহ জেলার বিভিন্ন স্থানে ঝটিকা মিছিল ও পিকেটিং হয়েছে।

সকালে অবরোধের সমর্থনে চট্টগ্রাম মহানগরীর পাঁচলাইশ থানা যুবদলের আহ্বায়ক মোহাম্মদ আলী সাকি, মহানগর যুবদলের যুগ্ম সম্পাদক সেলিম উদ্দিন রাসেল, তৌহিদুল ইসলাম রাসেল ও এস এম ফারুকের নেতৃত্বে নগরীর আতুরার ডিপো এলাকায় মিছিল করে পাঁচলাইশ থানা যুবদল। একই সময়ে অবরোধের সমর্থনে চট্টগ্রামে নগরীর আরাকান সড়কে ঝটিকা মিছিল করে ৫নং মোহরা ওয়ার্ড যুবদল।

সকালে চট্টগ্রাম মহানগর মহিলাদলের সভাপতি মনোয়ারা বেগম মনির নেতৃত্বে আমবাগান, টাইগার পাস ও লালখান বাজার এলাকায় ঝটিকা মিছিল করেছে মহানগর মহিলা দল। নির্বাচন বর্জন ও অসহযোগ আন্দোলনের অংশ হিসেবে ডাকা অবরোধের সমর্থনে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রদলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও চট্টগ্রাম মহানগর যুবদল নেতা মো. শহিদুল ইসলাম শহিদের নেতৃত্বে নগরীর কাজীর দেউড়ি-নেভাল রোড এলাকায় ঝটিকা মিছিল করেন যুবদল-ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা।

অবরোধ সমর্থনে মিছিল-পিকেটিং করেছে চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা ছাত্রদল। চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা ছাত্রদলের সদস্য সচিব কামরুদ্দিন সবুজের নেতৃত্বে চট্টগ্রাম-পেকুয়া সড়কের বাঁশখালীতে মিছিল করেন ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা।

মেনন নৌকায়, ইশতেহার ঘোষণা করলেন ওয়ার্কার্স পার্টির নেতারা
                                  

ডিটিভি অনলাইন ডেস্ক:

দুর্নীতি-দুর্বৃত্তায়ন দমন ও দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণকে গুরুত্ব দিয়ে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে নির্বাচনী ইশতেহার প্রকাশ করেছে বাংলাদেশ ওয়ার্কাস পার্টি।

শনিবার (২৩ ডিসেম্বর) সকালে সাড়ে ১০টায় জাতীয় প্রেস ক্লাবে ২৮ দফা ইশতেহার প্রকাশ করে দলটি। দলের পক্ষে ইশতেহার ঘোষণা করেন ওয়ার্কাস পার্টির পলিট ব্যুরোর সদস্য নূর মোহাম্মদ বকুল।

এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন ওয়ার্কাস পার্টির আনিসুর রহমান মল্লিক, মাহমুদুল হাসান মানিক, মোস্তফা আলমগীর রতন, কামরুল হাসান, এনামুল হক এমরান।

ওয়ার্কাস পার্টির ইশতেহারে রয়েছে, দুর্নীতি-দুর্বৃত্তায়ন ও দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণ, রাজনৈতিক লক্ষ্য, বৈষম্য নিরসন আইন প্রণয়ন, শোষণ মুক্তির লক্ষ্যে আইন ও বিধি প্রণয়ন, সামাজিক ক্ষমতায়ন, আদিবাসী, সংখ্যালঘু ও নগরের প্রান্তিক দরিদ্র জনগোষ্ঠীর সুরক্ষা, নারীর ক্ষমতায়ন, যুব অধিকার, শিশু-কিশোর অধিকার, শিক্ষার অধিকার, স্বাস্থ্য সেবা, কৃষি ও খাদ্য নিরাপত্তা, শিল্পায়ন ও কর্মসংস্থান, শ্রম অধিকার ও সর্বনিম্ন মজুরি, বিজ্ঞান ও তথ্য প্রযুক্তি, শ্রম অভিবাসন ও প্রবাসী কল্যাণ, জ্বালানি ও খনিজ, জলবায়ু পরিবর্তন ও পরিবেশ সুরক্ষা, নদী ও পাহাড় সংরক্ষণ, নিরাপদ সড়ক, রোহিঙ্গা সমস্যা, প্রতিরক্ষা, পররাষ্ট্র, আঞ্চলিক জোট, ফিলিস্তিনের প্রতি সমর্থন, ন্যাটোর সম্প্রসারণে বিরোধিতা, সাম্রাজ্যবাদের বিরোধিতা।

ভোট নিয়ে যেন কোনো সংঘাত না হয়: নেতাকর্মীদের শেখ হাসিনা
                                  

ডিটিভি অনলাইন ডেস্ক:

ভোট নিয়ে যেন কোনো সংঘাত না হয় সেদিকে নজর রাখতে সারাদেশের নেতাকর্মীদের নির্দেশনা দিয়েছেন আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, জনগণ যাকে খুশি তাকে ভোট দেবে। ভোটে নৌকা, স্বতন্ত্র ও অন্যান্য দলও আছে। জনগণ যাকে ভোট দেবে সেই নির্বাচিত হবে। কেউ কারও অধিকারে হস্তক্ষেপ করতে পারবে না। নির্বাচনে কোনো সংঘর্ষ-মারামারি দেখতে চাই না। দলের কেউ সংঘাত করলে তার রেহাই নেই, তার বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নেবো। গণতন্ত্রকে আরও সুদৃঢ় করতে না পারলে বাংলাদেশ শেষ হয়ে যাবে।

বৃহস্পতিবার (২১ ডিসেম্বর) বিকেলে রাজধানীর তেজগাঁওয়ে ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগ ভবন থেকে পাঁচ জেলার নির্বাচনী জনসভায় ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

শেখ হাসিনা পর্যায়ক্রমে রংপুর বিভাগের পঞ্চগড় ও লালমনিরহাট জেলা, রাজশাহী বিভাগের নাটোর ও পাবনা জেলা এবং চট্টগ্রাম বিভাগের খাগড়াছড়ি জেলার নির্বাচনী জনসভায় বক্তব্য দেন।

এসব কর্মসূচিতে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতারা, সংশ্লিষ্ট জেলা আওয়ামী লীগ, উপজেলা/থানা/পৌর আওয়ামী লীগ, ইউনিয়ন/ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ নেতারা এবং সংশ্লিষ্ট জেলাগুলোর নির্বাচনী এলাকাসমূহের মনোনীত প্রার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।

এসময় শেখ হাসিনা বলেন, ভোট চুরির সুযোগ নেই বলেই বিএনপি নির্বাচনে আসেনি। গত ১৫ বছরে বাংলাদেশ এখন বদলে যাওয়া বাংলাদেশ। দেশের এমন কোনো জেলা নেই যেখানে উন্নয়নের ছোঁয়া লাগেনি। যেটা আওয়ামী লীগ সরকার করেছে।

তিনি বলেন, ভোটের অধিকার আওয়ামী লীগ জনগণকে ফিরিয়ে দিয়েছে। আর সেটা অব্যাহত থাকবে। এবারের নির্বাচনে আপনাদের সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে। সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদ করে কেউ যেন মানুষের ক্ষতি করতে না পারে, সেদিকে সবাইকে সজাগ থাকতে হবে। ভোট নিয়ে যাতে কোনো সংঘাত না হয়, জনগণ যাকে খুশি তাকে ভোট দেবে। দলের নেতাকর্মী যেই হোক এর কোনো ব্যত্যয় হলে ছাড় দেওয়া হবে না। কেউ কারও অধিকারে হস্তক্ষেপ করবেন না। এখানে কিন্তু কোনা রকম মারামারি-সংঘাত আমি দেখতে চাই না।

আওয়ামী লীগ সভাপতি বলেন, একটা প্রত্যয় নিয়েই আমি দেশে ফিরে এসেছিলাম, স্বাধীনতার সুফল বাংলার ঘরে ঘরে পৌঁছানো। মানুষের মৌলিক অধিকার পূরণ করে তাদের জীবন উন্নত করা। যেটা বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন ছিল। জনগণের ভোটের অধিকার কেড়ে নিয়ে ক্যান্টনমেন্টে বন্দি করা হয়েছিল, জনগণের অধিকার তাদের হাতে ফিরিয়ে দিতেই এই প্রত্যয় নিয়ে সংগ্রাম শুরু করেছিলাম। অনেক ঘাত প্রতিঘাত, চড়াই- উতরাই পার হতে হয়েছে আমাদের। তারপরও থেমে থাকিনি। মানুষের অধিকার আদায়ে কাজ করে গেছি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, একটা সময় এদেশের মানুষের অধিকার ফিরিয়ে দিতে আওয়ামী লীগের অগণিত নেতাকর্মীকে অত্যাচার-নির্যাতন সহ্য করতে হয়েছে। তারপর আমরা ২১ বছর পর সরকারে আসি। আর জনগণের সেবক হিসেবে যাত্রা শুরু করি। এরপর থেকেই দেশের উন্নয়নে কাজ শুরু করা হয়। কিন্তু ২০০১ সালে আবার সরকারে আসতে পারলাম না। কারণ হলো আমাদের গ্যাস বিক্রির একটা প্রস্তাব ছিল, বড় একটি দেশ থেকে। তখন আমি বলেছিলাম, এটি দেশের জনগণের সম্পদ, এটি আমি বিক্রি করতে পারবো না। তবে বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়া রাজি হয়ে যায়।

শেখ হাসিনা বলেন, ২০০১ সালে আমাদের নেতাকর্মীদের ওপর যেভাবে অত্যাচার করা হয়েছিল শুধু তাই নয়; ধর্ম-বর্ণ, নির্বিশেষে যারাই নৌকায় ভোট দিয়েছিল, তাদের ওপর মুক্তিযুদ্ধে পাকিস্তানিরা যেভাবে আমার দেশের মা-বোনদের ওপর নির্যাতন করেছিল, ঠিক সেভাবে অত্যাচার নির্যাতন করা হয়। আমি নিজেও তাদের হাতে আক্রমণের শিকার হয়েছি বার বার। তারপরও থেমে থাকিনি। এজন্য আওয়ামী লীগকে ধন্যবাদ জানাই। তারা কষ্ট সহ্য করেছে। গত ১৫ বছরে বাংলাদেশে এখন বদলে যাওয়া বাংলাদেশ। এ ১৫ বছরে দেশের এমন কোনো জেলা নেই যেখানে উন্নয়নের ছোঁয়া লাগেনি।

তিনি বলেন, আমরাই কিন্তু সংগ্রামের মাধ্যেমে এটা বিষয় প্রতিষ্ঠিত করেছিলাম; ‘আমার ভোট আমি দেব, যাকে খুশি তাকে দেবো’। আমরাই ভাত ও ভোটের অধিকার প্রতিষ্ঠিত করেছি। আমরা ভোটের অধিকার নিশ্চিত করেছি। আজ মানুষ ভোট দিতে পারে, সেই সুযোগ সৃষ্টি করেছি। দেশের জনগণের আত্ম-সামাজিক মর্যাদা সৃষ্টি করেছি। তাই ৭ জানুয়ারির নির্বাচনে ভোট দেবে জনগণ। নির্বাচন উন্মুক্ত করেছে সরকার। নৌকাসহ আছে অন্যান্য দল ও স্বতন্ত্র প্রার্থীও। কেউ কারও অধিকারে হস্তক্ষেপ করবেন না। যাকে খুশি তাকে জনগণ ভোট দেবে।

আওয়ামী লীগ সভাপতি বলেন, অবৈধভোবে উত্থান হওয়া বিএনপি শুরু থেকেই সংবিধান বিরোধী। ভোট চুরির সুযোগ নেই বলেই বিএনপি নির্বাচনে আসেনি। ভোট চুরির অপরাধে ১৯৯৬ সালে দেশের মানুষ খালেদা জিয়াকে ক্ষমতাচ্যুত করেছিলেন, সেটা নিশ্চয়ই সবার মনে আছে। ভোট চুরির অপরাধে তাকে পদত্যাগে বাধ্য করা হয়েছিল। ভোট চুরির অপরাধে তাকে বিদায় নিতে হয়েছিল। ঠিক একইভাবে ভোট চুরির চেষ্টা করেছিল ২০০৬ সালেও। ভুয়া ভোটার সৃষ্টি করে, যারা ক্ষমতায় থাকতে চেয়েছিল তাদের মুখে গণতন্ত্রের কথাও শুনতে হয়, ভোটের কথাও শুনতে হয়।

‘শান্তির জন্য পরিবর্তন’ স্লোগানে জাপার ইশতেহার ঘোষণা
                                  

ডিটিভি অনলাইন ডেস্ক:

‘শান্তির জন্য পরিবর্তন, পরিবর্তনের জন্য জাতীয় পার্টি’ এ স্লোগান সামনে রেখে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের দলীয় ইশতেহার ঘোষণা করেছে জাতীয় পার্টি (জাপা)।

বৃহস্পতিবার (২১ ডিসেম্বর) দুপুর ১২টায় জাপা চেয়ারম্যানের বনানী কার্যালয় মিলনায়তনে দলটির মহাসচিব মুজিবুল হক চুন্নু এ ইশতেহার ঘোষণা করেন।

নানা নাটকীয়তার পর গত ১৭ ডিসেম্বর মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ দিন জাতীয় পার্টি নির্বাচনে অংশগ্রহণের চূড়ান্ত ঘোষণা দেয়। এবার দলটি এককভাবে ২৮৭টি আসনে প্রার্থী দিলেও ২৬টি আসনে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সঙ্গে তাদের সমঝোতা হয়েছে। তবে এরই মধ্যে ১৬টি আসনে জাতীয় পার্টির মনোনীত প্রার্থীরা ভোটের মাঠ থেকে সরে দাঁড়িয়েছন।

দলটির ইশতেহারে প্রাদেশিক ব্যবস্থা প্রবর্তন, দুর্নীতি ও অর্থপাচার প্রতিরোধ প্রভৃতি বিষয় উঠে এসেছে।


   Page 1 of 37
     রাজনীতি
ঢাকায় পথচারীদের মাঝে বিএনপির পানীয় বিতরণ
.............................................................................................
ভোটার আকৃষ্ট করতে প্রচারপত্র বিলাবে আওয়ামী লীগ
.............................................................................................
নয়াপল্টনে রিজভীর নেতৃত্বে বিক্ষোভ মিছিল
.............................................................................................
আওয়ামী লীগের যৌথসভা আজ
.............................................................................................
জিএম কাদের-চুন্নুকে বহিষ্কার করলেন রওশন এরশাদ
.............................................................................................
বিএনপি নেতাদের সঙ্গে ইইউ ইলেকশন এক্সপার্টদের বৈঠক
.............................................................................................
আওয়ামী লীগের যৌথসভা আজ
.............................................................................................
মনের শান্তির জন্য আবোল তাবোল কথা বলছে বিএনপি: কাদের
.............................................................................................
খালেদা জিয়ার মানবিক অধিকার কেড়ে নেওয়া হয়েছে: রিজভী
.............................................................................................
নতুন করে নির্বাচনের দাবি মামাবাড়ির আবদার: কাদের
.............................................................................................
কলাবাগান মাঠে নির্বাচনী জনসভায় শেখ হাসিনা
.............................................................................................
রংপুরের পথে শেখ হাসিনা
.............................................................................................
অবরোধ সমর্থনে চট্টগ্রামে ঝটিকা মিছিল
.............................................................................................
মেনন নৌকায়, ইশতেহার ঘোষণা করলেন ওয়ার্কার্স পার্টির নেতারা
.............................................................................................
ভোট নিয়ে যেন কোনো সংঘাত না হয়: নেতাকর্মীদের শেখ হাসিনা
.............................................................................................
‘শান্তির জন্য পরিবর্তন’ স্লোগানে জাপার ইশতেহার ঘোষণা
.............................................................................................
২৪ ডিসেম্বর অবরোধ ঘোষণা এলডিপির
.............................................................................................
ভোট বর্জনসহ সরকারকে সব ক্ষেত্রে অসহযোগিতার আহ্বান বিএনপির
.............................................................................................
বুধবার সিলেট থেকে শুরু শেখ হাসিনার নির্বাচনী সফর
.............................................................................................
তেজগাঁওয়ে ট্রেনে নাশকতার বিচারবিভাগীয় তদন্ত চায় বিএনপি
.............................................................................................
হরতালে ঢাকার ১৮ জায়গায় জামায়াতের মিছিল
.............................................................................................
বিকেলেই প্রচারণায় নামবেন ফেরদৌস
.............................................................................................
২৬৩ আসনে লড়বে আওয়ামী লীগ
.............................................................................................
ভোটে যাবে কি না সিদ্ধান্ত নিতে নেতাদের সঙ্গে জিএম কাদেরের বৈঠক
.............................................................................................
জাপার সঙ্গে আসন ভাগাভাগি, সমঝোতা নাকি সংকটের পথে
.............................................................................................
বুদ্ধিজীবীদের হারানোর ক্ষতি পূরণ হওয়ার নয়: ফেরদৌস
.............................................................................................
এ পরিস্থিতিতেও জাপা আগের মতো সহযোগী হিসেবে কাজ করবে: তথ্যমন্ত্রী
.............................................................................................
রাজধানীতে বিএনপি নেতা জুয়েলের নেতৃত্বে মিছিল
.............................................................................................
গণতন্ত্রী পার্টির সব প্রার্থীর প্রার্থিতা বাতিল
.............................................................................................
জাপার সঙ্গে জোট না করতে প্রধানমন্ত্রীকে অনুরোধ রওশনের
.............................................................................................
অবরোধের সমর্থনে ধানমন্ডিতে ছাত্রদলের মিছিল
.............................................................................................
জামায়াতও দিলো ৩৬ ঘণ্টার অবরোধ
.............................................................................................
প্রার্থিতা ফিরে পেয়ে ডলি সায়ন্তনী বললেন নির্বাচন ভালো হবে
.............................................................................................
হাজারো নেতাকর্মীর স্লোগানে মুখরিত প্রেস ক্লাব, সতর্ক পুলিশ
.............................................................................................
খালেদা জিয়ার মুক্তি দাবিতে ড্যাবের মানববন্ধন
.............................................................................................
ঢাকায় জামায়াতের বিক্ষোভ মিছিল
.............................................................................................
সরকার পতনে তীব্র আন্দোলনের বিকল্প নেই: এলডিপি
.............................................................................................
হঠাৎ ডিবিতে ব্যারিস্টার শাহজাহান ওমর
.............................................................................................
বিএনপি থেকে আরও তিনজনকে বহিষ্কার
.............................................................................................
১০ ডিসেম্বর সমাবেশের অনুমতি পায়নি আওয়ামী লীগ
.............................................................................................
চট্টগ্রামে অবরোধের সমর্থনে বিএনপির মিছিল-পিকেটিং
.............................................................................................
যিনি জোয়াল কাঁধে নিয়েছেন তিনিই বুঝবেন হালকা না ভারী: সাঈদ খোকন
.............................................................................................
নারী ভোটারদের মধ্যে জাগরণ দেখা যাচ্ছে, ভালো নির্বাচন হবে
.............................................................................................
নির্বাচন সুষ্ঠু না হলে সংকটের ভুক্তভোগী হবেন প্রধানমন্ত্রী: তৈমূর
.............................................................................................
ঢাকা-৪ আসনে মনোনয়ন ফরম জমা দিলেন জাতীয় পার্টির বাবলা
.............................................................................................
অবরোধের সমর্থনে ঢাকায় ছাত্রদল-যুবদলের মশাল মিছিল
.............................................................................................
বুধ ও বৃহস্পতিবার অবরোধ-হরতালের ডাক দিলো গণঅধিকার পরিষদ
.............................................................................................
বিএনপির লজ্জাও হারিয়ে গেছে: তথ্যমন্ত্রী
.............................................................................................
বিএনপি থেকে একরামুজ্জামান-আবু জাফর বহিষ্কার
.............................................................................................
বুধবার অবরোধ বৃহস্পতিবার হরতাল
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
চেয়ারম্যান: এস.এইচ. শিবলী ।
সম্পাদক, প্রকাশক: জাকির এইচ. তালুকদার ।
হেড অফিস: ২ আরকে মিশন রোড, ঢাকা ১২০৩ ।
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়: বাড়ি নং ২, রোড নং ৩, সাদেক হোসেন খোকা রোড, মতিঝিল বা/এ, ঢাকা ১০০০ ।
ফোন: 01558011275, 02-৪৭১২২৮২৯, ই-মেইল: dtvbanglahr@gmail.com
   All Right Reserved By www.dtvbangla.com Developed By: Dynamic Solution IT Dynamic Scale BD & BD My Shop    
Dynamic SOlution IT Dynamic POS | Super Shop | Dealer Ship | Show Room Software | Trading Software | Inventory Management Software Computer | Mobile | Electronics Item Software Accounts,HR & Payroll Software Hospital | Clinic Management Software Dynamic Scale BD Digital Truck Scale | Platform Scale | Weighing Bridge Scale Digital Load Cell Digital Indicator Digital Score Board Junction Box | Chequer Plate | Girder Digital Scale | Digital Floor Scale