বাংলার জন্য ক্লিক করুন
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
   * আহত শ্রাবণকে হাসপাতালে দেখতে গেলেন রিজভী   * মাদকবিরোধী অভিযানে রাজধানীতে গ্রেফতার ৩৮   * চট্টগ্রামে কোরবানির জন্য প্রস্তুত সাড়ে ৮ লাখ পশু   * বৌদ্ধ বিহারে শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস পালন   * কারওয়ান বাজারে আগুন, নিয়ন্ত্রণে ৫ ইউনিট   * ভূমিসেবা সপ্তাহ শুরু ৩ জুন   * মন্দিরে নির্বাচনী সভা, খাবার বিতরণসহ মেয়রের অনুদান   * সারাদেশে বইছে তাপপ্রবাহ, থাকবে গরমের অস্বস্তি   * প্রথম পোস্টারেই কার্তিক আরিয়ানের বাজিমাত   * টানা চার হার, প্লে-অফ নিশ্চিত হলেও চাপে রাজস্থান  

   তথ্য প্রযুক্তি -
                                                                                                                                                                                                                                                                                                                                 
জমে উঠেছে বাগআঁচড়া সাতমাইল পশুর হাট

Online desk (DTV BANGLA NEWS): কোরবানির ঈদের বাকি আর মাত্র কয়েকদিন। ইতিমধ্যে দেশের অন্যতম পাইকারি পশুরহাট হিসেবে পরিচিত যশোরের বাগআঁচড়া সাতমাইল পশুর হাট জমে উঠেছে। ঢাকা, চট্টগ্রাম, সিলেট ও বরিশালের গরু ব্যবসায়ীরা আস্তানা গেড়েছেন এই হাটে। শনি ও মঙ্গলবার সপ্তাহে দু’দিন বসে সাতমাইলের পশুর হাট। সাতক্ষীরা, যশোর, কুষ্টিয়া, খুলনা ঝিনাইদহের বিভিন্ন এলাকা থেকে হাজার হাজার গরু আসছে বিক্রির জন্য। এবার গরু বেচাকেনা বেশ ভাল। হাটের দিন কয়েকশ ট্রাক গরু চলে যাচ্ছে দেশের বিভিন্ন এলাকায়। বরাবরের মতো এ বছরও মাঝারি সাইজের গরুর চাহিদা সবচেয়ে বেশি। তবে বিপাকে পড়েছেন ৫০ হাজার থেকে ৮০ হাজার টাকা বাজেটের ক্রেতারা। এই দামে বাজারে গরু মিলছে না। অগত্য তাদের বেছে নিতে হচ্ছে বকনা অথবা গাভী জাতীয় পশুকে।শনিবার বাগআঁচড়া গরুরহাট সরেজমিন ঘুরে দেখা গেছে, ১ লাখ থেকে শুরু করে ১ লাখ ৫০ হাজার টাকার গরু বেচাকেনা হচ্ছে সবচেয়ে বেশি। তবে ১ লাখ ৮০ থেকে ২ লাখ ২০-৩০ হাজার টাকার গরুর ক্রেতা কম না। কুষ্টিয়ার কুমারখালী থেকে পাঁচটি মাঝারি সাইজের গরু নিয়ে এসেছেন আক্তার আলী ও মমরেজ। ৩ ঘণ্টার মধ্যে বেচাবিক্রি শেষ। বাজারে ভাল দামে গরু বিক্রি করতে পেরে তারা খুশি।আক্তার আলী জানান, গরু পালন বেশ কষ্টসাধ্য হয়ে উঠেছে। ভুসি-খৈলের দাম বেড়ে যাওয়ায় কমদামে গরু বিক্রি করা যাচ্ছে না।বেনাপোলের ব্যবসায়ী ওছমান ৪ লাখ ৩৫ হাজার টাকা দিয়ে কিনেছেন মাঝারি সাইজের দুটি গরু। তিনি জানালেন, গতবারের চেয়ে এবার দাম একটু বেশি।ঢাকার মিরপুরের গরু ব্যবসায়ী আজমত এবং চট্টগ্রামের বিল্লু মিয়া জানান, এ বছর প্রচুর গরুর আমদানি হচ্ছে গরুর হাটে। গরুর দাম অনেক বেশি। চাষিরা দাম ছাড়ছেন না, তবে বেচাকেনা ভালো।গরুর হাটের ইজারাদার ইলিয়াস কবির বকুল জানান, গরু হাটের ইজারা প্রায় সাড়ে ৮ কোটি টাকা। এ বছর গরুর আমদানি ভালো। আমদানির তুলনায় বেচাকেনা সন্তোষজনক। চাষিরা দামের জন্য শেষ হাট পর্যন্ত অপেক্ষা করবে।আশা করছি মঙ্গলবার এবং বুধবারের স্পেশাল হাটে বেচাকেনা জমে উঠবে।

জমে উঠেছে বাগআঁচড়া সাতমাইল পশুর হাট
                                  

Online desk (DTV BANGLA NEWS): কোরবানির ঈদের বাকি আর মাত্র কয়েকদিন। ইতিমধ্যে দেশের অন্যতম পাইকারি পশুরহাট হিসেবে পরিচিত যশোরের বাগআঁচড়া সাতমাইল পশুর হাট জমে উঠেছে। ঢাকা, চট্টগ্রাম, সিলেট ও বরিশালের গরু ব্যবসায়ীরা আস্তানা গেড়েছেন এই হাটে। শনি ও মঙ্গলবার সপ্তাহে দু’দিন বসে সাতমাইলের পশুর হাট। সাতক্ষীরা, যশোর, কুষ্টিয়া, খুলনা ঝিনাইদহের বিভিন্ন এলাকা থেকে হাজার হাজার গরু আসছে বিক্রির জন্য। এবার গরু বেচাকেনা বেশ ভাল। হাটের দিন কয়েকশ ট্রাক গরু চলে যাচ্ছে দেশের বিভিন্ন এলাকায়। বরাবরের মতো এ বছরও মাঝারি সাইজের গরুর চাহিদা সবচেয়ে বেশি। তবে বিপাকে পড়েছেন ৫০ হাজার থেকে ৮০ হাজার টাকা বাজেটের ক্রেতারা। এই দামে বাজারে গরু মিলছে না। অগত্য তাদের বেছে নিতে হচ্ছে বকনা অথবা গাভী জাতীয় পশুকে।শনিবার বাগআঁচড়া গরুরহাট সরেজমিন ঘুরে দেখা গেছে, ১ লাখ থেকে শুরু করে ১ লাখ ৫০ হাজার টাকার গরু বেচাকেনা হচ্ছে সবচেয়ে বেশি। তবে ১ লাখ ৮০ থেকে ২ লাখ ২০-৩০ হাজার টাকার গরুর ক্রেতা কম না। কুষ্টিয়ার কুমারখালী থেকে পাঁচটি মাঝারি সাইজের গরু নিয়ে এসেছেন আক্তার আলী ও মমরেজ। ৩ ঘণ্টার মধ্যে বেচাবিক্রি শেষ। বাজারে ভাল দামে গরু বিক্রি করতে পেরে তারা খুশি।আক্তার আলী জানান, গরু পালন বেশ কষ্টসাধ্য হয়ে উঠেছে। ভুসি-খৈলের দাম বেড়ে যাওয়ায় কমদামে গরু বিক্রি করা যাচ্ছে না।বেনাপোলের ব্যবসায়ী ওছমান ৪ লাখ ৩৫ হাজার টাকা দিয়ে কিনেছেন মাঝারি সাইজের দুটি গরু। তিনি জানালেন, গতবারের চেয়ে এবার দাম একটু বেশি।ঢাকার মিরপুরের গরু ব্যবসায়ী আজমত এবং চট্টগ্রামের বিল্লু মিয়া জানান, এ বছর প্রচুর গরুর আমদানি হচ্ছে গরুর হাটে। গরুর দাম অনেক বেশি। চাষিরা দাম ছাড়ছেন না, তবে বেচাকেনা ভালো।গরুর হাটের ইজারাদার ইলিয়াস কবির বকুল জানান, গরু হাটের ইজারা প্রায় সাড়ে ৮ কোটি টাকা। এ বছর গরুর আমদানি ভালো। আমদানির তুলনায় বেচাকেনা সন্তোষজনক। চাষিরা দামের জন্য শেষ হাট পর্যন্ত অপেক্ষা করবে।আশা করছি মঙ্গলবার এবং বুধবারের স্পেশাল হাটে বেচাকেনা জমে উঠবে।

পুতিনকে পাল্টা জবাব দিলেন ওয়াগনার প্রধান: কোন পথে রাশিয়া?
                                  

Online desk (DTV BANGLA NEWS): এবার রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের অভিযোগের পাল্টা জবাব দিলেন ওয়াগনার বাহিনীর প্রধান ইয়েভজেনি প্রিগোজিন। পুতিন তার বিরুদ্ধে বিশ্বাসঘাতকতার অভিযোগ এনেছেন। তবে এই অভিযোগ অস্বীকার করেছে ওয়াগনার বস। তার দাবি, দেশের জন্যই লড়ছে তার বাহিনী। রুস্তভ-অন-ডন এলাকা দখলে নেওয়ার দাবি করে তিনি লড়াই চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন। শনিবার টেলিগ্রাম চ্যানেলে পোস্ট করা এক অডিও বার্তায় ওয়াগনার বস বলেছেন, ‌‘আমাদের ২৫ হাজার সেনা মৃত্যুর জন্য প্রস্তুত। এরপর আরো ২৫ হাজার।’ এর আগে রুশ সেনারা ইউক্রেনে তাদের ঘাঁটিতে হামলা চালিয়েছেন বলেও জানিয়েছেন ওয়াগনার প্রধান। ওয়াগনার প্রধান বলেছেন, ‘আমরা রাশিয়ার মানুষের জন্য মরতে প্রস্তুত।’ শনিবার এক জরুরি টেলিভিশ ভাষণে পুতিন ওয়াগনারের বিরুদ্ধে দেশদ্রোহিতা ও বিশ্বাসঘাতকতার অভিযোগ এনে তাদের শাস্তি দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন।প্রিগোজিন বলেছেন, ‌‘মাতৃভূমির সাথে বিশ্বাসঘাতকতার প্রসঙ্গ তুলে প্রেসিডেন্ট বড় ভুল করেছেন।’ ‘আমরা দেশপ্রেমিক। দেশের জন্য আমরা লড়েছি এবং এখনো লড়ছি।’এই অডিও বার্তায় তিনি আরো বলেন, ‘আমি চাই না আমাদের দেশ আরো দুর্নীতি, মিথ্যা ও আমলাতন্ত্রের মধ্য দিয়ে যাক।’

স্পিকারের সঙ্গে জাতিসংঘের আন্ডার সেক্রেটারি জেনারেলের সাক্ষাৎ
                                  

Online desk (DTV BANGLA NEWS): বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সঙ্গে তার কার্যালয়ে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেছেন জাতিসংঘের ম্যানেজমেন্ট স্ট্র্যাটেজি, পলিসি অ্যান্ড কমপ্লায়েন্সবিষয়ক আন্ডার সেক্রেটারি জেনারেল মিস ক্যাথরিন পোলার্ড। আজ শনিবার এই সাক্ষাতকালে নারীর ক্ষমতায়ন, লিঙ্গ সমতা, রোহিঙ্গা ইস্যু, সংসদীয় অধিবেশন, শান্তি মিশনে নারীদের অংশগ্রহণ বিষয়ে তারা বিস্তারিত আলোচনা করেন।স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেন, ‘বাংলাদেশের সংবিধানে নারী-পুরুষ সমান অধিকারের কথা বলা হয়েছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে নারীর ক্ষমতায়ন ও লিঙ্গ সমতা নিশ্চিতকরণে বাংলাদেশ প্রশংসনীয় অগ্রগতি অর্জন করেছে।’ তিনি বলেন, ‘শেখ হাসিনার বিশেষ উদ্যোগ আশ্রয়ণ প্রকল্পের মাধ্যমে একটি পরিবারের স্বামী-স্ত্রী উভয়ের যৌথ নামে ঘর প্রদান করা হচ্ছে, যার ফলে নারীর অধিকার সংরক্ষিত হচ্ছে।’স্পিকার বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী গর্ভবতী ও স্তন্যদানকারী মায়েদের জন্য নগদ ভাতা প্রদান করছেন। এছাড়া তিনি সামাজিক নিরাপত্তা বেষ্টনীর আওতায় বিধবা ভাতা, বয়স্ক ভাতা, প্রতিবন্ধী ভাতা ইত্যাদির ব্যবস্থা করেছেন, যা দেশের অতি দারিদ্র্যের হার কমাতেও সহায়ক হচ্ছে।’নারী শান্তিরক্ষার ১ম বৈঠকে নিজের অংশগ্রহণের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘জাতিসংঘের শান্তিরক্ষা মিশনগুলোতে বাংলাদেশের নারীরা দক্ষতা ও সুনামের সাথে কাজ করে আসছেন।’ ভবিষ্যতেও এ ধারা অব্যাহত থাকবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি। স্পিকার বলেন, ‘বর্তমানে রোহিঙ্গা সমস্যা বাংলাদেশের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ সমস্যা। বাংলাদেশের প্রধান পর্যটন স্থান কক্সবাজারের জনসংখ্যা থেকেও রোহিঙ্গাদের সংখ্যা বেড়ে গেছে।’ তিনি বলেন, ‘শুধু রাজনৈতিক স্বদিচ্ছার মাধ্যমে এ সমস্যা সহজেই সমাধান করা সম্ভব।’আন্ডার সেক্রেটারি জেনারেল মিস পোলার্ড জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা কার্যক্রমে বাংলাদেশের দীর্ঘস্থায়ী এবং বিশাল অবদানের কথা স্বীকার করেন। তিনি নারীর ক্ষমতায়নে বাংলাদেশের সাফল্যের প্রশংসা করেন।এ সময় মিস পোলার্ড বর্তমানে চলমান জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা কার্যক্রমগুলো অতীতের শান্তিরক্ষা কার্যক্রমের বিপরীতে ক্রমশ জটিল ও ব্যয়বহুল হয়ে উঠছে উল্লেখ করে এ শান্তিরক্ষা কার্যক্রমে বাংলাদেশের সক্রিয় ভূমিকার প্রশংসা করেন।জাতিসংঘে বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি রাষ্ট্রদূত মুহাম্মদ আবদুল মুহিত এবং জাতিসংঘের আন্ডার সেক্রেটারি জেনারেলের বিশেষ সহকারী মিস দারাগ রাসেলসহ সংসদ সচিবালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

স্পিকারের সঙ্গে জাতিসংঘের আন্ডার সেক্রেটারি জেনারেলের সাক্ষাৎ
                                  

Online desk (DTV BANGLA NEWS): বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সঙ্গে তার কার্যালয়ে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেছেন জাতিসংঘের ম্যানেজমেন্ট স্ট্র্যাটেজি, পলিসি অ্যান্ড কমপ্লায়েন্সবিষয়ক আন্ডার সেক্রেটারি জেনারেল মিস ক্যাথরিন পোলার্ড। আজ শনিবার এই সাক্ষাতকালে নারীর ক্ষমতায়ন, লিঙ্গ সমতা, রোহিঙ্গা ইস্যু, সংসদীয় অধিবেশন, শান্তি মিশনে নারীদের অংশগ্রহণ বিষয়ে তারা বিস্তারিত আলোচনা করেন।স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেন, ‘বাংলাদেশের সংবিধানে নারী-পুরুষ সমান অধিকারের কথা বলা হয়েছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে নারীর ক্ষমতায়ন ও লিঙ্গ সমতা নিশ্চিতকরণে বাংলাদেশ প্রশংসনীয় অগ্রগতি অর্জন করেছে।’ তিনি বলেন, ‘শেখ হাসিনার বিশেষ উদ্যোগ আশ্রয়ণ প্রকল্পের মাধ্যমে একটি পরিবারের স্বামী-স্ত্রী উভয়ের যৌথ নামে ঘর প্রদান করা হচ্ছে, যার ফলে নারীর অধিকার সংরক্ষিত হচ্ছে।’স্পিকার বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী গর্ভবতী ও স্তন্যদানকারী মায়েদের জন্য নগদ ভাতা প্রদান করছেন। এছাড়া তিনি সামাজিক নিরাপত্তা বেষ্টনীর আওতায় বিধবা ভাতা, বয়স্ক ভাতা, প্রতিবন্ধী ভাতা ইত্যাদির ব্যবস্থা করেছেন, যা দেশের অতি দারিদ্র্যের হার কমাতেও সহায়ক হচ্ছে।’নারী শান্তিরক্ষার ১ম বৈঠকে নিজের অংশগ্রহণের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘জাতিসংঘের শান্তিরক্ষা মিশনগুলোতে বাংলাদেশের নারীরা দক্ষতা ও সুনামের সাথে কাজ করে আসছেন।’ ভবিষ্যতেও এ ধারা অব্যাহত থাকবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি। স্পিকার বলেন, ‘বর্তমানে রোহিঙ্গা সমস্যা বাংলাদেশের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ সমস্যা। বাংলাদেশের প্রধান পর্যটন স্থান কক্সবাজারের জনসংখ্যা থেকেও রোহিঙ্গাদের সংখ্যা বেড়ে গেছে।’ তিনি বলেন, ‘শুধু রাজনৈতিক স্বদিচ্ছার মাধ্যমে এ সমস্যা সহজেই সমাধান করা সম্ভব।’আন্ডার সেক্রেটারি জেনারেল মিস পোলার্ড জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা কার্যক্রমে বাংলাদেশের দীর্ঘস্থায়ী এবং বিশাল অবদানের কথা স্বীকার করেন। তিনি নারীর ক্ষমতায়নে বাংলাদেশের সাফল্যের প্রশংসা করেন।এ সময় মিস পোলার্ড বর্তমানে চলমান জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা কার্যক্রমগুলো অতীতের শান্তিরক্ষা কার্যক্রমের বিপরীতে ক্রমশ জটিল ও ব্যয়বহুল হয়ে উঠছে উল্লেখ করে এ শান্তিরক্ষা কার্যক্রমে বাংলাদেশের সক্রিয় ভূমিকার প্রশংসা করেন।জাতিসংঘে বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি রাষ্ট্রদূত মুহাম্মদ আবদুল মুহিত এবং জাতিসংঘের আন্ডার সেক্রেটারি জেনারেলের বিশেষ সহকারী মিস দারাগ রাসেলসহ সংসদ সচিবালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

যেভাবে বানানো হবে বিশ্বের বৃহত্তম ভাসমান-চলমান শহর
                                  

Online desk (DTV BANGLA NEWS): কচ্ছপ আকৃতির একটি ভাসমান শহর বানানোর পরিকল্পনা হাতে নেওয়া হয়েছে। শহরটির প্রস্তাবিত লোকেশন সৌদি আরব। আর বাস্তরূপ পেলে এটিই হবে পৃথিবীর সবচেয়ে বড় ভাসমান শহর। জানা যায়, আজ থেকে কয়েক কোটি বছর আগে পৃথিবীতে প্যানজিয়া নামের একটি বিশাল আকৃতির মহাদেশ ছিল। কোনো এক রহস্যময় কারণে এটি পুরোপুরি বিলীন হয়ে যায়। এবার সেই মহাদেশ বিলুপ্তর ২০ থেকে ৩৩ কোটি বছর পর প্রায় একই নামে একটি ভাসমান ও চলমান শহর তৈরি করতে যাচ্ছে সৌদি আরব। পরিকল্পনাটি বাস্তবায়ন হলে প্যানজিওস হবে বিশ্বের সবচেয়ে বড় ভাসমান কাঠামো। এর নির্মাণ ব্যয় ধরা হয়েছে ৮০০ কোটি ডলার। শহরটির নকশা করেছে প্রখ্যাত নকশাকার ল্যাজারিনি। ল্যাজারিনির নকশায় তৈরি হতে যাওয়া এই প্রমোদতরীর দৈর্ঘ্য হবে ৫৫০ মিটার এবং প্রস্থ হবে ৬১০ মিটার। ল্যাজারিনি জানিয়েছে, এই বিশালাকৃতির প্রমোদতরীতে থাকবে বিভিন্ন ধরনের হোটেল, মোটেল, আবাসিক ভবন, শপিং মল এবং পার্কসহ বিভিন্ন নাগরিক সুবিধা। এ ছাড়া ছোট ছোট বিভিন্ন জাহাজ ভেড়ানোর জন্য থাকবে ছোট আকারের বন্দর সুবিধাও। থাকবে বিমান এবং হেলিকপ্টার অবতরণের সুবিধাও। কচ্ছপ আকৃতির এই প্রমোদতরী তৈরির জন্য দরকার একটি বিশেষ জায়গার। সম্ভাব্য নির্মাণস্থল হিসেবে সৌদি আরবকে বেছে নেওয়ার কথা জানাচ্ছে ল্যাজারিনি। তিনি আরও জানান, প্রমোদতরী নির্মাণের জন্য প্রায় এক বর্গকিলোমিটার সমুদ্র ড্রেজিং করতে হবে এবং নির্মাণ শুরু করার আগে সেখানে একটি বৃত্তাকার বাঁধ তৈরি করতে হবে। প্রাথমিকভাবে ল্যাজারিনি সৌদি আরবের কিং আবদুল্লাহ বন্দরের একটি জায়গাক প্যানজিওস নামে এই ভাসমান ও চলমান শহরটি বিভিন্ন ব্লকে বিভক্ত থাকবে। নকশাকারী প্রতিষ্ঠান জানিয়েছে, শহরটির কাঠামোর নিচের দিকে সবমিলিয়ে বিভিন্ন আকৃতির ৩০ হাজার সেল থাকবে যা শহরটিকে ভাসমান রাখতে সহায়তা করবে। যে অংশটুকু পানির নিচে থাকবে তার উচ্চতা হবে ৩০ মিটার। এ ছাড়া শহরটি সর্বোচ্চ ঘণ্টায় ৫ নট বেগে চলতে পারবে।পুরো শহরটির জ্বালানি বা বিদ্যুৎ চাহিদা মেটাবে এর দুটি ডানা। এই ডানাগুলো সমুদ্রের ঢেউ থেকে শক্তি সংগ্রহ করে ইঞ্জিনকে চলতে সাহায্য করবে। এ ছাড়া অতিকায় এর ছাদে থাকবে সোলার প্যানেল যা পুরো শহরের বিদ্যুতের চাহিদা মেটাবে। ল্যাজারিনি আশা প্রকাশ করেছে, চলতি বছর অর্থাৎ ২০২৩ সালের মধ্যেই প্রমোদতরীটি নির্মাণের কাজ শুরু হবে। এটি নির্মাণে সময় লাগবে আট বছর। তবে প্রমোদতরীটি নির্মাণে কারা অর্থবিনিয়োগ করবে সে বিষয়ে কোনো তথ্য প্রকাশ করেনি ল্যাজারিনি।

আবার পাসওয়ার্ড শেয়ারিংয়ের সুযোগ দিচ্ছে নেটফ্লিক্স
                                  

বর্তমানে ওটিটি প্ল্যাটফর্মগুলোর মধ্যে নেটফ্লিক্স এখন সবচেয়ে জনপ্রিয়। সিনেমা ও টেলিভিশন ধারাবাহিক এবং ওটিটি সিরিজ দেখার জন্য সেরা এই প্ল্যাটফর্মটির গ্রাহক আছে সারাবিশ্বে। সেই সংখ্যা কয়েক কোটি ছাড়িয়েছে বহু আগেই। বর্তমানে বিশ্বব্যাপী নেটফ্লিক্সের ২২ কোটি গ্রাহক রয়েছে। তবে কিছুদিন আগেই নেটফ্লিক্সের জন্য দুসংবাদ আসে।মাত্র ১০০ দিনে ২ লাখ সাবস্ক্রাইবার হারিয়েছে প্ল্যাটফর্মটি। যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক ভিডিও স্ট্রিমিং প্ল্যাটফর্ম ও প্রযোজনা সংস্থা নেটফ্লিক্সে গত এক দশকে এই প্রথম বার এমনটা ঘটল। তার জেরেই ১৫০জন কর্মীকে ছাঁটাই করেছে বিশ্বের জনপ্রিয় ওটিটি প্ল্যাটফর্মটি। এছাড়াও পাসওয়ার্ড শেয়ারিংও বন্ধ করে দিয়েছিল।তবে আবারও পাসওয়ার্ড শেয়ারিংয়ের সুযোগ দিচ্ছে জনপ্রিয় ওটিটি প্ল্যাটফর্মটি। এজন্য অতিরিক্ত টাকা খরচ করতে হবে সাবস্ক্রাইবারকে। এরই মধ্যে বেশ কিছু ব্যবহারকারীর কাছে এই বিষয়ে টাকা নিয়েছে এই ওটিটি প্ল্যাটফর্মটি। মূলত সংস্থার আয় বৃদ্ধি এবং একটি সাবক্রিপশন নিয়ে অনেকে যাতে না ব্যবহার করতে পারে তার জন্যই এই পদক্ষেপ নেওয়া হয়।তবে এখনই সব ব্যবহারকারীদের জন্য এটি চালু করা হয়নি। কয়েকটি দেশের ব্যবহারকারীদের মধ্যে এই বিশেষ নিয়ম চালু করা হয়েছে। তার মধ্যে রয়েছে পেরু, চিলি এবং কোস্টারিকা। ধারণা করা হচ্ছে খুব শিগগির সব দেশের ব্যবহারকারীদের জন্যই চালু করা হবে এটি।আগে অনেক নেটফ্লিক্স ব্যবহারকারী সিঙ্গল ডিভাইস সাবক্রিপশন গ্রহণ করে একাধিক ব্যক্তির সঙ্গে তা শেয়ার করতেন। যার ফলে সিঙ্গল সাবক্রিপশনে একাধিক জন ওটিটি প্ল্যাটফর্মের কন্টেন্ট দেখার সুযোগ পায়। তবে নতুন নিয়ম অনুযায়ী, সিঙ্গল সাবক্রিপশনের আইডি এবং পাসওযার্ড কোনো দ্বিতীয় ব্যক্তির সঙ্গে শেয়ার করা যাবে না। শেয়ার করতে হলে অতিরিক্ত খরচ করতে হবে।যখনই নতুন কোনো ডিভাইস থেকে একই আইডি ও পাসওযার্ড দিয়ে লগইন হবে তখন তা বুঝতে পারবে নেটফ্লিক্স। এজন্য অতিরিক্ত চার্জ করবে তারা।

সূত্র: টেক ক্রাঞ্চ

৫০০ উদ্যোক্তাকে প্রশিক্ষণ দেবে সিস্টেমআই টেকনোলজিস
                                  

প্রযুক্তিসেবা প্রতিষ্ঠান সিস্টেমআই টেকনোলজিস লিমিটেড দীর্ঘদিন ধরে আইটি পণ্য সরবরাহ, সেবা ও প্রশিক্ষণ দিয়ে যাচ্ছে। প্রতিষ্ঠার পর থেকে তিন শতাধিক কর্পোরেট প্রতিষ্ঠানে আইটি সেবা দিয়েছে এবং নিয়মিত দিচ্ছে।

সম্প্রতি তারা সারাদেশের প্রত্যেকটি জেলার উপজেলা পর্যায়ে একজন করে উদ্যোক্তাকে ব্যবহারিক প্রশিক্ষণ প্রদান এবং ব্যবসা আরম্ভ করার যাবতীয় পরামর্শ ও সহযোগিতা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

এ ব্যাপারে প্রতিষ্ঠানটির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা রাসেল আহমেদ বলেন, আইটি সেবামূলক ব্যবসায় পুঁজির চেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ কাজের দক্ষতা, আন্তরিকতা ও নিয়মানুবর্তিতা। বর্তমান সময়ে শুধু পণ্য বিক্রি করে মুনাফা করার দিন শেষ হয়ে গেছে। এখন তথ্যপ্রযুক্তি পণ্য ব্যবসার সূত্র হচ্ছে পণ্য+দায়িত্বশীল সেবা=অধিক মুনাফা। তাই দক্ষ ও আন্তরিক সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠানের কদর দিন দিন বাড়ছে।

আপনি যদি একজন দক্ষ উদ্যোক্তা হতে আগ্রহী হোন এবং আপনার যদি স্বল্প পরিসরে বিনিয়োগ করার সক্ষমতা থাকে তাহলে সিস্টেমআইয়ের ওয়েবসাইটের মাধ্যমে প্রাথমিক রেজিস্টেশন করুন www.systemeye.net এই ঠিকানায়। প্রশিক্ষণের বিষয়: ডেস্কটপ ও ল্যাপটপ সার্ভিস, সিসিটিভি ও নেটওয়ার্ক সেটআপ, সেবামূলক প্রতিষ্ঠান পরিচালনার কৌশল, মার্কেটিং ও লিডারশিপ।

কিভাবে গ্রাহক সেবা প্রদান করতে হয়, সেবার মান উন্নয়নের মাধ্যমে একজন গ্রাহককে কিভাবে দীর্ঘ মেয়াদে ধরে রাখা যায়, প্রচারের মাধ্যমগুলো কি কি, আইটি ব্যবসার ঝুঁকিগুলো কি কি ইত্যাদি। প্রত্যেকটি উপজেলা থেকে একজন এবং মেট্রোপলটন এলাকায় প্রত্যেক থানায় একজন করে উদ্যোক্তা স্বল্প ফিতে এই বিশেষ প্রশিক্ষণ নিতে পারবেন বলে প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

তিন ঘণ্টায় বিশ্বের যে কোনো স্থানে!
                                  

এবার রীতিমতো অসম্ভবকে সম্ভব করার প্রকল্প হাতে নিয়েছে বিখ্যাত উড়োজাহাজ কোম্পানি বোয়িং। শব্দের চেয়ে ৫ গুণ দ্রুতবেগে চলতে সক্ষম বাণিজ্যিক বিমান তৈরির পরিকল্পনা হাতে নিয়েছে মার্কিন এই কোম্পানিটি।

বোয়িং জানিয়েছে, এই বিমানটি যাত্রীদের এক থেকে ৩ ঘনটার মধ্যে পৃথিবীর যেকোনো স্থানে নিয়ে যেতে সক্ষম হবে। মাত্র ২ ঘণ্টায় লন্ডন থেকে নিউইয়র্কে যেতে সক্ষম হবে এই আকাশযান। বর্তমানে এই দূরত্ব বিমানে ভ্রমণে সময় লাগে ৭ ঘণ্টা।

বিমান প্রস্ততকারক বিশ্বের বৃহত্তম এই সংস্থাটি জানিয়েছে, তাদের এই বিমান তৈরির প্রকল্প এখন পর্যন্ত প্রাথমিক পর্যায়ে রয়েছে। চূড়ান্ত সফলতা অর্জনের আগে প্রকৌশলীদের বেশ কিছু প্রযুক্তিগত বাঁধা অতিক্রম করতে হবে। শব্দের চেয়ে বেশি গতিতে চললে বেশ কিছু সমস্যার মুখোমুখি হতে হয়, যা দূর করতে হবে। কারণ, যাত্রীদের নিরাপত্তা যেকোনো সংস্থার কাছে বেশি গুরুত্বপূর্ণ। বোয়িং মুখপাত্র জ্যাকসন এই কথা জানিয়েছেন।
তিনি বলেছেন, এই স্বপ্ন পূরণে ২০ থেকে ৩০ বছর লাগতে পারে। তাই আগামী প্রজন্ম আকাশে ওড়ার এক নতুন অভিজ্ঞতা লাভ করতে পারবে। তিনি আরো বলেন, নতুন কিছু নির্মাণে বছরের পর বছর লেগে যায়।

প্রচণ্ড গতিসম্পন্ন এই বিমান তৈরির ব্যাপারে বোয়িং ভীষণ আগ্রহী এবং দীর্ঘদিন ধরে তারা এই পরীক্ষা চালাচ্ছে। বছরের শুরুতে বোয়িং স্বচালিত হাইপারসনিক ড্রোনের একটি নকশা অবমুক্ত করে যা সামরিক কাজে ব্যবহার সম্ভব। বাজারে আসার আগে এই বাণিজ্যিক বিমান যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক বাহিনীতে ব্যবহৃত হতে পারে।

বোয়িং জানায়, চূড়ান্ত সফলতা অর্জনের পর তাদের বিমান ঘণ্টায় ৬ হাজার কিলোমিটারের বেশি গতিতে চলতে সক্ষম হবে। তবে বোয়িং ছাড়াও আরো একাধিক কোম্পানি হাইপারসনিক বিমান তৈরির কাজে হাত দিয়েছে। এদের মধ্যে আছে লকহিড মার্টিন এবং এরিওন করপোরেশন। অন্যদিকে স্পেসএক্স এর কর্ণধার এলন মাস্ক বলেছেন, তার প্রতিষ্ঠান এমন বিমান তৈরির গবেষণা করছে যা আধা ঘণ্টায় নিউইয়র্ক থেকে সাংহাই (প্রায় ১২ হাজার কিলোমিটার) পৌঁছে যেতে পারবে!-সিএনএন।

বাংলাদেশে মোবাইল ব্যবহারকারী ১৫ কোটির বেশি
                                  

বাংলাদেশে মোবাইল সংযোগকারীর সংখ্যা গত মে মাস পর্যন্ত ১৫ কোটি ৭ লাখ ২০ হাজার। মার্চ মাস শেষে গ্রাহক সংখ্যা ছিল ১৫ কোটি ৩ লাখ ৩০ হাজার। এমন তথ্য জানায়, বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি)।

বিটিআরসির পরিসংখ্যান অনুযায়ী মে মাসের শেষে দেশের সবচেয়ে বড় অপারেটর গ্রামীণ ফোনের গ্রাহক সংখ্যা ৬ কোটি ৮৬ লাখ ৯০ হাজার। বাংলালিংকের ৩ কোটি ৩৩ লাখ ৪০ হাজার। রবির ৪ কোটি ৫০ লাখ ২০ হাজার। রাষ্ট্রায়ত্ত মোবাইল অপারেটর টেলিটকের গ্রাহক সংখ্যা দাঁড়ায় ৩৭ লাখ ৫০ হাজার।

স্মার্টফোন বিস্ফোরণে নিহত মালয়েশিয়ার ক্রেডল ফান্ডের প্রধান নির্বাহী
                                  

ডিটিভি বাংলা নিউজঃ
নিজের শোবার ঘরে স্মার্টফোন বিস্ফোরণে নিহত হয়েছেন মালয়েশিয়ার ক্রেডল ফান্ডের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা নাজরিন হাসান। বৃহস্পতিবার নিউইয়র্ক পোস্টের প্রতিবেদনে এ কথা জানানো হয়।
নিউ ইয়র্ক পোস্টের খবরে বলা হয়, কয়েক দিন আগে নাজরিন তার শোবার ঘরে দুটি স্মার্টফোন চার্জ দিচ্ছিলেন। এর মধ্যে একটি স্মার্টফোন বিস্ফোরণে তিনি মারা যান।
হাসানের আত্মীয়দের বরাত দিয়ে খবরে বলা হয়, ব্ল্যাকবেরি ও হুয়াওয়ের স্মার্টফোন চার্জে দিয়েছিলেন হাসান। তবে কোন ফোনটি বিস্ফোরিত হয়েছে, তা জানা যায়নি।
বিস্ফোরণের পর বিছানায় আগুন লেগে যায় এবং বিস্ফোরিত ফোনের ভাঙা অংশ হাসানের মাথার পেছনের দিকে লাগে এবং তিনি অচেতন হয়ে পড়েন। একপর্যায়ে
পুরো ঘরে আগুন ধরে যায়।
দেশটির পুলিশ জানিয়েছে, আগুনের ধোঁয়ায় দম বন্ধ হয়ে মারা যান হাসান। বিস্ফোরণে আহত হওয়ার পাশাপাশি তার সারা শরীর পুড়ে গিয়েছিল। ক্রেডল ফান্ডের এক বিবৃতিতে জানানো হয়, পাশে থাকা মোবাইল বিস্ফোরণ থেকে আহত হয়ে মারা গেছেন হাসান।
ক্রেডল ফান্ড হল মালয়েশিয়ার অর্থ মন্ত্রণালয়ের অধীনে পরিচালিত একটি কর্মসূচি যা প্রযুক্তি উদ্যোক্তাদের তহবিল জোগাতে কাজ করে।

কম্পিউটার পণ্যের উপর ভ্যাট প্রত্যাহারের দাবি
                                  

২০১৮-১৯ সালের প্রস্তাবিত বাজেট পাশ হলে কম্পিউটার ও এর যন্ত্রাংশের মূল্য প্রায় ১১% বাড়বে বলে অভিযোগ করেছে বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতির নেতারা। দাম বাড়লে প্রধানমন্ত্রীর ঘোষিত ডিজিটাল বাংলাদেশের অগ্রগতি অনেকাংশে থমকে যাবে। এজন্য প্রস্তাবিত কম্পিউটারের উৎপাদন, আমদানি এবং বিপণন পর্যায়ে অ্যাডভান্স ট্রেড ভ্যাট (এটিভি) এবং ভ্যাট প্রত্যাহারের আহ্বান জানান ।
রাজধানী ঢাকায় বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতির কার্যালয়ে রবিবার দুপুরে এক সংবাদ সম্মেলনে সংগঠনটির পক্ষ থেকে ব্যবসায়ী পর্যায়ে কম্পিউটার ও এর যন্ত্রাংশের মূসক অব্যহতি বহাল রাখার আহ্বান জানানো হয়।
সংবাদ সম্মেলনে ইঞ্জিনিয়ার সুব্রত সরকার বলেন, ২০১৮-২০১৯ অর্থ বছরের প্রস্তাবিত বাজেট তথ্যপ্রযুক্তি শিল্পের জাতীয় সংগঠন বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতি (বিসিএস) যথাযথ গুরুত্ব ও আগ্রহের সঙ্গে পর্যালোচনা করেছে। এতে কিছু সংশোধনী আনার জন্য অর্থমন্ত্রী, জাতীয় রাজস্ব বোর্ডসহ সংশ্লিষ্ট সকল মহলের প্রতি দৃষ্টি আকর্ষণ করছি।
তিনি বলেন, বিসিএসের সংশোধনী প্রস্তাবগুলো হলো-ব্যবসায়ী পর্যায়ে কম্পিউটার ও এর যন্ত্রাংশের মূসক অব্যহতি বহাল রাখা। নতুন করে আরোপিত কম্পিউটার পণ্যের উপর এটিভি প্রত্যাহার করা এবং তথ্য প্রযুক্তি নির্ভর সেবার সংজ্ঞায় হার্ডওয়্যারকেও অন্তর্ভুক্তিতকরণ।
সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন বিসিএসের সহ-সভাপতি ইউসুফ আলী শামীম, মহাসচিব মোশারফ হোসেন সুমন, কোষাধ্যক্ষ মো. জাবেদুর রহমান শাহীন, পরিচালক মো. আছাব উল্লাহ খান জুয়েল এবং মো. মোস্তাফিজুর রহমান।

বছরের সেরা স্মার্ট স্পিকার
                                  

ডিটিভি বাংলা নিউজঃ
প্রযুক্তি ব্যবহারের সঙ্গে সঙ্গে আমাদের জীবন যাত্রার মান উন্নত হচ্ছে। স্মার্ট ডিভাইস ব্যবহারের প্রবণতা দিন দিন বেড়েই চলেছে। আমাদের দৈনন্দিন কাজকে আরো সহজ করতে এই ডিভাইসগুলো যেমন ভূমিকা রাখছে ঠিক তেমনি এগুলো ব্যবহারে সহজ ও নির্ভরযোগ্য হওয়াতে জনপ্রিয়ও হচ্ছে। স্মার্টফোন, স্মার্ট টেলিভিশন, স্মার্ট সিকিউরিটি ও স্মার্ট ডিভাইস এগুলোর মধ্যে অন্যতম। আমাদের এবারের আয়োজন স্মার্ট স্পিকার নিয়ে।

স্মার্ট স্পিকার আপনার নতুন সহকারী

আমাদের বসবাসরত ঘর-বাড়িগুলো আরো স্মার্ট হয়ে উঠেছে। অ্যালেক্সা, গুগল, সিরি স্মার্ট স্পিকারগুলো দৈনন্দিন কাজের সহকারী হিসেবে কাজ করছে। সময় সেট করা, শিশুদের শিক্ষাদানে সহায়তা করা, মিউজিক প্লে করাসহ আমাদের অনেক কাজে সহকারী হিসেবে কাজ করছে এই স্মার্ট স্পিকারগুলো। আপনি যদি ভয়েসের সহায়তার কোনো প্লাটফর্মের কথা বিবেচনা করে থাকেন তাহলে আপনি এগুলোকে বাছাই করতে পারেন। এর আগে যদি আপনি কোনো সহকারীর সাহায্য নিতে গিয়ে ব্যর্থ হয়ে থাকেন এবং আপনি আপনার একধিক কক্ষে স্মার্ট সহায়তা চাচ্ছেন তাহলে একটি মাত্র ডিভাইস দিয়েই তা সম্ভব। আপনি এই ডিভাইসের প্রতি আস্থা রাখতে পারেন। অন্যান্য ডিভাইসগুলোর পাশাপাশি স্মার্ট স্পিকার আপনার চাহিদা পূরণে যথার্থই কাজ করবে। এক কথায় বলা যায় এটি আপনার বাসার জন্য উপযুক্ত একটি ডিভাইস। ভয়েস সহায়ক ডিভাইসের উদ্ভব মূলত দুইটি স্থান থেকে হয়েছে কিন্তু এখন তারা একত্রিত হয়ে কাজ করছে। আমাজনের অ্যালেক্সা ইকো ভয়েস কন্ট্রোল ডিভাইসের ধারণা চালু করেছে। পরবর্তীতে এটিকে আমাজন ফায়ার টিভিতে যুক্ত করা হয়েছে এবং অন্যান্য কোম্পানিও এটিকে বিভিন্ন ডিভাইসের সঙ্গে যুক্ত করতে শুরু করেছে। আমাজনের এই প্রযুক্তিটি প্রথমে স্মার্ট স্পিকারে যুক্ত হয়েছে এবং পরর্তীতে বিভিন্ন কোম্পানি তাদের বিভিন্ন ধরনের ডিভাইসের সঙ্গে এই প্রযুক্তি যুক্ত করেছে। বর্তমানে ঘরে থাকা লাইট, ফ্যান এমনকি রুমের তাপমাত্রাও জানা যায় এই প্রযুক্তি ব্যবহার করে। অন্যদিকে অ্যাপলের তাদের সহকারী তাদের অ্যান্ড্রয়েড ও আইফোনে প্রথম চালু করে ভয়েস ডাবিং ফিচার। পরবর্তীতে এই প্রযুক্তির মাধ্যমে কল করা, মিউজিক প্লে করা, এসএমএস এর রিপ্লে দেয়া, বাসা/ অফিস/ গাড়ির তাপমাত্র জানার সুবিধা চালু করে। গুগলের তুলনায় অ্যাপল এই প্রযুক্তি ব্যবহার করে স্মার্ট টেলিভিশন ও স্মার্ট স্পিকারের মাধ্যমে মানুষের বাসা পর্যন্ত পৌঁছেছে।
গুগল সহকারী, সিরি ও মাইক্রোসফটের করটানার চেয়ে বর্তমানে আমরা অ্যালেক্সাকে বেশি পছন্দ করি। যদি আমরা কোনো ভালো স্মার্ট সলিউশনের কথা চিন্তা করি তাহলে আমাজনের ইকো এবং স্নোজকে বেছে নিতে পারি। তারা অ্যালেক্সার প্রযুক্তি ব্যবহার করছে। স্নোজ আগামীতে গুগল সহকারীকে তাদের সঙ্গে যুক্ত করার কথা ভাবছে।
ভয়েস সহায়ক তিনটি ডিভাইস
বর্তমানে তিনটি ভয়েস কন্ট্রোল ডিভাইসের জনপ্রিয়তা রয়েছে। এর মধ্যে গুগল সহকারী প্রথম পছন্দের তালিকায় রয়েছে। প্রতিটি স্মার্ট স্পিকারের সাথে তারা বাসার অন্যান্য ডিভাইসগুলো কন্ট্রোল করে এবং হাজার হাজার ডিভাইসে এই প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয়ে থাকে। সিরি’র নিয়ন্ত্রণ কিছুটা সীমাবদ্ধ। সিরি নিদৃষ্ট সংখ্যক স্মার্টফোনে ও হোম এন্টারপ্রাইজে এবং স্মার্ট স্পিকারে কাজ করে। অন্যদিকে অ্যালেক্সা ও গুগল সহকারী এই কাজগুলোতে আরো বেশি সক্ষম। আপনার বাসা বাড়িকে স্মার্ট করতে হলে অ্যাপলের হোম কিটস এর সহায়তা নিতে হবে। অন্যদিকে করতানারও কার্য ক্ষমতা সীমিত। এছাড়াও অনেক ছোট ছোট সহরাকারী রয়েছে। যেমন ধরুন- স্যামসাং গ্যালাক্সি স্মার্টফোনে বিক্সবি প্রযুক্তি রয়েছে। এটি একটি স্মার্টফোনের জন্য যথেষ্ট হলেও একটি বাড়ি নিয়ন্ত্রণের ক্ষেত্রে যথেষ্ট নয়।

ডিভাইসের বৈচিত্র

কক্ষ অনুযায়ী বিভিন্ন ধরনের স্মার্ট সহকারী ডিভাইসের প্রয়োজন রয়েছে। লিভিং রুমের জন্য আমাজনের বড় স্মার্ট স্পিকার বা স্নোজ শুধু সঙ্গীত বাজানোর কাজে ব্যবহার হতে পারে কিন্তু রান্না ঘরের জন্য এটি মোটেও মানানসই নয়। আমাজন ফায়ার টিভি ও টিভি প্রযুক্তিকে প্রকৃতপক্ষে অ্যালেক্সা প্রযুক্তির টেলিভিশন বলে। ট্রিবি থেকে আই অ্যালার্ম ঘড়ি পর্যন্ত প্রায় আধা ডজন স্পিকার নির্মাতা কোম্পানি অ্যালেক্সা প্রযুক্তিকে তাদের সঙ্গে নিয়েছে। গুগলের গুগল হোম মিনি, গুগল হোম এবং গুগল হোম ম্যাক্স এর মতো সনি, স্নোজ এবং জেবিএল এর তৃতীয় পক্ষের স্মার্ট স্পিকার রয়েছে। যদি আপনি স্মার্ট ডিভাইসের সঙ্গে একটি ডিসপ্লে চান তাহলে গুগলের স্মার্ট টেলিভিশন বেছে নিতে পারেন। এছাড়াও যেকোনো অ্যান্ড্রয়েড পরিচালিত টিভি থেকে এই সুবিধাটি ভোগ করতে পারেন। সিরি অ্যাপলের হোমপড এবং অ্যাপলের টিভি ডিভাইস, আইফোন, আইপ্যাডসহ ম্যাক কম্পিউটারে সমার্থন করে।

হোম ম্যানেজমেন্ট স্মার্ট স্পিকার

অ্যালেক্সা, গুগল সহকারী ও সিরি স্মার্ট হোম ডিভাইসগুলোকে নিয়ন্ত্রণ করতে সক্ষম। গুগল ও অ্যালেক্সা অ্যাপের মাধ্যমে আপনি আপনার বিভিন্ন কক্ষের এমনকি বাড়ির অনেক সুবিধা পেতে পারেন। যেমন ধরুন- আপনি সেট করে রাখতে পারেন যখন আপনি বাড়িটি ছেড়ে চলে যাবেন। আমাজন ইকো প্লাসে গিগবি রেডিও প্রযুক্তি সংযুক্ত করা হয়েছে। এই প্রযুক্তির মাধ্যমে এটি একটি স্মার্ট হাবে পরিনত হয়েছে। অন্যদিকে অ্যালেক্সা অ্যাপ্লিকেশনের মাধ্যমে স্মার্ট হাব তৈরির পাশাপাশি আপনার গৃহে থাকা ফিলিপস বাল্ব এর উজ্জলতা কমাতে বা বাড়াতে পারবেন। শুধু তাই নয়, এই অ্যাপের মাধ্যমে লাইট কন্ট্রোল ও গ্রুপ আকারে কমাতে বাড়াতে পারবেন।

মিউজিকে স্মার্ট স্পিকার

আপনি এই ধরনের স্পিকার দিয়ে সঙ্গীত বাজাতে চাচ্ছেন? আমাজন ইকো ও গুগল হোম উভয়েই অডিও ডিভাইস। উন্নতমানের শব্দ পেতে পারেন ভয়েস অ্যানাবেল স্নোজ, হারমান সনি অথবা জেবিএল স্পিকারের মাধ্যমে। গুগল হোম মিনি বা আমাজন ইকো ডট হতেপারে আপনার পছন্দের সস্তার একটি স্পিকার। ইকো ডটে একটি ৩.৫ মিলিমিটার অডিও আউটপুট রয়েছে। প্রত্যেকটি স্মার্ট স্পিকার দ্বারা মোবাইল ফোনের মাধ্যমে সঙ্গীত বাজাতে পারবেন কিন্তু সবগুলো স্মার্ট স্পিকার থেকে ক্লাউড সেবা পাবেন না। অ্যালেক্সা ও গুগল সহকারী উভয়ই স্পটিফাইয়ের সঙ্গে সংযুক্ত।এছাড়াও পানডোরা, টিউনইন এবং আইহার্ট রেডিও থেকে ফ্রি সার্ভিস পেতে পারেন। অ্যালেক্সা স্পিকার এছাড়াও আজান মিউজিক সাপোর্ট করে। গুগলের সহকারী স্পিকার গুগল-প্লে ও ইউটিউব রেড মিউজিক ছাড়াও গুগল মিউজিক লাইব্রেরিতে থাকা মিউজিক সমর্থন করে। করতানা স্পটিফাই প্রিমিয়াম, টিউনইন, আইহার্টরেডিও সমর্থন করলেও পানডোরা সমর্থন করে না। সিরি হোমপডে থাকা এবং অ্যাপল মিউজিক ও আইক্লাউড মিউজিক লাইব্রেবি থেকে গান বাজাতে সক্ষম। মাল্টি রুম অডিও পরিচালনার ক্ষেত্রে অ্যালেক্সা সেরা। আমাজনের ইএসপি’র বৈশিষ্ট হচ্ছে এগুলো শুধু নিকটবর্তী স্পিকারগুলোকে সাড়া দেয় এবং আপনাকে আপনার বাড়ির সীমানায় গান বাজাতে সাহায্য করে। গুগল হোম মাল্টি অডিও সমর্থন করে। আপনার রুমে যদি একাধিক অডিও সিস্টেম থেকে থাকে ও একাধিক গুগল অ্যাকাউন্ট থেকে থাকে তাহলে আপনি কোনটির সহায়তা নিবেন তা চিহ্নিত করে ‘ওকে গুগল’ বললেই তা চালু হয়ে যাবে। এটি আসলেই চমত্কার বিষয়। সিরি মাল্টি রুম অডিও সমর্থন করে না তবে আগামীতে এই সুবিধা চালু হবে। এছাড়াও মোবাইলে কল করা, শিশুদের লেখাপড়ায় সহায়ক, অ্যালার্মসহ আরো অনেক সহযোগীতা পেতে পারেন স্মার্ট স্পিকার থেকে।

দেশে প্রথমবারের মতো অনলাইনে ছবি প্রদর্শনী করতে যাচ্ছে ৭১পিক্স ডটকম
                                  

ডিটিভি বাংলা নিউজঃ
২০১৩ সাল থেকে বাংলাদেশের শীর্ষস্থানীয় অনলাইন সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান অরেঞ্জ বিডি লিমিটেড পরিচালিত দেশের প্রথম ফটোগ্রাফি ই-কমার্স সাইট 71Pix.com এর যাত্রা শুরু। প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে হাঁটি হাঁটি পা পা করে নবীন-প্রবীণ আলোকচিত্র শিল্পীদের সঙ্গে নিয়ে এগিয়ে চলছে 71Pix.com।
ইতিমধ্যে 71Pix.com এর অধীনে রাজধানীর ধানমন্ডির দৃক গ্যালারিতে ২০১৫ সালে তিন দিনব্যাপী ‘ট্যাম্পল অফ মাইন্ড’ এবং ২০১৬ সালে ‘ওয়ার্ডস অফ লাইট’ শিরোনামে আলোকচিত্র প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়। তারই ধারাবাহিকতায় চলতি বছরের ১৯-২১ জুলাই পর্যন্ত তিন দিনব্যাপী রাজধানীর ধানমন্ডির দৃক গ্যালারিতে আয়োজন করতে যাচ্ছে ‘ওয়ার্ডস অফ লাইট-২’ শিরোনামে আলোকচিত্র প্রদর্শনী। আলোকচিত্র প্রদর্শনীতে ‘সিঙ্গেল ফটো’ এবং ‘ফটো স্টোরি’ বিভাগের ছবি প্রদর্শিত হবে। এবার প্রতিযোগিতায় ছয়টি ক্যাটাগরি থেকে বিজয়ীদের ৬২ হাজার টাকা মূল্যের পুরস্কার প্রদান করা হবে।
দৃক গ্যালারিতে প্রদর্শিত আলোকচিত্রগুলো একই সময়ে 71Pix.com এর সাইটও (www.71pix.com) প্রদর্শিত হবে যা বাংলাদেশে এই প্রথম। এছাড়া আলোকচিত্রীরা প্রথমবারের মতন 71pix.com পোর্টালের মাধ্যমে ১লা জুন থেকে ৩০ জুন, ২০১৮ পর্যন্ত ছবি জমা দিতে পারবেন। এর মাধ্যমে প্রত্যেক আলোকচিত্রী তাদের ছবির একটি ভার্চুয়াল গ্যালারি পাচ্ছেন। প্রদর্শনীতে অংশ নিতে আগ্রহীরা ভিজিট করুন www.71pix.com এর সাইটে।
অনলাইনে আলোকচিত্র প্রদর্শনী সম্পর্কে অরেঞ্জ বিডি লিমিটেড এর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আল আশরাফুল কবীর জুয়েল বলেন, ইতিমধ্যে বাংলাদেশে আলোকচিত্র শিল্প একটি প্রাতিষ্ঠানিক রূপ পেয়েছে। 71Pix.com এর লক্ষ্য এই প্রাতিষ্ঠানিক শিল্পটিকে ডিজিটাল রূপ দেয়া। আমাদের সাইটে প্রতিটা ফটোগ্রাফার ফটো স্টোরেজ সার্ভিস ফ্রি পাচ্ছেন।
তিনি আরো বলেন, এই সাইটে একজন ফটোগ্রাফার পোর্টফোলিও, গ্রুপ, ইভেন্ট, এক্সিবিশন, কনটেস্ট তৈরিসহ বিভিন্ন ফিচারের সুবিধা পাচ্ছেন। দেশি-বিদেশি স্বনামধন্য আলোকচিত্রীদের আলোকচিত্র দেখার সুযোগ থাকছে। আর নিজের ছবি বিক্রি করার সুবিধা তো থাকছেই।
এবাবের ২০১৮ এর আলোকচিত্র প্রতিযোগিতায় বিচারক হিসাবে থাকছেন দেশের খ্যাতনামা আলোকচিত্র শিল্পী আবির আব্দুল্লাহ ও তানভীর মুরাদ তপু।

স্মার্টফোন দেখভালের পদ্ধতি
                                  

ডিটিভি বাংলা নিউজঃ
বর্তমানে আমরা প্রায় সকলেই স্মার্টফোন ব্যবহার করে থাকি। বিভিন্ন ব্র্যান্ডের স্মার্টফোনগুলোর অপারেটিং সিস্টেম বিভিন্ন রকম। তবে চায়না ভিত্তিক স্মার্টফোনগুলোর অপারেটিং সিস্টেম প্রায় একই রকম। বাহারী ডিজাই দেখে অনেকেই স্মার্টফোন কিনে থাকেন। বেশিরভাগ স্মার্টফোন ব্যবহারকারীরাই জানেন না যে, কীভাবে একটি স্মার্টফোন দেখভাল করলে স্বভাবিক ব্যবহারের চেয়ে ভালো ফলাফল পাওয়া যায়। পাঠকদের সুবিধার্থে আমাদের এবারের ক্ষুদ্র আয়োজন কীভাবে দেখভাল করলে স্মার্টফোনটির ভালো সার্ভিস পাওয়া যাবে তা নিয়ে। আপডেট করুন: ‘আপডেট’ এর অর্থই হচ্ছে আগের তুলনায় নতুন কিছু সুবিধা যোগ করা। আর, ফার্মওয়্যার আপডেটের মাধ্যমে স্মার্টফোন ছাড়াও প্রতিটি ডিভাইসেরই কম-বেশি ক্যাপাবিলিটি বৃদ্ধি পেয়ে থাকে। অনেক সময় হয়ত সেই পরিবর্তন আপনার চোখে পরবে না তবে এমন অনেক ত্রুটি মুক্ত করার জন্য স্মার্টফোনের ফার্মওয়্যার আপডেট করা জরুরি।
স্মার্টফোনটি রিসেট দিন: আপনার ব্যবহৃত স্মার্টফোনটি মাঝে মাঝে রিসেট করুন। এত আপনার স্মার্টফোনের সেটিংটি নতুন করে সেট হবে এবং কোনো অপশন হারিয়ে গেয়ে তা পুনরায় ফিরে আসবে। ‘ফ্যাক্টোরি রিসেট’ এর ফলে আপনার স্মার্ট ফোনের যাবতীয় তথ্য মুছে যাবে এজন্য প্রয়োজন হলে রিসেট এর আগে আপনার তথ্যগুলো আলাদা কারে সংরক্ষণ করে নিতে পারেন। স্টোরেজ চেক করুন:প্রতিটি স্মার্টফোনেই নির্ধারিত পরিমানে স্টোরেজ ক্যাপাসিটি থাকে। এই ক্যাপাসিটি পূর্ণ হলে ফোনের গতি কমে আসে।
এজন্য, আপনি মাঝে মাঝে আপনার ফোনে অব্যবহূত গেমস, অ্যাপলিকেশন, মিডিয়া ফাইলগুলো এক্সটারনাল মেমোরিতে স্থানান্তর করতে পারেন।এতে আপনার ফোনের গতি অনেক বেড়ে যাবে। অপ্রয়োজনীয় অ্যাপলিকেশনগুলো মুছে ফেলুন: অনেক সময় আমারা ফেসবুক প্রোমোশন বা গুগল-প্লে স্টোর থেকে অজান্তেই ইনস্টল করি অপ্রোয়জনীয় অনেক অ্যাপস। অনেক বেশি অ্যাপস ইনস্টল করলে স্মার্টফোনের র্যাম ও স্টোরেজ দুইটাই অধিক পরিমানে ব্লক হয়ে থাকে। র‌্যাম যত বেশি ফ্রি রাখতে পারবেন ততোই আপনার স্মার্টফোনটি ফ্রি থাকবে এবং গতি বেশি থাকবে। এজন্য অব্যবহৃত অ্যাপগুলো খুব দ্রুত রিমুভ করে ফেলুন। স্মার্ট ফোনটি রিস্টার্ট করুন: আমরা সাধারণত ডেক্সটপ বা ল্যপটপ ব্যবহার করলে তা মাঝে মাঝে রিস্টার্ট দিই। এই রিস্টার্ট এর ফলে ডেক্সটপ বা ল্যাপটপে গতি ফিরে আসে। স্মার্টফোনের বেলাতেও ঠিক একই পদ্ধতি অবলম্বন করলে এতেই পেতে পারেন অনেক বেশি গতি। যদিও, এই ট্রিকসটি একটি টেম্পোরারি অপশন, তবুও এটা বেশ কাজ করে।

চারদিনব্যাপী জাতীয় শিশু-কিশোর প্রোগ্রামিং প্রতিযোগিতার ক্যাম্প শুরু
                                  

ডিটিভি বাংলা নিউজঃ
স্কুল পর্যায়ে বাংলাদেশের সর্ববৃহৎ প্রোগ্রাম প্রতিযোগিতার জাতীয় ক্যাম্পেইন শুরু হলো আজ বৃহস্পতিবার। সাভারে শেখ হাসিনা জাতীয় যুব কেন্দ্রে চারদিনব্যাপী জাতীয় শিশু-কিশোর প্রোগ্রামিং প্রতিযোগিতার শেষ পর্ব চলবে ১০ জুন পর্যন্ত। এই চারদিন প্রশিক্ষণ ও প্রতিযোগিতায় মেতে থাকবে সারাদেশ থেকে আগত ১৮৩ ক্ষুদে প্রোগ্রামার।
ইয়াং বাংলার সেক্রেটারিয়েট সেন্টার ফর রিসার্চ অ্যান্ড ইনফরমেশন (সিআরআই)-এর সহকারী সমন্বয়ক তন্ময় আহমেদ জানান, সারাদেশ ৬৪ জেলা থেকে বাছাই শেষে স্ক্র্যাচ প্রোগ্রামিংয়ে ৫৫ জন উত্তীর্ণ হয়ে ঢাকায় এসেছেন। অন্যদিকে পাইথন প্রোগ্রামিংয়ে উত্তীর্ণ হয়েছেন ১২৮ জন প্রতিযোগী।
তিনি আরো জানান, ৭ জুন থেকে শুরু হওয়া এই কার্যক্রমের প্রথম দিন সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত স্ক্র্যাচ প্রোগ্রামে উত্তীর্ণদের নিয়ে ক্যাম্পের আয়োজন করা হয়েছে। সেখানে তাদের স্ক্র্যাচ প্রোগ্রামিংয়ে আরো দক্ষ করে গড়ে তোলা হবে। এই ক্যাম্পের মাধ্যমে দক্ষতা অর্জন করে আগামীকাল (৮ জুন) স্ক্র্যাচ প্রোগ্রামিংয়ে তাদের প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হবে।
একইভাবে ৯ জুন পাইথন প্রোগ্রামিংয়ের ওপর প্রশিক্ষণ ক্যাম্পের আয়োজন করা হবে এবং ১০ জুন ১২৮ জন প্রতিযোগী শেষ লড়াইয়ে নামবেন বলে জানান তন্ময় আহমেদ।
স্ক্র্যাচ একটি ভিজুয়াল প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ এবং অনলাইন কমিউনিটি যা মূলতঃ শিশুদের জন্য। স্ক্র্যাচ ব্যবহার করে ব্যবহারকারীরা নিজস্ব ইন্টারেক্টিভ গল্প, গেমস এবং অ্যানিমেশন তৈরি করে একে অপরের সঙ্গে শেয়ার করতে পারে। পাইথন প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ একটা ডাইনামিক প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ যা বর্তমান বিশ্বে অত্যন্ত জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে।
জাতীয় শিশু-কিশোর প্রোগ্রামিং প্রতিযোগিতা উপলক্ষে চলতি বছর ১৬ ও ১৭ এপ্রিল বাংলাদেশ কৃষিবিদ ইন্সটিটিউটে দুই দিনব্যাপী প্রশিক্ষণের আয়োজন করা হয়। সারাদেশে ১৮০টি শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাব সংশ্লিষ্ট স্কুল বা কলেজে কর্মরত ৩৬০ জন আইসিটি শিক্ষক এবং শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাবের কো-অর্ডিনেটরেরা এই প্রশিক্ষণে অংশ নেন। এরপর নিজ নিজ জেলা গিয়ে তারা গত ১২ মে থেকে ৩০ মে পর্যন্ত নিজ নিজ কর্মস্থান সংশ্লিষ্ট শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাবে ঐ অঞ্চলের স্কুলগুলো থেকে বাছাই করে নিয়ে আসা শিক্ষার্থীদের পাইথন ও স্ক্র্যাচ প্রোগ্রামিংয়ের প্রশিক্ষণ প্রদান করেন।
এরপর জেলা পর্যায়ে প্রাথমিক বাছাই শেষে স্ক্র্যাচ প্রোগ্রামিং প্রতিযোগিতায় ২ হাজার ৭০০ জন এবং পাইথনে ২ হাজার ৭০০ জন অংশগ্রহণ করে। স্ক্র্যাচ প্রোগ্রামিং প্রতিযোগিতাটিতে প্রতি তিনজন শিক্ষার্থী একটি টিম হিসেবে এবং পাইথনে প্রতিজন শিক্ষার্থী এককভাবে অংশগ্রহণ করে।
শিক্ষার্থীদের ল্যাব প্রশিক্ষণ শেষে ২ জুন এবং ৩ জুন জেলা পর্যায়ে স্ক্র্যাচ ও পাইথন প্রতিযোগিতা সম্পন্ন হয়। জেলাভিত্তিক প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের নিয়ে পরবর্তীতে ঢাকায় দুই দিনব্যাপী ‘স্ক্র্যাচ ভিত্তিক জাতীয় ক্যাম্প’ এবং দুই দিনের ‘পাইথন ভিত্তিক জাতীয় ক্যাম্প’ শুরু হলো আজ থেকে।
এই জাতীয় প্রতিযোগিতায় প্রাপ্ত প্কাল্পগুলোর মধ্যে থেকে সেরা প্রকল্পগুলোকে সমাপনী এবং পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে উপস্থাপন করা হবে।

ফেসবুক, হোয়্যাটসঅ্যাপ ব্যবহার করলে কর দিতে হবে
                                  

ডিটিভি বাংলা নিউজঃ
ফেসবুক, হোয়্যাটসঅ্যাপ ব্যবহার করতে গেলে সরকারকে কর দিতে হবে। এমনই বিচিত্র আইন জারি করেছে উগান্ডার সরকার। গুজব ছড়ানো ঠেকাতে এই উদ্যোগ নেয়া হয়েছে বলে প্রশাসনের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।
১ জুলাই থেকে এই আইন কার্যকর হওয়ার কথা। কিন্তু এই আইনকে কেন্দ্র করে ইতিমধ্যেই এতো বিভ্রান্তি ছড়িয়ে পড়েছে যে, আদৌ এই আইন কার্যকর করা হবে কি না, সেটা নিয়েই সন্দেহ রয়েছে। এর আগে মোবাইলে অর্থের লেনদেনের ওপরে সরকার ১ শতাংশ কর বসানোয় সেটা নিয়েও ক্ষোভ দেখা দিয়েছিল সেদেশের সরকারের ওপরে।
এদিকে সরকারের দাবি, তাদের ওপরে যে বিপুল পরিমাণ বিদেশি ঋণ রয়েছে, তা কমাতেই এই সিদ্ধান্ত। দেশের তথ্যপ্রযুক্তি বিশেষজ্ঞরা এবং ইন্টারনেস পরিষেবা প্রদানকারী সংস্থাদের সংস্থা ইতিমধ্যেই সন্দেহপ্রকাশ করেছে, এই আইনে কীভাবে ঋণশোধ করা সম্ভব হবে। কারণ উগান্ডার মতো দেশে ভুয়ো নথি দিয়ে হাজারহাজার সিমকার্ড নথিভুক্ত করা রয়েছে।
উগান্ডায় ২ কোটি ৩৬ লাখ মানুষ মোবাইল পরিষেবা ব্যবহার করেন। তার মধ্যে ১ কোটি ৭০ লাখ মানুষ মোবাইল ফোনে ইন্টারনেট পরিষেবা ব্যবহার করেন।


   Page 1 of 8
     তথ্য প্রযুক্তি
জমে উঠেছে বাগআঁচড়া সাতমাইল পশুর হাট
.............................................................................................
পুতিনকে পাল্টা জবাব দিলেন ওয়াগনার প্রধান: কোন পথে রাশিয়া?
.............................................................................................
স্পিকারের সঙ্গে জাতিসংঘের আন্ডার সেক্রেটারি জেনারেলের সাক্ষাৎ
.............................................................................................
স্পিকারের সঙ্গে জাতিসংঘের আন্ডার সেক্রেটারি জেনারেলের সাক্ষাৎ
.............................................................................................
যেভাবে বানানো হবে বিশ্বের বৃহত্তম ভাসমান-চলমান শহর
.............................................................................................
আবার পাসওয়ার্ড শেয়ারিংয়ের সুযোগ দিচ্ছে নেটফ্লিক্স
.............................................................................................
৫০০ উদ্যোক্তাকে প্রশিক্ষণ দেবে সিস্টেমআই টেকনোলজিস
.............................................................................................
তিন ঘণ্টায় বিশ্বের যে কোনো স্থানে!
.............................................................................................
বাংলাদেশে মোবাইল ব্যবহারকারী ১৫ কোটির বেশি
.............................................................................................
স্মার্টফোন বিস্ফোরণে নিহত মালয়েশিয়ার ক্রেডল ফান্ডের প্রধান নির্বাহী
.............................................................................................
কম্পিউটার পণ্যের উপর ভ্যাট প্রত্যাহারের দাবি
.............................................................................................
বছরের সেরা স্মার্ট স্পিকার
.............................................................................................
দেশে প্রথমবারের মতো অনলাইনে ছবি প্রদর্শনী করতে যাচ্ছে ৭১পিক্স ডটকম
.............................................................................................
স্মার্টফোন দেখভালের পদ্ধতি
.............................................................................................
চারদিনব্যাপী জাতীয় শিশু-কিশোর প্রোগ্রামিং প্রতিযোগিতার ক্যাম্প শুরু
.............................................................................................
ফেসবুক, হোয়্যাটসঅ্যাপ ব্যবহার করলে কর দিতে হবে
.............................................................................................
স্মার্টফোন ব্যবহারের আদ্যোপান্ত
.............................................................................................
এন্টার্কটিকার বরফের নীচে খোঁজ মিললো পবর্তশ্রেণির
.............................................................................................
বাংলাদেশে ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর সংখ্যা প্রায় ৮.৬ কোটি
.............................................................................................
ফসলের আগাছা দূর করতে রোবট
.............................................................................................
মহাকাশে চীনের বিস্ময়কর অগ্রগতি: চাঁদের কক্ষপথে কমিউনিকেশন স্যাটেলাইট
.............................................................................................
শাওমির ক্যামেরা বিস্ট রেডমি নোট-৫ এর প্রি-বুকিং শুরু শনিবার
.............................................................................................
ফেসবুক গুগল ও টুইটারের প্রধানের বিরুদ্ধে সমন
.............................................................................................
ফেসবুক গুগল ও টুইটারের প্রধানের বিরুদ্ধে সমন
.............................................................................................
সানব্লক বা সানস্ক্রিন নিয়ে কিছু কথা
.............................................................................................
চার কিশোরের উদ্ভাবনী বদলে দেবে পৃথিবীকে
.............................................................................................
রোবটের সঙ্গে মানুষের মোটরবাইক রেসিং
.............................................................................................
দুরন্ত গতিতে এগিয়ে যাবে ‘টিম দুর্জয়’: রফিকুল ইসলাম
.............................................................................................
বিশ্বের প্রথম স্মার্টফোন
.............................................................................................
স্বাধীনতার মাসে ফুডপান্ডার বিশেষ ছাড়
.............................................................................................
তিন দিনের জন্য জব্দ রবির ব্যাংক হিসাব
.............................................................................................
দেশে ফোরজি’র যাত্রা শুরু অপারেটরদের লাইসেন্স হস্তান্তর
.............................................................................................
ই-স্বাস্থ্য’ কার্ডের মাধ্যমে ফোনেই মিলছে ডাক্তারের পরামর্শ
.............................................................................................
এসএসসি পরীক্ষায় ইন্টারনেটের গতি স্বাভাবিক থাকবে
.............................................................................................
নোভা ইলেক্ট্রনিক্স এর সৌজন্যে নেপাল ভ্রমন
.............................................................................................
ডিজিটাল বিনোদন প্লাটফর্ম ‘লিংকআস’
.............................................................................................
ব্যবসায়ীদের জন্য ‘হোয়াটসঅ্যাপ বিজনেস’
.............................................................................................
র‌্যাপিং পেপারের মতো গুটিয়ে রাখা যাবে এই টেলিভিশন
.............................................................................................
অ্যাপ স্টোরে বিক্রির নতুন রেকর্ডে অ্যাপল
.............................................................................................
সুপারমুন দেখা যাবে আজ
.............................................................................................
স্মার্টফোন ও ট্যাব মেলা ১১ জানুয়ারি থেকে
.............................................................................................
স্বাস্থ্য ঝুঁকি বাড়াচ্ছে ই-বর্জ্য আইন প্রণয়নের ওপর গুরুত্বারোপ
.............................................................................................
স্পেস স্টেশনে ভিনগ্রহী ব্যাকটেরিয়ার সন্ধান!
.............................................................................................
উৎসবমুখর পরিবেশে জাতীয় তথ্য-প্রযুক্তি দিবস পালিত
.............................................................................................
জরুরি সেবায় ৯৯৯
.............................................................................................
ডিজিটাল ওয়ার্ল্ডে ওয়ালটন প্রযুক্তি পণ্যের প্রশংসা করলেন প্রধানমন্ত্রী
.............................................................................................
১৭ ডিসেম্বরই পৃথিবী ধ্বংস হচ্ছে!
.............................................................................................
তথ্যপ্রযুক্তিতে তৈরি হবে ৪০০০ দক্ষ জনশক্তি : পলক
.............................................................................................
এসএমএস সার্ভিসের ২৫ বছর পূর্তি
.............................................................................................
যেমন দেখাবে মঙ্গলের শহর
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
চেয়ারম্যান: এস.এইচ. শিবলী ।
সম্পাদক, প্রকাশক: জাকির এইচ. তালুকদার ।
হেড অফিস: ২ আরকে মিশন রোড, ঢাকা ১২০৩ ।
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়: বাড়ি নং ২, রোড নং ৩, সাদেক হোসেন খোকা রোড, মতিঝিল বা/এ, ঢাকা ১০০০ ।
ফোন: 01558011275, 02-৪৭১২২৮২৯, ই-মেইল: dtvbanglahr@gmail.com
   All Right Reserved By www.dtvbangla.com Developed By: Dynamic Solution IT Dynamic Scale BD & BD My Shop    
Dynamic SOlution IT Dynamic POS | Super Shop | Dealer Ship | Show Room Software | Trading Software | Inventory Management Software Computer | Mobile | Electronics Item Software Accounts,HR & Payroll Software Hospital | Clinic Management Software Dynamic Scale BD Digital Truck Scale | Platform Scale | Weighing Bridge Scale Digital Load Cell Digital Indicator Digital Score Board Junction Box | Chequer Plate | Girder Digital Scale | Digital Floor Scale